শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ভয়ডরহীন ক্রিকেটের মন্ত্র বাংলাদেশের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ অক্টোবর, ২০২১, ৩:১১ পিএম | আপডেট : ৯:১০ পিএম, ২৭ অক্টোবর, ২০২১

এই মুহূর্তে বাংলাদেশ দলকে উজ্জীবিত করার মন্ত্র খুব একটা নেই। কেননা নানামুখী সমালোচনায় ক্ষত-বিক্ষত টাইগার শিবির। বিশেষ করে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারটাকে ভুলে যাওয়া বেশ কঠিনই বাংলাদেশের জন্য। তবুও ভয়-ডরহীন ক্রিকেটের মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে আজ (বুধবার) ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামতে প্রস্তুত বাংলাদেশ। আবুধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় ম্যাচটি মাঠে গড়াবে। সরাসরি দেখা যাবে বিটিভি, গাজী টেলিভিশন ও টি-স্পোর্টসে।

টেস্ট খেলুড়ে সবগুলো দেশের সঙ্গে এই ফরম্যাটে খেললেও ইংলিশদের সঙ্গে একবারও মুখোমুখি হয়নি বাংলাদেশ। অথচ গত ১৫ বছরে টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে ১১৬টি ম্যাচ খেলেছে মাহমুদউল্লাহরা! অবশেষে অবসান হচ্ছে দীর্ঘ অপেক্ষার। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মঞ্চেই কুড়ি ওভারের ফরম্যাটে দুই দলের অভিষেক হচ্ছে। নিজেদের অভিষেক ম্যাচটি নিশ্চিতভাবেই জয়ে রাঙাতে চাইবে মাহমুদউল্লাহর দল!

তবে কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে দেখা না হলেও পঞ্চাশ ওভারের ক্রিকেটে দেখা হয়েছে দুই দলের। ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ইংলিশদের সঙ্গে টেক্কা দিয়েছে খুব ভালোভাবেই। এখন পর্যন্ত চারটি বিশ্বকাপে মুখোমুখি হয়ে ২টিতে জিতেছে, হেরেছে ২টি। ২০১১ বিশ্বকাপেই ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয়টি ২০১৫ বিশ্বকাপ, অ্যাডিলেডে ইংলিশ দলকে বিদায় করে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছিল মাশরাফির দল। ভিন্ন ফরম্যাট হলেও এই দুটি ম্যাচ থেকে চাইলে আত্মবিশ্বাস নিতে পারে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

যদিও চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস তলানীতে। প্রাথমিক রাউন্ডে স্কটিশদের কাছে হারের পর কোনওরকমে সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। এরপর নিজেদের প্রথম ম্যাচে লঙ্কানদের বিপক্ষে ক্যাচ মিসে জয় হাতছাড়া হয়েছে। শুধু হারই নয়, ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং কোন বিভাগেই বাংলাদেশ দল নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারেনি। ইংল্যান্ডের মতো দলের বিপক্ষে সেরাটা খেলতে পারবে এর নিশ্চয়তাও নেই।

অথচ ইংলিশরা তাদের প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত শুরু করেছে। ক্যারিবীয়দের ১৪.২ ওভারে অলআউট করেছে মাত্র ৫৫ রানে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যা তৃতীয় সর্বনিম্ন। সেই লক্ষ্য আবার ৮.২ ওভারে টপকেও যায় ইংলিশরা। যদিও চারটি উইকেট হারাতে হয়েছে। এখানেই অবশ্য সুযোগ দেখছেন বাংলাদেশের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওরা ৫৫ রান তাড়া করতে নেমে ৪ উইকেট হারিয়েছে। মঈন রানআউট হয়েছিল। কিন্তু বাকি ব্যাটসম্যানরা আগ্রাসী খেলাটা খেলতে গিয়ে আউট হয়েছে। আমরা যদি আমাদের দিনে ভালো খেলি, তাহলে ওরাই আমাদের জেতার বা ম্যাচে কিছু একটা করার সুযোগ করে দেবে। যদি ওই সুযোগগুলো নিই, তাহলে ফল আমাদের পক্ষে আসবে।’

তাহলে কী জয়ের আশা করছে বাংলাদেশ? এমন প্রশ্নে শুনে বিরক্তই হলেন ওটিস গিবসন, ‘জেতা সম্ভব কিনা এই প্রশ্নটাই বলবো অদ্ভুত। আমরা যেকোন দলকে হারাতে পারি। নিজেদের ভেতরে এই বিশ্বাস নিয়েই বিশ্বকাপে এসেছি। বাছাইপর্বে কঠিন সময় গিয়েছে, সেখানে স্নায়ুচাপও ছিল। মূল পর্বে আমরা দলের সংখ্যা বাড়াতে আসিনি। নিজেদের দিনে আমরা যেকোন দলকে হারাতে পারি।'

বাংলাদেশের জয়ের স্বপ্নের পথে কিছু ইতিবাচক দিকও রয়েছে। আবুধাবির পিচ অনেকটাই মিরপুরের মতো ধীর গতির। ওখানে স্পিনারদের আধিপত্যটাই বেশি থাকে। আইপিএলসহ বিশ্বকাপের বেশকিছু ম্যাচে এমনটাই দেখা গেছে। ফলে আবুধাবির পিচ স্পিনারদের অনুকূলে থাকায় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দেখায় অসাধারণ কিছু করার সুযোগ থাকছে বাংলাদেশের। কেননা ঐতিহাসিকভাবেই এশিয়ার উইকেটে স্পিনে দুর্বলতা আছে ইংল্যান্ডের। সেই সত্যটা স্বীকার করলেন ইংলিশ উইকেটকিপার জস বাটলারও। সংবাদ সম্মেলনে তিনি সেই ভয়ের কথাই শুনিয়ে গেলেন, ‘সাধারণত তারা (বাংলাদেশ) স্পিন-নির্ভর দল। অনেক অভিজ্ঞ ফিঙ্গার স্পিনার আছে, যাদের মধ্যে সাকিব আল হাসান সারা দুনিয়া জুড়ে অসংখ্য টি-টোয়েন্টি খেলেছে।’

মানসিক অবসাদ থেকে মুক্তি পেতে ক্রিকেট থেকে নিজেই সরে গেছেন বেন স্টোকস। ঠিক টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে চোটে ছিটকে গেছেন স্যাম কারান। চোটের কারণে জোফরা আর্চারও এবারের আসরে খেলছেন না। আরেক ফাস্ট বোলার মার্ক উড দলে থাকলেও চোটের কারণে বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে আজ খেলবেন না। এগুলোও হতে পারে বাংলাদেশের জন্য ইতিবাচক দিক!

তবে ইংলিশদের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ইনজুরি হানা দিয়েছে বাংলাদেশ শিবিরে। তাতে দুশ্চিন্তা বেড়েছে দলে। অনুশীলনে ব্যথা পেয়ে আজকের ম্যাচে অনিশ্চিত নুরুল হাসান সোহান। অন্যদিকে পিঠের পুরনো ইনজুরিতে টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে গেছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন। ফলে ইংলিশদের বিপক্ষে দুটি পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামতে পারে বাংলাদেশ দল।

টানা ব্যর্থতার বৃত্তে ঘুরপাক খাওয়া ওপেনার লিটনের ওপর আজও ভরসা রাখছে টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে শেষ মুহূর্তে লিটনকে বিশ্রামে পাঠালে সৌম্য ফিরতে পারেন একাদশে। এদিকে সাইফউদ্দিন ছিটকে যাওয়াতে রুবেলের একাদশে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া সোহানের বদলে শামীম হোসেনকে দেখা যেতে পারে।

এদিকে ভাগ্য বদলের মিশনে আগের দিন অনেকক্ষণ ফিল্ডিং অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ। গ্রাউন্ড ফিল্ডিং-হাই ক্যাচিংয়ে নিজেদের ঝালিয়ে ব্যাটিং-বোলিংয়ে মনোযোগ দেন ক্রিকেটাররা। যাতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে করা ভুলগুলো যেকোন মূল্যে শুধরে ইংলিশদের মুখোমুখি হতে পারেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন