বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

গ্লাসগো ব্যর্থ হলে সব ব্যর্থ হবে : বরিস জনসন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ নভেম্বর, ২০২১, ২:০৪ পিএম

বিশ্ব নেতাদের কার্বন নিঃসরণ কমানোর প্রতিশ্রুতির আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। স্কটিশ শহর গ্লাসগোতে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলনে উপস্থিত নেতাদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেছেন, তা না হলে বৈশ্বিক উষ্ণতা নিরসনের যাবতীয় প্রচেষ্টা ব্যর্থ হবে।

গতকাল রোববার জি-২০ সম্মেলনে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন যদি গ্লাসগো ব্যর্থ হয় তাহলে পুরোটাই ব্যর্থ হবে।
বরিস জনসন জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের ব্যর্থতা এড়াতে বিশ্ব নেতাদের কপ-২৬ এ বাস্তব পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

এদিকে যুক্তরাজ্যের স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহরে শুরু হওয়া কপ-২৬ সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এবারের প্রেসিডেন্ট অলোক শর্মা বলেন, বিশ্বের উষ্ণতা ১ দশমিক ৫ ডিগ্রিতে রাখতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে আমরা এক মত হতে পারব।

এদিকে, রবিবার সকালে স্কটল্যান্ডের সবচেয়ে বড় শহর গ্লাসগোতে দুই সপ্তাহের সম্মেলন উদ্বোধন করেন কপ২৬ প্রেসিডেন্ট অলোক শর্মা। সেখানে তিনি বলেন, ওই লক্ষ্যমাত্রা বাঁচিয়ে রাখার ‘সর্বশেষ, সবচেয়ে ভালো প্রত্যাশা হলো’ আলোচনা।

২০১৫ সালের প্যারিস চুক্তিতে দেশগুলো বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি প্রাক শিল্প যুগের চেয়ে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে এবং সম্ভব হলে ১.৫ ডিগ্রিতে সীমিত রাখতে সম্মত হয়। সেই প্রতিশ্রুতির প্রতিধ্বনি করেন বরিস জনসন।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সরকার ২০৫০ সাল নাগাদ যুক্তরাজ্যের কার্বন নিঃসরণের পরিমাণ শুন্যে নামিয়ে আনার প্রতিশ্রতি দিয়েছে। আরও বেশ কিছু দেশ কার্বন নিঃসরণ কমানোর পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে। তবে সেসবও পর্যাপ্ত নয় বলে জানান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

বরিস জনসন বলেন, ‘আমরা যদি কপ২৬ কে ব্যর্থ হওয়া থেকে ঠেকাতে চাই তাহলে সেগুলো অবশ্যই বদলাতে হবে।’ তা না হলে প্যারিস চুক্তি কেবল একটি কাগজের টুকরায় পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি। সূত্র : বিবিসি

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন