সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

চলন্ত ট্রেনে এক নারীকে প্রকাশ্যে ধর্ষণ, চুপচাপ দেখল অন্য যাত্রীরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৫৪ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের ফিলাডেলফিয়ার শহরতলিতে একটি যাত্রীবাহী ট্রেনে এক নারীকে প্রকাশ্যে সবার সামনেই ধর্ষণ করা হয়েছে। এ সময় ট্রেনে উপস্থিত অন্য যাত্রীরা কিছুই না করে শুধু চুপচাপ বসে ছিল এবং ধর্ষণের ঘটনা দেখছিল। এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, তাদের ‘কিছু করা উচিত ছিল’।
আপার ডার্বি পুলিশ বিভাগের সুপারিনটেনডেন্ট টিমোথি বার্নহার্ড বলেন, মার্কেট-ফ্রাঙ্কফোর্ড লাইনে পশ্চিম দিকে যাত্রা করা একটি ট্রেনে এক নারীর ওপর হামলা হয়।
বার্নহার্ড বলেন, দক্ষিণ-পূর্ব পেনসিলভানিয়া পরিবহন কর্তৃপক্ষের (সেপটা) একজন কর্মী, যিনি ট্রেনটি অতিক্রম করার সময় আশে পাশে ছিলেন, তিনি পুলিশকে ফোন করে জানিয়েছিলেন যে ট্রেনে থাকা একজন নারীর সঙ্গে খারাপ কিছু ঘটেছে।
পরবর্তী স্টপেজে অপেক্ষায় থাকা সেপটা পুলিশ ওই নারীকে খুঁজে পায় এবং ধর্ষক ফিস্টন এনগয়কে গ্রেপ্তার করে। ওই নারীকে উদ্ধারের পর পুলিশ হাসপাতালে নিয়ে যায়।
বার্নহার্ড বলেন, পুরো ঘটনা নজরদারি ক্যামেরার ভিডিওতে ধারণ করা হয়েছে। ভিডিওতে ধর্ষণের সময় ট্রেনে আরও অনেক যাত্রীকেই দেখা গেছে।
বার্নহার্ড বলছিলেন, ‘সেখানে অনেক লোক ছিল। আমার মতে তাদের হস্তক্ষেপ করা উচিত ছিল; কারও কিছু করা উচিত ছিল’। এ ঘটনা থেকে আমাদের সমাজ কোথায় আছে তা বোঝা যায়; আমি বলতে চাচ্ছি, পৃথিবীর কোন দেশে কে প্রকাশ্যে এমন কিছু ঘটতে দেবে? তাই এটা উদ্বেগজনক’।
তিনি বলেন, এটা বিরক্তিকর। ‘আমি হতবাক, আমি বাকরুদ্ধ। যত্রীরা নিজের চোখ দিয়ে যা দেখছে তা আমি কল্পনাও করতে পারছি না এবং তারা এই নারীর ওপর কী চলছে তা দেখেও কেউ এগিয়ে এসে তাকে সাহায্য করল না’।
ডেলাওয়্যার কাউন্টি আদালতের রেকর্ড অনুযায়ী ৩৫ বছর বয়সী ফিস্টন এনগয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, তীব্র অশালীন হামলা এবং সংশ্লিষ্ট আরও অভিযোগ আনা হয়েছে। বার্নহার্ড বলেন, সেপটা এবং আপার ডার্বি পুলিশ উভয়ের কাছেই ওই ধর্ষক পরিচিত একজন ব্যক্তি।
সেপটা পুলিশ একটি বিবৃতি জারি করে একে ‘ভয়াবহ অপরাধমূলক কাজ’ বলে অভিহিত করেছে এবং এমন ঘটনা দেখলে নাগরিকদের কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট করার আহ্বান জানিয়েছে।
বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সেপটার মার্কেট-ফ্রাঙ্কফোর্ড লাইনে বুধবার রাতে (১৩ অক্টোবর) ঘটে যাওয়া ধর্ষণ একটি ভয়াবহ অপরাধমূলক কাজ ছিল। ট্রেনে আরো কিছু লোক ছিল যারা এই ভয়াবহ কাজটি চুপচাপ বসে থেকে দেখছিল, এবং কোনো একজন যাত্রী যদি ৯১১ নাম্বারে কল করত তাহলে এই অপরাধ দ্রুত বন্ধ করা যেত’।
‘অপরাধ সংঘটিত হতে দেখলে বা কোন বিপজ্জনক পরিস্থিতি দেখলে তা রিপোর্ট করার জন্য সকলকে আহ্বান জানাচ্ছি আমরা। যে কেউ কোনো জরুরী অবস্থা দেখলে দয়া করে অবিলম্বে ৯১১ নম্বরে কল করবেন’। সূত্র : রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Mak Milon N ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ১০:১৮ পিএম says : 0
এই পিতৃপরিচয়হীন অসভ্যরা আবার নাকি বিশ্ববাসীকে সভ্যতা শেখায়।
Total Reply(0)
Sheikh Mamun ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ১০:১৮ পিএম says : 0
নাউজুবিল্লাহ
Total Reply(0)
jack ali ১৭ অক্টোবর, ২০২১, ৯:৪৪ পিএম says : 0
একেই বলে সভ্যতা বাংলাদেশ আর দেরি নেই এটা হবে প্রকাশ্যে কেউ কিছু বলবেনা তবে আমরা যদি এখনো ঘুমিয়ে থাকি আর আল্লাহর আইন প্রতিষ্ঠিত না করি তাহলে আমাদের মা বোন মেয়ে দেরকে রাস্তার মধ্যে এভাবেই ধর্ষণ করা হবে
Total Reply(0)
Harun ur rashid ১৮ অক্টোবর, ২০২১, ৪:৩১ এএম says : 0
No problem. It's coming very soon in Bangladesh.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন