ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনায় ওবামা

প্রকাশের সময় : ২০ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিতর্কের আগে জরিপে ৯ পয়েন্ট এগিয়ে হিলারি
ইনকিলাব ডেস্ক : প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার বিরুদ্ধে কারচুপি হতে পারে, রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে তাকে ‘ঘ্যান ঘ্যান’ বন্ধ করে ভোট পাওয়ার দিকে মনোযোগ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। গত মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে যুক্তরাষ্ট্র সফররত ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেয় রেনজির সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পের অভিযোগ নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবামা এসব কথা বলেন। এদিকে গতকাল (বুধবার) যুক্তরাষ্ট্র সময় রাত ৯টায় তৃতীয় ও সর্বশেষ বিতর্ক শুরুর আগে এক জরিপে ট্রাম্পের চেয়ে হিলারি ক্লিনটন ৯ পয়েন্ট এগিয়ে ছিলেন বলে জানিয়েছে সিএনএন। হিলারির সমর্থন ৪৭ শতাংশ এবং ট্রাম্পের ৩৮ শতাংশ ছিল।
আসছে ৮ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এই নির্বাচনে তাকে হারাতে কারচুপি করা হতে পারে বলে সম্প্রতি বেশ কয়েকবার অভিযোগ করেছেন ট্রাম্প। নির্বাচনী জরিপের ফলাফলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ডেমোক্রেটিক পার্টির হিলারি ক্লিনটনের চেয়ে ক্রমেই পিছিয়ে পড়ছেন, এমন চিত্র প্রকাশ পাওয়ার পর ট্রাম্প তার অভিযোগের মাত্রা আরো বাড়িয়ে তুলেছেন। যদিও বিভিন্ন গবেষণা থেকে দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচনে কারচুপি বিরল ঘটনা। সর্বশেষ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলোরাডোর গ্রান্ড জাংশনে এক নির্বাচনী প্রচারণা সমাবেশে ট্রাম্প বলেছেন, “সংবাদপত্রগুলো কারচুপির একটি ছক তৈরি করেছে আর ভোটারদের মন বিষিয়ে তুলছে।”
এর জবাবে রিপাবলিকান প্রার্থীকে তীব্র আক্রমণ করেন ওবামা। তিনি উল্লেখ করেন, স্থানীয় কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ করেন, এসব কর্মকর্তাদের অঙ্গরাজ্যগুলোর রিপাবলিকান গভর্নরাও নিয়োগ দিতে পারেন, আর যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে উল্লেখযোগ্য কোনো কারচুপির ঘটনা ঘটেনি। যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে কারচুপি করা সম্ভব, কোনো ‘সচেতন’ ব্যক্তি কখনো এমন অভিযোগ করেননি বলে দাবি করেন ওবামা। তিনি বলেন, “আমি জনাব ট্রাম্পকে ঘ্যান ঘ্যান বন্ধ করার আমন্ত্রণ জানিয়ে ভোট পাওয়ার দিকে মনোযোগ দেয়ার পরামর্শ দিচ্ছি।”
অপরদিকে গ্রান্ড জাংশনের সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, “অসৎ হিলারির পক্ষে প্রচারণা বন্ধ করে ওবামার উচিত কর্ম সংস্থান বৃদ্ধির জন্য কাজ করা ও সীমান্তের দিকে নজর দেয়া।” কয়েক সপ্তাহ ধরে ট্রাম্প এমন অবৈধ তৎপরতার অভিযোগ করে আসছেন, যার কারণে নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। অভিযোগের পক্ষে তিনি অপ্রতুল ও সন্দেহজনক প্রমাণ হাজির করেছেন। এসবের মধ্যে মৃত ব্যক্তিদের নামে ভোট দেয়া হতে পারে বলে তোলা অভিযোগ অন্যতম। নির্বাচনের দিন ভোট কেন্দ্রে নিজের সমর্থকদের উপস্থিত থেকে নিজেদের জানান দিতে বলেছেন তিনি। অভিযোগের মাত্রা তীব্র করলেও তার অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে মন্তব্য করেছেন রিপাবলিকান আইনজীবীরা। সূত্র : বিবিসি, নিউইয়র্ক টাইমস, সিএনএন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন