রোববার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

মরুর দেশে আফগানদের রুখতে পারবে কি স্কটিশরা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ অক্টোবর, ২০২১, ৭:১২ পিএম

শ্বাসরুদ্ধকর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে গ্রুপ-২ এ সোমবার আফগানিস্তান মুখোমুখি হচ্ছে স্কটল্যান্ডের। শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে ম্যাচটি। মরুর দেশে আফগানদের রুখতে পারবে কি স্কটিশরা? এখন এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে। বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে এটাই দু’দলের প্রথম ম্যাচ। তাই জয় দিয়েই এ পর্ব শুরু করতে চায় দু’দল। বাছাই পর্বে গ্রুপ ‘বি’র চ্যাম্পিয়ন হয়ে সুপার টুয়েলভে এসেছে স্কটল্যান্ড। ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম আসরেই খেলেছিলো স্কটল্যান্ড। এরপর ২০০৯ সালে খেললেও, পরের তিন আসরে জায়গা পায়নি তারা। ২০১৬ সালে আবারো বিশ্বকাপের মঞ্চে দেখা যায় স্কটিশদের। তিন বিশ্বকাপেই প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেয় দলটি। তবে প্রথমবারের মতো এবার সুপার টুয়েলভে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে স্কটল্যান্ড।

বিশ্বকাপের শুরুতেই তারা চমক দেখায়। বাছাই পর্বে ফেভারিট বাংলাদেশকে ৬ রানে হারিয়ে আলোচনায় স্কটিশরা। পরের দুই ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনিকে ১৭ রানে এবং ওমানকে ৮ উইকেটে হারিয়ে গ্রুপের সেরা দল হিসেবে সুপার টুয়েলভে জায়গা করে নেয় স্কটল্যান্ড।

সুপার টুয়েলভেও চমক দেখানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন স্কটল্যান্ডের অধিনায়ক কাইল কোয়েতজার। রোববার তিনি বলেন, ‘আমাদের সামনে অনেক কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। তবে বিশ্বসেরা দলগুলোকে আমরা চমকে দিতে চাই। এজন্য বিশ্বকাপের শুরুটা ভালো করা দরকার। বাছাই পর্বের মতই শুরু করার লক্ষ্য আমদের।’

অন্যদিকে ২০১০ সালে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে আফগানিস্তান। এরপর ২০১২ ও ২০১৪ সালেও অংশ নিয়েছিলো তারা। নিজেদের প্রথম তিন আসরে প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিলেও ২০১৬ সালে দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলার যোগ্যতা পায় আফগানিস্তান। আর এবার র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আট দলের মধ্যে থাকায় সুপার টুয়েলভে সরাসরি খেলছে তারা। ফলে সুপার টুয়েলভ দিয়েই বিশ্বকাপের সপ্তম আসরে যাত্রা শুরু করছেন রশিদ-নবীরা।

এবার আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই বিশ্বকাপ শিমন শুরু করছে আফগানরা। অফিসিয়াল দুই ম্যাচে একটি করে জয় ও হার আছে দলটির। ২০১৮ সালের জুন থেকে আটটি দ্বিপাক্ষীক সিরিজের সাতটিতেই জয় পেয়েয়েছে আফগান ক্রিকেট দল। একটি সিরিজ সমতায় শেষ করে তারা। তাই ভালো অবস্থায় থেকেই বিশ্বকাপ শুরু করতে পারছে দলটি।

অথচ এই বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের খেলা নিয়ে ছিল চরম সংশয়। কারণ গত ১৫ আগস্ট তালেবানদের দখলে চলে যায় আফগানিস্তান। তালেবানরা দেশ শাসনের ভার গ্রহণ করায় বিভিন্ন বিধি-নিষেধের মুখে পড়ে আফগানিস্তানের ক্রীড়াঙ্গন। নারীদের ক্রিকেট নিষিদ্ধ করে দেয় তালেবানরা। তবে শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ মঞ্চে নামছে আফগানিস্তানের পুরুষ ক্রিকেট দল।

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে আফগান অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী বলেন, ‘যে কোন আসরে প্রথম ম্যাচ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। জয় দিয়ে শুরু করা হলো মূখ্য বিষয়। প্রতিপক্ষ যেমনই হোক না কেন, জয় দিয়ে আসর শুরু করতে চাই আমরা।’

চার বিশ্বকাপে অংশ নিয়ে ১৪ ম্যাচে ৫ জয় ও ৯ হার রয়েছে আফগানিস্তানের। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ৬টি ম্যাচ খেলেছে তারা। সবগুলোতেই জিতেছে আফগানিস্তান। তাই স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে স্পষ্টভাবেই ফেভারিট দলটি। তবে বাছাই পর্বের দিকে নজর দিলে স্পষ্টই চোখে পড়ে আফগানিস্তানকেও চমকে দেয়ার সামর্থ্য রাখে স্কটল্যান্ড।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন