বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

আকিজের নতুন মডেলের ট্রাক-মিনিবাস সংযোজন ও ডিলারদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ৬:১৬ পিএম

বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় এবং স্বনামধন্য এক অন্যতম বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী হিসেবে পরিচিত আকিজ গ্রুপ। ১৯৩৮ সালের দিকে ক্ষুদ্র পরিসরে অল্প পুঁজি নিয়ে ট্রেডিং ব্যবসা শুরু করেন শেখ আকিজউদ্দিন। অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে আকিজ গ্রুপ আজ বাংলাদেশে এক অন্যতম বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে দেশ-বিদেশে। মরহুম শেখ আকিজ উদ্দিন অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে পঞ্চাশের দশকে গড়ে তুলেন বিড়ি ও পাট এর ব্যবসা এবং এই ব্যবসার মাধ্যমে সাফল্য আসে আকিজ পরিবারে। বর্তমানে প্রায় ১ (এক) লক্ষের অধিক কর্মকর্তা/কর্মচারী আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে যার বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে রপ্তানি ট্রফি (স্বর্ণ) পাট ও চামড়া ব্যবসায় বৃহৎ রপ্তানিকারক হিসেবে। আকিজ গ্রুপ বিভিন্ন শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সফলভাবে পরিচালনা করে একাধিক শিল্প ও কলকারখানা গড়ে তুলেছে দেশের বিভিন্ন জায়গায়। বর্তমানে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে- বিড়ি, পাটের সুতা, ক্রাষ্ঠ ও ফিনিসড লেদার, জুতা, টেক্সটাইল, প্রিন্টিং ও প্যাকেজিং, পার্টিকেল বোর্ড, খাদ্য ও পানীয়, সিমেন্ট, সিরামিক, সিকিউরিটিজ (শেয়ার কেনা/বেচা), কম্পিউটার হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার, দেশের বিভিন্ন স্থানে সি.এন.জি ও এলপিজি ষ্টেশনের মাধ্যমে গ্যাস বিক্রয় এবং বিভিন্ন ধরনের গাড়ির ব্যবসা অন্যতম।

চায়নার বিখ্যাত মটর কোম্পানী সিনোট্রাক এর গাড়িগুলো এখন থেকে আকিজ মটরস বাজারজাত করবে।

আকিজ মটরস এর রয়েছে ৮ টি পিলার, যার মধ্যে অন্যতম ১ টন থেকে ৫০ টন পর্যন্ত ছোট এবং বড় সকল ধরণের ব্যক্তিগত এবং বাণিজ্যিক গাড়ি বিক্রয় করে। বিভিন্ন ধরণের গাড়ি বিক্রয় করার পাশাপাশি ইলেকট্রিক মটরসাইকেল ও ইলেকট্রিক গাড়ি দেশে সংযোজন করে বিক্রয় করা হয়। আধুনিক ওয়ার্কশপ নির্মাণের জন্য সকল প্রকার অটো ওয়ার্কশপ ইকুইপমেন্ট সরবরাহ করে আকিজ মটরস। মটর গাড়ি বাজারজাত করার পাশাপাশি আকিজের রয়েছে ৬টি নিজস্ব সার্ভিস সেন্টার ও শো-রুম এবং সারা দেশে প্রায় ৩৬ টি অথোরাইজড সার্ভিস সেন্টার ও ২৭ টি গাড়ি বিক্রয়ের ডিলার রয়েছে। গত তিন বছরে আকিজ মটরস ১০০০ টি গাড়ি বিক্রয় করতে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশের মাটিতে এত অল্প সময়ের মাঝে ১০০০ টি গাড়ি বিক্রয় করা একটি ইতিহাস। উন্নত বিশ্বের মত উন্নত মানের গাড়ি গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে বদ্ধপরিকর আকিজ মটরস। রুপপুর পারমানবিক কেন্দ্রে বিশেষ ধরণের গাড়ি প্রদান করেছে আকিজ মটরস। গাড়িগুলো নিজস্ব কারখানায় সংযোজিত এবং বুয়েট দ্বারা পরীক্ষিত।

আকিজ মটরসের একটি অন্যতম পিলার হচ্ছে ইলেকট্রিক মটরসাইকেল ও ইলেকট্রিক গাড়ি। বর্তমান বিশ্বে একটি জনপ্রিয় বাহন হচ্ছে ইলেকট্রিক মটরসাইকেল ও ইলেকট্রিক গাড়ি। অনেক দেশ এই খাতে সাবসিডি দেয়। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে কোন প্রকার ট্যাক্সের সুবিধাপাই নাই।

যদি সরকার এই ইলেকট্রিক মটরসাইকেল বা ইলেকট্রিক গাড়িতে সাবসিডি দেয় তবে এই দেশেও এটি জনপ্রিয় বাহন হিসেবে আখ্যায়িত হবে যা পরিবেশকে সুরক্ষা করবে। হালকা বাণিজ্যিক যানবাহন এর জন্য প্রয়োজন হয়, এমন স্পেয়ার পার্টসেও শুল্ক সুবিধা থাকা দরকার। মিনিট্রাক/পিকআপ ও ভারী যানবাহনের ভালমানের পার্টস পাইকারী দামে এবং জাপানী গাড়ির বিশেষত টয়োটা গাড়ির বিভিন্ন ধরনের স্পেয়ার র্পাটস ও কার ডেকোরেশন আইটেম বিক্রয় করে আকিজ মটরস।

আকিজ মটরস তার নিজস্ব সার্ভিস সেন্টারে আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমে গাড়ি সংযোজন করে। বর্তমানে মিনিট্রাক ও পিকাপ সহ ৩/৪ টি মডেলের গাড়ি এসেম্বলি করা হচ্ছে এবং আশা করছি আগামি বছর আরও ৩ টি মডেলের গাড়ি সংযোজন হবে। দেশব্যাপী আকিজের যে সুনাম রয়েছে, তার ধারাবাহিকতায় করা হবে আধুনিক মটর কারখানা। আন্তর্জাতিক মানের গুনগত মানসম্পন্ন প্রোডাক্ট গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হয়েছে। বাণিজ্যিক বাহনগুলি আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হওয়াতে এগুলোর স্থায়িত্ব দীর্ঘকাল এবং ক্রেতা গাড়ি ব্যবহার করে সন্তুষ্ট।

সকল দিক বিবেচনা করে বাজারে আকিজ নিজস্ব সুনাম ধরে রেখে কাজ করে যাচ্ছে গাড়ির জগতে। কোয়ালিটির কথা মাথায় রেখে সাশ্রয়ী মুল্যে অরজিনাল ইসুজু ইঞ্জিন দ্বারা ১ টন, ১.৫ টন, ৩ টন এবং ৩.৫ সি বি এম ছোট ডাম্প ট্রাক গাড়ি সংযোজন করে বাজারজাত করছে যা ক্রেতাকে আকৃষ্ট করেছে।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) আকিজ মটরস-এর নিজস্ব সংযোজন কারখানা কেটুন, পূর্বাচল উপশহর, কালীগঞ্জ, গাজিপুরে অনুষ্ঠিত হয়েছে নতুন মডেলের ট্রাক ও মিনিবাস এর সংযোজন ও ডিলারদের সম্মেলন অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত ছিলেন প্রধান নির্বাহী সেখ আমিনুদ্দিন, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টার খন্দকার হেলালুজ্জামান, এম আই এস ম্যানেজার ইফতেখার হোসেন, হেড অফ ব্র্যান্ড এন্ড ক্রিয়েটিভ মো. সাইফুল আলম (জামিল, হেড অফ গ্যারেজ ইকুইপমেণ্টের ব্যবস্থাপক হাবিবুর রাহমান, বিক্রয় ব্যবস্থাপক আনোয়ার হোসেন ও কামরুল ইসলাম এবং প্রশাসন ব্যবস্থাপক সিদ্ধার্থ সরকার।

এই উপলক্ষ্যে কিছু নতুন মডেলের ৫, ৭, ১০ ও ১৫ টনের রাজদূত, রফরফ ও রুস্তম মডেল বাজারজাত শুরু করেছে চায়না সিনো ট্রাক কোম্পানির সহযোগিতায়। ৩টি দৃষ্টিনন্দন নতুন মডেলের ইলেকট্রিক মটরসাইকেল ও ইলেকট্রিক গাড়ির মোড়ক উন্মোচন করা হয় উক্ত অনুষ্ঠানে। সর্বশেষ দোয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন