বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

সারা বাংলার খবর

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো.ফরিদুল হক খান

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ অক্টোবর, ২০২১, ৮:২৩ পিএম

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান বলেছেন, জনপ্রতিনিধি প্রশাসন ও জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করে যেতে হবে। প্রতিমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আন্তঃ ধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, যারা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হাঙ্গামা সৃষ্টি করে জানমালের ক্ষতি করে তারা মানুষ নয়, তারা পশুর চেয়ে নিকৃষ্ট। তাদের কোন ধর্ম নেই, তাদের কোন দল নেই। তারা দেশ ও জনগণের শত্রু। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি দুর্গাপূজার সময় দুষ্কৃতিকারীদের দ্বারা কুমিল্লায় পূজা মন্ডপে পবিত্র কোরআন রাখার ঘটনাকে কেন্দ্র করে যারা দেশের কয়েকটি স্থানে হিন্দু সম্প্রদায়ের পূজা মন্ডপ, মন্দির কিংবা বাড়ি-ঘরে,অগ্নি সংযোগ করেছে, সে সব দুষ্কৃতিকারীদের অনেককেই ইতোমধ্যে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। দায়ী ব্যক্তিদের অবশ্যই দৃষ্টান্তমূলক বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, যারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে চায়, তারাই দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির পরিবেশ নষ্ট করতে দাঙ্গা হাঙ্গামার সৃষ্টি করেছে। কিন্তু সরকার ইতিমধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। ভবিষ্যতে কোন অশুভ শক্তি যেন দেশে এধরণের বিশৃঙ্খল অবস্থা তৈরি না পারে, এ বিষয়ে সবাইকে সোচ্চার হয়ে কাজ করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের পরাজিত শক্তি, দেশে জুড়ে বোমা হামলাকারী উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তি বিভিন্ন সময়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে সুযোগ নিতে চায়। আগামী দিনে এদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে জনপ্রতিনিধি, প্রশাসন ও জনগণকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, জাতির পিতার নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বাংলাদেশ আমাদের সকলের। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ আমাদের সাংবিধানিক ভিত্তি। অশুভ চক্র যেন কোনভাবেই আর সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে এ বিষয়ে সমাজের সকলকে সজাগ থাকতে হবে।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংলাপে আরও বক্তব্য রাখেন, কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ. ক. ম বাহাউদ্দীন, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মনোরঞ্জনশীল গোপাল এমপি, ট্রাস্টি ডা. প্রাণ গোপাল দত্ত এমপি, ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত পাল, ট্রাস্টি অংকুর জিত নব সাহা, পুলিশ সুপার ফারুক আহাম্মেদ, কুমিল্লা ইমাম সমিতির সভাপতি, কুমিল্লা মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শিব প্রাসাদ রায়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সংস্থা ও আইন) মুনীম হাসান, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব ডা. দিলীপ, কুমিল্লার ইসলামিক ফাউন্ডেশন উপপরিচালক সারোয়ার আলম, কুমিল্লা জেলার ওলামা মাশায়েখ প্রতিনিধিবৃন্দ, বিভিন্ন মন্দির কমিটি ও পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ, জেলার বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার নেতৃবৃন্দ, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের পরিষদের প্রতিনিধিবৃন্দ।

এর আগে সকালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী কুমিল্লা নানুয়াদিঘীর উত্তরপাড়ে সহিসংতায় ক্ষতিগ্রস্ত অস্থায়ী পূজামন্ডপের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং সাংবাদিকদের সংক্ষিপ্ত ব্রিফিং করেন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এ সময় সাংবাদিকদের বলেন, কুমিল্লায় ইচ্ছাকৃত ও পরিকল্পিতভাবে এ কাজটি করেছে। দায়ী ব্যক্তিগণ যে দলেরই হোক না কেন তাকে কোন অবস্থাতেই ছাড় দেয়া হবে না। প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, অপরাধ যেই করুক, তাকে শাস্তি পেতেই হবে। এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি বন্ধে প্রশাসন, জনপ্রতিনিধিসহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এরপর প্রতিমন্ত্রী শারদীয় দুর্গাপূজায় ক্ষতিগ্রস্ত নগরীর কাপারিয়াপট্টির চাঁন্দ রক্ষাকালি মন্দির পরর্দিশন করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ABU ABDULLAH ২৯ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৭ এএম says : 0
বাংলাদেশের কোনো মন্ত্রী যেন হিন্দুস্থান না যায় যেখানে মুসলমানদের ধরে ধরে হত্যা করা হচ্ছে পাশবিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে যে নির্যাতনে আল্লাহর আরশ কাঁপছে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন