সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মৃত্যু ৬, শনাক্তের হার ১.৮৮ শতাংশ

দেশে করোনাভাইরাস

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃত্যু কমতে থাকার প্রবণতা অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে আরো ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৭৫২ জন। এই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৯৩ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৬৫ হাজার ১৭৪ জন। মৃত ৬ জনের মধ্যে পুরুষ ৪ জন ও ২ জন নারী। এর আগে গত ১১ মার্চ দেশে করোনায় ৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। গতকাল শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪৪২ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ২৭ হাজার ৩৩৩ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮২৯টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৫ হাজার ২৫১টি এবং নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৫৮০টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ৭৬ হাজার ৮২৫টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১ দশমিক ৮৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ৫৩ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৫৮ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৬ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছেন ৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে একজন, খুলনা বিভাগে একজন এবং সিলেট বিভাগে একজন রয়েছেন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালেই মারা গেছেন ৬ জন। মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ২ জন রয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ১১৮ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ২১৪ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন ৩ লাখ ৮৪ হাজার ২৬৭ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৫ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৩৮ হাজার ২৬২ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে। বর্তমানে করোনাভাইরাসের দাপট কমতে শুরু করেছে। ##

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন