শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কালীগঞ্জে ৭ টি গরু চুরি হওয়ায় সর্বস্বান্ত এক কৃষক

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ অক্টোবর, ২০২১, ৩:০১ পিএম

মাঠে কোন চাষযোগ্য জমি নেই। তাই কৃষক গঞ্জের আলীর গরু পালনই ছিল সংসার চালানোর একমাত্র সম্বল। সারা বছর পালন করে ১ টা ২ টা করে বিক্রি করেই চলত তাদের সংসার। তাই স্বামী-স্ত্রী দু’জনই লালন পালন করতেন গরুগুলোকে। কিন্ত মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে তাদের গোয়ালের ৯ টি গরুর মধ্যে ৭ টি গরুই চুরি হয়ে গেছে। বাকী রেখে গেছে ছোট দু’টি বাছুর। এখন শূন্য গোয়ালের সামনে দাঁড়িয়ে তারা শুধুই চোখের পানি ফেলছেন। তাদের প্রায় ৬ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থের স্ত্রী সিনু বেগম বাদি হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ফয়লা গ্রামে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক গঞ্জের আলী জানান, প্রতিদিনের ন্যায় রাতে গরু গুলোকে খেতে দিয়ে নিজেরা ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। এরপর ভোর ৪ টার দিকে বাইরে বের হয়ে দেখেন শুন্য গোয়াল পড়ে আছে। বাড়ির মূলফটক আলগা করা। গরুগুলো চুরি হয়ে গেছে।

তিনি আরও জানান, ভোরের দিকে এক রিকসাওয়ালা রিকসা নিয়ে পাশের নরেন্দ্রপুর গ্রামে যাচ্ছিল। এ সময় চোরেরা তাকে ধরে গাছের সাথে রশি দিয়ে বেধে রাখে। সে যেন হৈ চৈ করতে না পারে সে জন্য তার মুখ কাপড় দিয়ে বেধে রেখে যায়। সকালে রিকসা চালক জানান, চোরেরা নিজেরা মুখোশ পরিধান করে বড় বড় ধারালো দা ও দেশি অস্ত্রপাতি নিয়ে পিকআপে তুলে গরুগুলো নিয়ে যায়।

প্রতিবেশি জিল্লুর রহমান জানান, চোরেরা প্রাচীর ডিঙিয়ে বাড়ির ভিতরে প্রবেশ করে। এরপর বাড়ির গেটের হুক কেটেছে। কোন শব্দ হওয়ার ভয়ে বাড়ির বাইরে থাকা কাপড় দিয়ে গরু গুলোর মুখ বেধে পিকআপে তুলে নিয়ে গেছে। তিনি বলেন, গঞ্জের আলী অত্যন্ত গরীব কৃষক। এখন তার সবকিছু শেষ হয়ে গেছে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত মোতালেব হোসেন জানান, গরু চুরির ঘটনাটি সত্য। এ ঘটনায় থানাতে একটি অভিযোগ পেয়েছেন। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন