শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

‘নৌকায় ভোট না দিলে কেন্দ্রে যাওয়ার দরকার নেই’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৫৯ পিএম

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার জহুরপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা দ্বীন মোহাম্মদ দিলু পাটোয়ারীর বিরুদ্ধে নৌকা প্রতীকে ভোট না দিলে নানা ধরনের ভয়-ভীতি ও হুমকি-ধামকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে এ ইউনিয়নের উত্তর চাঁদপুরে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর নির্বাচনী সভায় আতঙ্ক ছড়ানো এমন বক্তব্য দেন তিনি। তার এ বক্তব্যটি সে সময় ফেসবুকে লাইভ করা হয়।

সভায় দিলু পাটোয়ারী বলেন, 'কতিপয় বিএনপি-জামায়াত নেতা-কর্মীরা বলছে ওমুক মার্কায় ভোট দেবো। তারা ভোট দেওয়ার সুযোগ পাবে না। এমন জায়গায় চুলকানি দেবো কাউকে দেখাতে পারবে না, হাসপাতালেও চিকিৎসা হবে না। পুলিশের কাছে গিয়েও কাজ হবে না।' তিনি বলেন, 'নৌকার প্রার্থী আসাদুজ্জামান মিন্টু চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন। বিএনপি-জামায়াতের প্রধান বলেছেন, তারা নির্বাচনে যাবেন না। তাহলে আপনারা কেন চুলকো-চুলকি করছেন। আমরা কী করতে পারি আপনারা জানেন। ২০১৬ সালে দেখাইছি। আমি চাই না জহুরপুরের কারও ক্ষতি হোক। তাই নৌকার বাইরে যারা ভোট দিতে চান, তাদের ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার দরকার নেই। বাড়ি ঘুমান, ভালো থাকবেন। ভোট দিতে গেলে অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যাবে। ইতিহাসের সাক্ষী হয়েন না।'

দিলু পাটোয়ারী আরও বলেন, 'মাস্টার মনিরুল সাহেব বলেছেন, উত্তর চাঁদপুরে নৌকার মিটিং করা যাবে না। নৌকার মিটিং বন্ধ করতে চাইলে পাছার চামড়া থাকবে না। নকশাল সর্বহারাদের আমি গুনি না। বুড়ো বান্দরদের আপনারা ২৮ তারিখে জবাব দেবেন।' তিনি বলেন, 'নির্বাচন নিয়ে খেলতে আইসেন না, এমন খেলা খেলে দিবানে যে বাড়ি ঘুমাতে পারবেন না। ২৭ তারিখ ব্যাপক ভাঙচুর হবে। ২৮ তারিখের পর ২৯ তারিখেও ভাঙচুর হবে। দিলূ পাটোয়ারী দাবি করেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচন খুব শিগগির হবে। হয়তো এক বছর আগেই ভোট হয়ে যেতে পারে, আমার কাছে মেসেজ আছে। বিএনপি-জামায়াতের যারা আমাদের সঙ্গে আছেন, নৌকায় ভোট দেবেন, ভালো কথা, কিন্তু অন্য জায়গায় ভোট দেওয়ার চিন্তা করলে একেক জনের নামে ১০টা করে মামলা হবে।

তিনি বলেন, 'আমি শুনছি, ওমুক বাড়িতে ৫০টি রামদা এসেছে। রামদা দিয়ে কী করবে, কোথায় লুকাবে? রামদা উল্টো পাছার মধ্যে দিয়ে দেবো। রামদা অস্ত্রের ভয় দেখান, ওর কারখানা বহু আগেই করে রেখেছি।' এদিকে নিজের বক্তব্য সম্পর্কে পরে দিলু পাটোয়ারী বলেছেন, ভয়-ভীতি নয়, বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়া যেহেতু নির্বাচন বর্জন করেছেন, তাই তিনি বিএনপি নেতা-কর্মীদের নির্বাচনে আসতে নিরুৎসাহিত করেছেন।

উল্লেখ্য, তৃতীয় দফার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগামী ২৮ নভেম্বর বাঘারপাড়ার ৯টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। গত ১৮ নভেম্বর জহুরপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী বদর উদ্দিন মোল্লা যশোর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগ করেন, নৌকার প্রার্থী আসাদুজ্জামান মিন্টু ও তার লোকজন নানা রকম হুমকি ধামকি ও ভয়-ভীতি প্রদর্শন করছে। নৌকার প্রার্থী আসাদুজ্জামান মিন্টুর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন এ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান দিলু পাটোয়ারী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ২০ নভেম্বর, ২০২১, ১০:০৮ পিএম says : 0
O'Allah wipe out these criminals from our beloved country;; they have destroyed our country.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন