সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বৃদ্ধকে সুদের টাকার জন্য প্রকাশ্যে বিবস্ত্র-নির্মম নির্যাতন

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২১, ৯:০৮ এএম

গ্রামের গরীব মানুষ সুদের যাতাকলে পিষ্ট হচ্ছেন প্রতিদিন। কড়া সুদে টাকা নিয়ে নির্যাতন ও অপমানের ভয়ে অনেকে এলাকা ছেড়েছেন।

এদিকে বকশীগঞ্জে সুদের টাকার জন্য এক বৃদ্ধকে প্রকাশ্যে বিবস্ত্র হতে বাধ্য করেছেন এক দাদন ব্যবসায়ী। তবে বিবস্ত্র হয়েও সুদের টাকার দায় থেকে মুক্তি পাননি ঐ দরিদ্র বৃদ্ধ। দাদন ব্যবসায়ীর হাতে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ঐ দিনমজুর। ন্যাক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে বকশীগঞ্জ উপজেলার নতুন টুপকারচর গ্রামে।

স্থানীয়রা জানান, মেরুরচর ইউনিয়নের নতুন টুপকারচর গ্রামের সাধু শেখের ছেলে সফিকুল ইসলাম এলাকায় চিহ্নিত দাদন ব্যবসায়ী। গত চার বছর আগে তার কাছ থেকে চড়া সুদে ১০ হাজার টাকা নেন একই এলাকার মৃত বাচ্চু শেখের ছেলে নান্ডা শেখ (৫৫)। ১০ হাজার টাকা সুদে নিলেও গত চার বছরে প্রায় ৪০ হাজার টাকা সুদ দেন নান্ডা শেখ।

আসল ১০ হাজার টাকা থেকেও ৫ হাজার টাকা ফেরত দেন তিনি। এরপরেও ৫ হাজার টাকার জন্য প্রতিনিয়ত চাপ দিতে থাকেন সফিকুল। করোনার কারণে ঐ ৫ হাজার টাকা ফেরত দিতে পারছিলেন না নান্ডা শেখ। গত ১ মাস আগে সফিকুল মিয়া বৃদ্ধ নান্ডা শেখকে শর্ত দেয়— প্রকাশ্যে বিবস্ত্র হতে পারলে ৫ হাজার টাকা আর ফেরত দিতে হবে না। টাকা ফেরত দিতে না পারায় বাধ্য হয়ে অসহায় বৃদ্ধ নান্ডা শেখ সবার সামনে বিবস্ত্র হন।

বৃদ্ধ নান্ডা শেখ ভেবেছিলেন ৫ হাজার টাকা আর ফেরত দিতে হবে না। সফিকুলও একমাস আর টাকা চায়নি। গত শুক্রবার সফিকুল আবারো নান্ডা শেখকে টাকা ফেরতের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। টাকা দিতে না পারায় প্রকাশ্যে বৃদ্ধ নান্ডা শেখকে মারধর করে সফিকুল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন