মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

এই হার বাংলাদেশকে ভোগাবে!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ অক্টোবর, ২০২১, ৭:২৩ পিএম

নিজেদের সেরা পারফরম্যান্স দেখানোর লক্ষ্যেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে ওমান গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। কিন্তু বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচেই হোঁচট। তাও আবার পুঁচকে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে লজ্জার হার! যে হারে হতবাক বাংলাদেশসহ পুরো ক্রিকেটবিশ্ব। অবিশ্বাস্যই বটে! কেউ ভাবতেই পারেনি বাংলাদেশ হেরে যাবে স্কটিশদের কাছে। কারণ ধারে-ভারে স্কটল্যান্ডের চেয়ে বেশ এগিয়ে রয়েছে টাইগাররা।

বিশ্বকাপ মিশনে যাওয়ার আগে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মতো স্বীকৃত শক্তিকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে উড়িয়ে দিয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। দুই দেশকে সিরিজ ব্যবধানে হারিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছিল বাংলাদেশ। তবে টাইগারদের সেই আত্মবিশ্বাসের অপমৃত্যু ঘটলো ওমানের মাসকটে। রোববার রাতে সাকিবদের ৬ রানে হারিয়ে এখন আলোচনায় স্কটিশরা। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে এই হার শুধু বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থক কিংবা সংশ্লিষ্টদেরই আশ্চর্য কিংবা হতাশ করেনি, করেছে বিশ্বের নানা ক্রিকেটবোদ্ধাদের। এই তালিকায় আছেন সাবেক তারকা ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকাররাও। ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং স্বনামধন্য ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়া বাংলাদেশের হার নিয়ে আক্ষেপ করে লিখেছেন, ‘এটা (এই হার) বড্ড ভোগাবে। ভোগানো উচিতও।’

ভারতের ক্রীড়া প্রযোজক এবং ক্রিকেট পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা সারাং ভালেরাওয় প্রশ্ন ছুড়েছেন, প্রথম দিনই অঘটন দেখল না তো ক্রিকেটবিশ্ব! ভারতের ক্রীড়া সাংবাদিক চেতন নারুলা টুইটে সরাসরি বলেই দিয়েছেন, এটা অঘটন।

তবে বাংলাদেশকে হারানোয় অনেকে আবার স্কটল্যান্ডের কৃতিত্বকে সামনে আনছেন। ক্রিকেটভিত্তিক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোর এডিটর-ইন-চিফ সামবিত বাল ম্যাচ শেষে নিজের প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেন, ‘এবারের বিশ্বকাপকে চমকপ্রদ এক শুরু এনে দিলো স্কটল্যান্ড। বড় দলকে হারানো, বড় কাজই বটে। আর ৫৩ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর স্কটল্যান্ডের বাকি অর্ধেক পথ অবিশ্বাস্য ছিল।’

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের উপস্থাপিকা পাকিস্তানের জনপ্রিয় টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব জইনব আব্বাসও টুইটে প্রশংসা করেছেন স্কটিশদের, ‘বাংলাদেশ এই বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড এবং জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে খেলতে এসেছিল। ভালো খেলায় স্কটল্যান্ডকে কৃতিত্ব দিতেই হয়। সবচেয়ে বড় কথা, মাঠে তারা ছিল দুর্দান্ত।’

বাংলাদেশের হারের পেছনে ব্যাটিং ব্যর্থতা যেমন দায়ী, তেমনি দায়ী ক্রিস গ্রেভসও। তার অলরাউন্ড নৈপুণ্যই ব্যবধান গড়ে দিয়েছে বাংলাদেশ-স্কটল্যান্ড ম্যাচের। দক্ষিণ আফ্রিকান চ্যানেল সুপারস্পোর্টসের সম্প্রচারকারী এবং লেখক ডেরেক আলবার্টস তাই প্রশংসা করেছেন গ্রেভসের,‘প্রথম দিনেই দৈত্য বধ। স্কটল্যান্ড বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অবিশ্বাস্য এক জয় তুলে নিয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম এবং বেড়ে ওঠা ক্রিস গ্রেভস সে জয়ে রেখেছেন অবদান।’

বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ নিজেদের কন্ডিশনের সুবিধা নিয়ে নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মতো দলকে হারিয়েছিল। সেই কথা মনে করিয়ে দিয়ে ক্রিকেট নিয়ে কাজ করা নিখিল নামের একজন খোঁচা দিয়ে লিখেছেন,‘এটা কোনো অঘটন নয়। ছন্দে থাকা একটা দল তাদের হারিয়েছে, যারা জয়ের জন্য কন্ডিশনের সুবিধা খোঁজে।’

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন