বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মাদারীপুরে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ: শতাধিক বোমা বিস্ফোরণ

মাদারীপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ নভেম্বর, ২০২১, ৭:১৮ পিএম | আপডেট : ৭:২০ পিএম, ১১ নভেম্বর, ২০২১

মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার সাহেবরামপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩নং ওর্য়াডের আন্ডারচর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। এতে ব্যাপক বোমা বিস্ফোরণ, গোলাগুলি ও কেন্দ্র দখলের ঘটনা ঘটে। পরে সাময়িকভাবে ভোটগ্রহণ স্থগিত হয়ে সকাল ১১টার দিকে পুনরায় ভোটগ্রহণ হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সকাল ১০টার দিকে সাহেবরামপুর ইউনিয়নের আন্ডারচর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ¯^তন্ত্র প্রার্থী মুরাদ সর্দার আসলে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুল আহসান সেলিমে আসলে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজন অন্তত দুই শতাধিক বোমা বিস্ফোরণ করে ভোটরদের ছত্র ভঙ্গ করে দেয়। পরে পুলিশ ও স্টাইকিং র্ফোস, র‌্যাব ও বিজিবি এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ সময় সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সকাল ১১টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ সাময়িক স্থগিত করা হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্যে অন্তত ২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করেন। এছাড়া আলীনগর ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে চেয়ারম্যান দুই প্রার্থীর সমর্থকদের হাতাহাতি হয়।


মাদারীপুর জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, রমজানপুর ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় বাকি ১২ টি ইউরিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪৬ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৩৭৫ জন। এছাড়া মোট সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১২৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। এ নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন ১ লাখ ৬৯ হাজার ৬৩৪ জন ভোটার। এর মধ্যে নারী ভোটার ৮২ হাজার ১৪৩ জন ও পুরুষ ভোটার ৮৭ হাজার ৪৯০ জন ভোটার।


এব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার চাইলাউ মারমা বলেন, ‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্তায় আনতে অন্তত ২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করতে হয়েছে। জেলা পুলিশ ছাড়াও র‌্যাব, বিজিবি সদস্যদের সহযোগিতায় প্রতিটি কেন্দ্রে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। কেন্দ্রের ভিতরে কাউকে আসতে দেয়া হয়নি। বাহিরে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে।’
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আধা ঘন্টার জন্য সাময়িক ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। সাহেবরাপুর ছাড়াও আরো ১২টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন