বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

শিশুদের ‘নোবেলে’ মনোনীত নাটোরের শেখ রিফাদ

নাটোর জেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১২ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০২ এএম

নাটোরের শেখ রিফাদ মাহমুদ শিশুদের নোবেলখ্যাত ‘আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরষ্কার-২০২১’ এর জন্য মনোনীত হয়েছে। এ বছরের এপ্রিল মাসে আবেদন করা হলে গত ২ অক্টোবর তাকে মনোনীত করা হয়। অনুষ্ঠানের আয়োজক নেদারল্যান্ডসের ‘কিডস রাইটস ফাউন্ডেশন’ ওয়েবসাইটে বিষয়টি প্রকাশ করা হয়েছে।

শেখ রিফাদ মাহমুদ সম্পর্কে কিডস রাইটসের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে- রিফাদ একজন ‘তরুণ চেঞ্জমেকার’ ও ‘সমাজ-সংষ্কারক’। তিনি শিশুশ্রম বন্ধ এবং সুবিধাবঞ্চিত ও পথশিশুদের শিক্ষার সুযোগ করে দেন, তাদের জন্য বিনামূল্যে শিক্ষা-উপকরণ এবং নতুন জামা-কাপড় বিতরণ করেন। তিনি স্বাস্থ্যসহ শিশুদের অধিকারের বিষয়ে সচেতনতাও বাড়ান।

রিফাদের বাবা প্রিন্সিপাল শেখ মো. রকিবুল ইসলাম ছেলের আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরষ্কারে মনোনয়নের খবরে বেশ আনন্দিত। তিনি জানান, রিফাদ ছোট থেকেই বিভিন্ন সামাজিক কাজের সঙ্গে যুক্ত। সে শিশুদের শিক্ষা এবং অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে। করোনার শুরুতে নাটোর জেলাজুড়ে করোনা-সচেতন বার্তা ও লিফলেট পৌঁছে দিয়েছে। লকডাউনের সময় কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তাও পৌঁছে দিয়েছে। পাশাপাশি সে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনামূল্যে শিক্ষা-উপকরণ বিতরণ করছে। এছাড়া বিভিন্ন দুর্যোগ ও উৎসবে খাদ্য সহায়তা করে থাকে।
২০০৫ সালে রোমে অনুষ্ঠিত নোবেল শান্তি পুরষ্কার বিজয়ীদের এক শীর্ষ সম্মেলন থেকে এ পুরষ্কার চালু করে ‘কিডস-রাইটস’ নামের ফাউন্ডেশন। শিশুদের অধিকার, উন্নয়ন ও নিরাপত্তায় অসাধারণ অবদানের জন্য প্রতি বছর আন্তর্জাতিক শিশুশান্তি পুরষ্কার দেয়া হয়। ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সীরা ওই পুরষ্কার পাওয়ার যোগ্য।

২০১৩ সালে এই পুরষ্কার বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই পরের বছর জয় করেছিলেন নোবেল শান্তি পুরষ্কার। এছাড়া ২০২০ সালে বাংলাদেশ থেকে সাদাত রহমান এ পুরষ্কার অর্জন করেন। পুরষ্কারটির মোট অর্থমূল্য এক লাখ ইউরো। এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে সম্মানজনক শিশুদের পদক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

আগামী ১৩ নভেম্বর নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠানটি হওয়ার কথা রয়েছে। রিফাদসহ যারা মনোনীত হয়েছেন তাদের অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুদিন। কে হচ্ছেন চলতি বছরের আন্তর্জাতিক শিশুশান্তি পুরষ্কার বিজয়ী তা জানা যাবে এ মাসের শেষদিকে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন