সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

দুর্ঘটনা কবলিত প্রাইভেটকার থেকে ফেন্সিডিল ও স্বর্ণালংকারসহ পুলিশ কনস্টেবল আটক

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫৯ পিএম

খুলনার চুকনগর-সাতক্ষীরা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন আহত হয়েছেন। দুর্ঘটনা কবলিত প্রাইভেটকার থেকে ফেন্সিডিল, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ এক পুলিশ কনষ্টেবলকে আটক করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে চুকনগর-সাতক্ষীরা মহাসড়কে এই ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন চুকনগর হাইওয়ে থানা পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, শুক্রবার সকাল সোয়া ১০ টার দিকে সাতক্ষীরা থেকে একটি দ্রুত গতি সম্পন্ন প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো-খ-১২-৬৪৫৫) চুকনগর-সাতক্ষীরা মহাসড়কের তালা থানাধীন মদনপুর বাসষ্ট্যান্ডে পৌঁছালে একজন মোটরসাইকেল আরোহীকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী মদনপুর গ্রামের আব্দুল গফুর মাহমুদ (৫৫) মারাত্মক আহত হন। আহতাবস্থায় তাকে চিকিৎসার জন্যে খুমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। এঘটনায় প্রাইভেটকার চালকও আহত হন।

খবর পেয়ে চুকনগর (খর্নিয়া) হাইওয়ে থানা পুলিশ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঘটনাস্থলে যেয়ে প্রাইভেটকারটি জব্দ করেন। এসময় প্রাইভেটকারটি তল্লাশী করে ৬ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। পরে প্রাইভেটকারের যাত্রী বাগেরহাটের চিতলমারী থানার শিবপুর কাটাখালী এলাকার মৃত অনিল কুমার দাসের পুত্র উত্তম কুমার দাস (৪০) এর দেহ তল্লাশী করে ২ লাখ ৮৩ হাজার টাকা ও একটি স্বর্ণের চেইন উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় আহতাবস্থায় প্রাইভেটকারের চালক সাতক্ষীরা সদরের বাসিকাখালী গ্রামের রবিউল ইসলামের পুত্র লুৎফর রহমান (২৩) ও উত্তম দাসকে আটক করে চুকনগর হাইওয়ে থানায় নিয়ে আসা হয়। আটক উত্তম কুমার দাস সাতক্ষীরা জেলা আদালতে কর্মরত পুলিশের একজন কনস্টেবল বলে জানা গেছে। যার ব্যাচ নম্বর (কং-৯৯৭)।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চুকনগর (খর্নিয়া) হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মেহেদী হাসান ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন, উদ্ধারকৃত টাকা থেকে আহত আব্দুল গফুরের চিকিৎসার জন্যে স্থানীয় ইউপি সদস্য কামরুজ্জামানের কাছে ১ লাখ টাকা দিয়ে আসা হয়েছে। শুক্রবার রাত ১০ টার সময় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ডুমুরিয়া থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে জানান তিনি। হাইওয়ে পুলিশের মাদারীপুর রিজিয়নের (যশোর সার্কেল) সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আলী আহম্মেদ হাশমী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Engr. Monir ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ১১:২২ এএম says : 0
Only a constable ? Where we live !
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন