বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নির্যাতন সইতে না পেরে লিবিয়ায় তিন সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ করছে অভিবাসীরা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ অক্টোবর, ২০২১, ৬:৫১ পিএম

লিবিয়া থেকে নিজ নিজ দেশে ফিরতে কয়েক হাজার শরণার্থী ও অভিবাসী তিন সপ্তাহ ধরে ত্রিপোলিতে জাতিসংঘের একটি কেন্দ্রের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে। শুক্রবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা অনলাইন এ তথ্য জানিয়েছে।
সম্প্রতি কয়েক হাজার অভিবাসী ও শরণার্থী লিবিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে। এসব অভিবাসী ও শরণার্থীর ওপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। এর প্রতিবাদে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর ত্রিপোলিতে তাদের কার্যক্রম বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে।
ত্রিপোলিতে ইউএনএইচসিআরের দপ্তরের সামনে অবস্থান নেওয়া ইরিত্রিয়ার এক শরণার্থী বলেন, ‘কোনো চিকিৎসা নেই। খাদ্য নেই। পানি নেই। বড় সমস্যা হচ্ছে টয়লেট। আমরা আশা করছি ইউএনএইচসিআর আমাদের নিরাপদ কোনো দেশে নিয়ে যাবে।’
গত পহেলা অক্টোবর থেকে লিবিয়ায় অবস্থান নেওয়া পাঁচ হাজারের বেশি শরণার্থী ও অভিবাসীকে আটক করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। এসব ব্যক্তিদের অজ্ঞাত স্থানে আটক রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ৫৪০ জন নারী রয়েছেন, যাদের মধ্যে ৩০ জন গর্ভবতী। আটককৃতদের অনেকেই ইতোমধ্যে সরকারি মদদপুষ্ট বিভিন্ন আটককেন্দ্রে কয়েক বছর কাটিয়েছেন। গত ৮ অক্টোবর ঘোট শাল হিসেবে পরিচিত আটককেন্দ্রে অন্তত ছয় জনকে গুলি করে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। এই জনাকীর্ণ আটককেন্দ্রটিতে আগে থেকেই কয়েক হাজার শরণার্থীকে রাখা হয়েছিল।
নিরাপত্তা বাহিনীর ভয়ে পালিয়ে বেড়ানো ইরিত্রিয়ার এক শরণার্থী বলেছেন, ‘আমরা ভীত, আমরা বাইরে বের হতে পারছি না। যখন যুদ্ধ চলছিল তখন এরচেয়ে ভালো সময় ছিল। আমরা এখন অনেক বেশি ভীত। আমরা কারাগারে যাওয়ার ভয়ে ভীত। আমাদের সন্তান রয়েছে এবং আমরা কারাগারের ভেতরের জীবন সম্পর্কে জানি।’ সূত্র : আল জাজিরা

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন