সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দ্রব্যমূল্য ইস্যুতে সিরিজ কর্মসূচি

বিতরণ করা হবে লিফলেট, চলবে সপ্তাহব্যাপী সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৪ এএম

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের লাগামহীন আকাশচুম্বি মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সিরিজ কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নামছে বিএনপি। আগামীকাল শনিবার থেকে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি পালনের পাশাপাশি দ্রব্যমূল্যের আকাশছোঁয়া ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ‘গণবিরোধী সরকারের মদদে বাজার সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান’ শীর্ষক লিফলেট বিতরণ করবে দলটি। সম্প্রতি বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে কর্মসূচি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এরপরই দলের চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন কর্মসূচীর তারিখ নির্ধারণ করে। দলটির নেতারা বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাস, ঘূর্ণিঝড় আর বন্যার প্রভাবে এমনিতেই মানুষের জীবন যখন বিপর্যস্ত। এখন মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে দেখা দিয়েছে দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি। করোনার কারণে দীর্ঘদিন দেশে লকডাউন থাকায় অসংখ্য মানুষের আয় রোজগার বলতে গেলে একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে। অর্থনৈতিকভাবে দুর্বল হয়ে যায় শ্রমজীবী নি¤œ আয়ের মানুষ। তারা বলেন, বেসরকারি হিসেবে প্রায় ৪ কোটি মানুষ কর্মসংস্থান হারিয়েছেন।

সম্প্রতি দেশের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হতে শুরু করলেও পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়নি ব্যবসা-বাণিজ্য। এই অর্থনৈতিক দুর্বল অবস্থায় দেশে দেখা দিয়েছে দ্রব্যমূল্যের চরম ঊর্ধ্বগতি। প্রতি মুহুর্তে বাড়ছে জিনিসপত্রের দাম। লাগামহীন আকাশচুম্বী দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে জনজীবনে নাভিশ^াস উঠেছে। চাল, ডাল, তেল, মরিচ, পেঁয়াজ, রসুন, মাছ, মাংস, তরকারি ইত্যাদি নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্যের অস্বাভাবিক ঊর্ধ্বগতি জনজীবনের গতিকে প্রায় অচল ও আড়ষ্ট করে তুলেছে। পরিস্থিতি এখন এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে চাল কিনলে তেল কিনতে পারেন না, তরকারি কিনলে চাল কিনতে পারেন না।

মোট কথা হলো পণ্যমূল্য বেড়েছে কিন্তু ক্রয়ক্ষমতা বাড়েনি বরং ক্রয়ক্ষমতা কমেছে। ফলে সমাজে আয় বৈষম্য দেখা দিয়েছে। নির্দিষ্ট আয়ের মানুষের মনে দেখা দিয়েছে অসন্তোষ ও উদ্বেগ। চাহিদার তুলনায় পর্যাপ্ত পরিমাণ উৎপাদন হওয়ার পরও দাম বেড়ে যায়। বিএনপির নীতি নির্ধারকরা মনে করেন এমতাবস্থায় আর বসে থাকার সময় নেই। দেশের মানুষের পক্ষে কথা বলাৈর জন্য এই মুহুর্তেই কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নামা উচিত। বিএনপি যেহেতু জনবান্ধব রাজনৈতিক দল সেহেতু দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে কর্মসূচীর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কেননা দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির পেছনে সরকারী সিÐিকেটই দায়ী। সরকার সব মুনাফাখোরদেরকে প্রশ্রয় দিচ্ছে। বাজারে তাদের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বর্তমান সরকার লাগামহীনভাবে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দ্রব্যমূল্য সীমাহীন বাড়িয়েছে। ফলে জনজীবনে নাভিশ^াস দেখা দিয়েছে। কারণ সরকার সব মুনাফাখোরদেরকে প্রশ্রয় দিয়েছে। বাজারে তাদের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। সে কারণেই আমরা বিএনপির পক্ষে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে লাগাতার কর্মসূচির সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামীকাল শনিবার থেকে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি পালন করা হবে বলে তিনি জানান।

কর্মসূচী: জানা গেছে, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে সিরিজ কর্মসূচী পালন করবে বিএনপি। আগামীকাল শনিবার থেকে এসব কর্মসুচি শুরু হচ্ছে। প্রথমেই ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে সকাল ১১ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ২৪ অক্টোবর ঢাকা মহানগর উত্তর, ২৫ অক্টোবর কৃষক দল, ২৬ অক্টোবর স্বেচ্ছাসেবক দল, ২৮ অক্টোবর শ্রমিক দল, ৩০ অক্টোবর যুবদল এবং ৩১ ছাত্রদলের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হবে। জানতে চাইলে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ বলেন, ক্ষমতাসীন ভোট ডাকাত সরকারের মদদে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে জনজীবনে নাভিশ্বাস উঠেছে। তারই প্রতিবাদে কর্মসূচী পালন করা হবে। কেননা অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকারের কবল থেকে রক্ষা পেতে হলে ঐক্যবদ্ধভাবে দুর্বার আন্দোলনের বিকল্প নেই।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, জনবিচ্ছিন্ন অবৈধ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই লুটপাট শুরু করেছে। এখন তাদের মদদেই দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির মাধ্যমে লুটের মাত্রা কয়েকগুণ বেড়েছে। সঙ্গত কারণেই মানুষের পক্ষে জনবান্ধব কর্মসূচীতে মাঠে নামছে বিএনপি

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন