শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ০৭ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পশ্চিমা ষড়যন্ত্র এবং বানোয়াট খবরের ফল হলো সিরিয়া যুদ্ধ

সিরীয় শরণার্থীদের দেশে ফিরে আসার আহ্বান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০৪ এএম

সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল আল-মিকদাদ জোরালো ভাষায় বলেছেন, পশ্চিমা ষড়যন্ত্র এবং তাদের গণমাধ্যমের মিথ্যা তথ্য ও বানোয়াট খবরের ফল হচ্ছে সিরিয়ার যুদ্ধ। পশ্চিমাদের এই ভূমিকার কারণে মধ্যপ্রাচ্যের ভূ-রাজনৈতিক অবস্থানে মারাত্মক ধরনের পরিবর্তন এসেছে। সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে শরণার্থীদের ফিরিয়ে আনার বিষয়ে একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনের ডায়ালগ সেশনে এসব কথা বলেছেন ফয়সাল মিকদাদ। এই সেশনে অংশ নেন রাশিয়া ও সিরিয়ার সরকারি কর্মকর্তা এবং আরব ও পশ্চিমা জগতের বহু খ্যাতিমান সাংবাদিক, লেখক এবং বুদ্ধিজীবী। ডায়ালগ সেশনে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের গণমাধ্যম বিষয়ক উপদেষ্টা বুসাইনা শাবান বলেন, তার দেশের বিরুদ্ধে সামরিক আগ্রাসরে পাশাপাশি গণমাধ্যমের যুদ্ধ পরিচালনা করা হয়েছে যাতে বিপুল অঙ্কের আর্থিক সমর্থন জুগিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো। তারা সারা বিশ্বের কাছে সিরিয়ার ঘটনাকে গৃহযুদ্ধ বলে মিথ্যা ও বিভ্রান্তি ছড়ানোর ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছে। পশ্চিমাদের এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে মিত্রদেশগুলোর ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা শুরু করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন বুসাইনা শাবান। সিরিয়া বিষয়ক রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিশেষ প্রতিনিধি বলেন, সিরিয়া সম্পর্কে পশ্চিমা গণমাধ্যমে যে মিথ্যা প্রচারাভিযান চলছে তা মোকাবেলায় তার দেশ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে প্রকৃত সত্য তুলে ধরার চেষ্টা করছে। একইসাথে সিরিয়ার ইদলিব এবং পূর্বাঞ্চল থেকে দায়েশসহ সমস্ত উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে নির্মূলে তার দেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেও তিনি উল্লেখ করেন। ডায়লগ সেশনে সিরিয়ার তথ্যমন্ত্রী বলেন, সিরিয়ার ঘটনাবলীতে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো মারাত্মকভাবে নেতিবাচক ভূমিকা পালন করেছে যার কারণে দেশে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে এবং সিরিয়া সরকারের বিরুদ্ধে জনমতকে প্রভাবিত করা সম্ভব হয়েছে। শরণার্থীদের দেশে ফিরে আসতে বলল সিরিয়া। নিজেদের বাড়িঘর ছেড়ে বিভিন্ন দেশে শরণার্থী হিসেবে বসবাস করা সিরিয়ার নাগরিকদের ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। শরণার্থীদের ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে মঙ্গলবার রাশিয়া এবং সিরিয়ার মন্ত্রী পর্যায়ের একটি সম্মেলন রাজধানী দামেস্কে অনুষ্ঠিত হয়েছে। খবর সানার। দামেস্কে অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে জাতিসংঘ, আন্তর্জাতিক রেডক্রস কমিটি এবং অন্যান্য জনকল্যাণমূলক সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সম্মেলনে অংশগ্রহণকারীরা শরণার্থীদের নিরাপদ, মর্যাদাপূর্ণ ও স্বেচ্ছায় নিজেদের ঘরবাড়িতে ফিরে আসার জন্য গৃহীত ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করেন। পাশাপাশি যুদ্ধবিধ্বস্ত আরব দেশটিতে শান্তি পুনঃপ্রতিষ্ঠার বিষয় নিয়েও আলোচনা করা হয়। সিরিয়ার স্থানীয় প্রশাসন এবং পরিবেশ বিষয়কমন্ত্রী হোসেইন মাখলুফ বলেন, গতব ছর সিরিয়ার শরণার্থীদের ফিরিয়ে আনার বিষয়ে যে আন্তর্জাতিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল তার ধারাবাহিকতায় সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশনা অনুসারে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো। তিনি বলেন, মিত্রদের সহযোগিতায় এবং সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় প্রচেষ্টায় লাখ লাখ শরণার্থী তাদের ঘরবাড়িতে ফিরে এসেছেন। এ জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। মন্ত্রী মাখলুফ বলেন, ফিরে আসা শরণার্থীদের জন্য সিরিয়ার সরকার সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে এবং সন্ত্রাসীদের কবল থেকে মুক্ত হওয়া স্থানগুলোতে ফিরে আসা লোকজনকে পুনর্বাসিত করার চেষ্টা করছে। সানা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন