মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

আওয়ামী লীগ নেতা-মন্ত্রীরা পালানোর আগে ফাইল গায়েব করছে

মানববন্ধনে রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

আওয়ামী লীগের নেতা-মন্ত্রীরা দেশ ছেড়ে পালাতে চাচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, পালানোর আগে কোন ডকুমেন্ট যাতে না থাকে এজন্য ফাইল গায়েব করে দেয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ১৭ ফাইল খোয়া যাওয়ার ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, এটা কারো বুঝতে বাকী আছে কেনো ১৭টা ফাইল গায়েব হলো? আমার কিন্তু মনে হচ্ছে, এটা মন্ত্রীর নির্দেশেই গায়েব করা হয়েছে। মানে সামনে কোন পরিস্থিতি হয়, আবার এই ফাইলগুলো থেকে কত টাকা কত পারসেন্টেজ দেয়া হয়েছে তার যদি কোনো ডকুমেন্ট থেকে থাকে এই কারণে এই ফাইলগুলো হাওয়া করে দেয়া হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীতাবাদী তাঁতী দলের উদ্যোগে দ্রব্যমূল্যের উধর্বগতি ও তাঁত শিল্পে ব্যবহৃত সুতা, রং ও কেমিক্যালের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।
স্থানীয় সরকারের অর্থ লুটপাট করতেই ক্ষমতাসীনরা একতরফা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন করছে বলে অভিযোগ করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ইউপি নির্বাচন হচ্ছে নিজেরা নিজেরাই করে যাচ্ছে মারামারি করে, হানাহানি করে। এরা জানে যে, আওয়ামী লীগ থেকে যে নমিনেশন পাবে সেই তো পাস। প্রতিদ্বন্দ্বিতার দরকার নেই, নির্বাচনের দরকার নেই। তাই যেভাবে হোক ওই সোনার হরিণ আমাকে চেয়ারম্যান হতে হবে।

তিনি বলেন, চেয়ারম্যান হলে পরেই তো লাখ লাখ টাকা, কোটি কোটি টাকা তার সিন্দুকে ঢুকে যাবে। সুতরাং ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগের একটা টিকেট দরকার। কারণ যেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা নেই সেখানে তো লুটপাট, আত্মসাতের এক বিরাট সুযোগ। সেজন্য আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতারা নিজেরা নিজেরা রক্তারক্তি করছেন আওয়ামী লীগের একটি টিকেট পাওয়ার জন্য। এই হচ্ছে দেশের নির্বাচনের পরিস্থিতি।

বিএনপির এই নেতা বলেন, শ্রমিক কল্যাণ ফান্ড নয়-ছয় হয়েছে, তসরুফ হয়েছে। শ্রমিক কল্যাণ ফান্ডের তহবিল নয়-ছয় কি করে হলো? আজকের এই তাঁতী দলের মানববন্ধন থেকে আমরা দাবি করছি, এই শ্রমিক কল্যাণ তহবিলের অর্থ আত্মসাত হওয়া, নয়-ছয় হওয়া, তসরুফ হওয়া এজন্য শ্বেতপত্র প্রকাশ করতে হবে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, এই সরকারের আমলে তাঁত শিল্প আজকে ধ্বংস হওয়ার পথে। সূতা, রংসহ বিভিন্ন জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে কয়েকগুণ। আজকে সিরাজগঞ্জ, কুমারখালী, নরসিংদী, টাঙ্গাইলসহ বিভিন্ন জায়গায় তাঁতীরা যুগের পর যুগ ধরে এদেশের মানুষের বস্ত্রের যোগান দিয়েছে তারা আজকে নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথে। যারা গণবিরোধী সরকার তারা জনকল্যাণে কিছু করে না। যদি করতোই তাহলে আমাদের তাঁত শিল্প এভাবে ধবংস হয়ে যেতো না।

জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, হুমায়ুন ইসলাম খান, আবদুস সালাম আজাদসহ তাঁতী দলের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন