সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ৩০ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ভক্তদের শান্ত থাকার অনুরোধ রশিদ খানের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৩ এএম | আপডেট : ১:০৩ এএম, ২৯ অক্টোবর, ২০২১

২০১৯ বিশ্বকাপে পাকিস্তান-আফগানিস্তান ম্যাচে মাঠেই মারামারিতে লিপ্ত হয়েছিলেন ভক্ত-সমর্থকরা। লন্ডনের লিডসের হেডিংলি স্টেডিয়ামের ওই ম্যাচে দুই পক্ষের সমর্থকদের নিয়ন্ত্রণে রীতিমতো হিমশিম খেয়েছিল নিরাপত্তাকর্মীরা। তবে দুই প্রতিবেশী দেশের ক্রিকেট ম্যাচকে ঘিরে আর কোন সংঘাত চান না আফগানিস্তানের তারকা ক্রিকেটার রশিদ খান।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) সুপার টুয়েলভের ম্যাচে আবারও মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। ওই ম্যাচকে কেন্দ্র করে নিজ দেশের ভক্ত-সমর্থকদের শান্ত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন রশিদ খান।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন উত্তর পর্বে এ অনুরোধ জানান তিনি। রশিদ খান বলেন, ‘খেলাকে খেলা হিসেবেই দেখা উচিত। আমি মনে করি, এটা সকল ভক্তদের বোঝা উচিত এবং খেলাটি উপভোগ করার জন্য অনুরোধ করবো।’

২০১৯ সালের ওই ঘটনায় হট্টগোল মাঠের বাইরে চলে যায়। মাঠ সংলগ্ন রাস্তার লোহার ব্যারিয়ার দিয়েও মারামারি করে দুইদলের সমর্থকরা। আইসিসির আয়োজিত টুর্নামেন্টে যা অনেক বছরে এমনটি দেখা যায়নি।

এদিকে, চলমান বিশ্বকাপে ভারগ-পাকিস্তানের ম্যাচ নিয়ে দুই দলের ভক্ত-সমর্থকদের মাঝে চলছে উত্তেজক কথাবার্ত। নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। বাবর আজমদের কাছে হেরে যাওয়ায় পুরো ভারতজুড়ে চলছে বিরাট কোহলিদের সমালোচনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় পাকিস্তানকে সমর্থক করে ভারতের সমালোচনা করায় মামলা এবং গ্রেফতারের ঘটনাও ঘটেছে।

রশিদ খানকে ২০১৯ সালের ঘটনা স্মরণ করিয়ে দিলে তিনি বলেন, ‘আমরা যত বেশি উপভোগের দিকে মনোনিবেশ করি। ২০১৯ বিশ্বকাপের পর এমনটা হওয়া উচিত হয়নি। সব ভক্তদের কাছে অনুরোধ, শেষ পর্যন্ত যা কিছুই আসে (জয়-পরাজয়) না কেন, কোন ধরনের দুর্ঘটনা যেন না হয়। দিন শেষে এ খেলাটি জাতিকে অনেক ঐক্যবদ্ধ করে জাতিকে একত্রিত করে। তাই আমি আশা করি, সকলে শান্ত ও শান্ত থাকবে। সবাই শুধু খেলাটি উপভোগ করার দিকে মনোনিবেশ করবে।’

রশিদ-নবিরা বিশ্বকাপে খেললেও তাদের খেলা নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। দীর্ঘদিন পর দেশটিতে তালেবান শাসন আসায় মেয়েদের খেলা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শঙ্কা ছিল ছেলেদের খেলা নিয়েও। তবে সবকিছু ছাপিয়ে বিশ্ব আসলে খেলছে আফগানিস্তান। নিজ দেশে পরিস্থিতি নিয়ে রশিদ খান বলেন, ‘পরিস্থিতি ভালো হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবে বাড়ি ফিরে আসা এবং আশা করি, আমরা ভবিষ্যতে আরও ভালো কিছু দেখবো। আমরা একটি দল হিসেবে ভালো ক্রিকেট খেলতে এখানে (বিশ্বকাপ) এসেছি। একটি দল হিসেবে আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে এবং আমি আশা করি, সময়ের সাথে সাথে পরিস্থিতি আরও ভালো হবে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন