মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আগামি ৭দিনের মধ্য বাকী আসামিদের গ্রেপ্তারের দাবি কাপ্তাইয়ে ইউপি সদস্য সজিব হত্যার বিচার চেয়ে সর্বস্থরের লোকজনের মানববন্ধন

কাপ্তাই (রাঙামাটি) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ নভেম্বর, ২০২১, ৫:৩৩ পিএম

ইউপি সদস্য সজিবুর রহমানের হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে কাপ্তাইয়ের সর্বস্তরের জনগণ। বুধবার(৩নভেম্বর) বিকাল ৩টায় কাপ্তাই নতুনবাজার সড়কের দু'পাশে শত'শত মহিলা পুরুষ দেড় ঘন্টা দাঁড়িয়ে ইউপি সদস্য হত্যাকারীর বিচার দাবি করছে। এবং খুনিদের আগামি ৭দিনে মধ্য গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। বেলা তিনটা না বাজতেই এলাকার শত,শত,নারী, পুরুষ,আবাল,বৃদ্বা ও শিশুরাও জনপ্রিয় সজিব হত্যাকারীর খুনিদের ফাঁসি চেয়ে সড়কের দু'পাশে লাইনে দাঁড়িয়ে মানববন্ধন করেছে। ইউপি সদস্য সজিবুর রহমানের হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য ও কাপ্তাই উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী, কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি এম নুরু উদ্দীন সুমন, কাপ্তাই নতুন বাজার বণিক কল্যান সমিতির সাধারন সম্পাদক একরামুল হক,কাপ্তাই উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হোসেন ও নিহত সজিবুর রহমানের বড় মেয়ে নুসরাত জাহান প্রমুখ। বক্তরা বলেন এলাকার একদল চিহ্নিত মাদক কারবারি,এবং বহু মামলা হামলার আসামি

নয়দিনপূর্বে (২৬অক্টোবর) ৪নম্বর ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ডের জনপ্রিয় ইউপি সদস্য সজিবুর রহমান সজিবকে রাত ১১টায় নিঃসংশ ভাবে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এ হত্যা প্রশাসন এরিয়ে যেতে পারেনা।এবং ঘটনাটি প্রশাসনের সামনেই ঘটেছে বলে বক্তারা উল্লেখ করেন। আগামি ৭দিনের মধ্য হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার জন্য আইন প্রয়োগকারীর প্রতি দাবি জানানো হয়।নিহত সজিবুর রহমান সজিব রাঙামাটি জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য ও কাপ্তাই উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য ছিলো। হত্যা জড়িত ৩২জনের বিরুদ্বে কাপ্তাই থানায় একটি মামলা করেছে নিহতের বোন দুধ নাহার বেগম। ইতি মধ্য কাপ্তাই থানা ৮জনকে আটক করে রাঙামাটি আদালতে চালান করা হয়েছে। অন্যান্য আসামিরা পলাতক রয়েছে। মানববন্ধনে সর্বস্থরের লোকজন জড়িত হয়ে এ হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি জানান। নিয়ে এলাকার সর্বস্থরের জনগনের মাঝে প্রচন্ড ক্ষোভ ও চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন