শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নারীদের জন্য জারি করা ধর্মীয় নির্দেশিকা মানা বাধ্যমূলক নয়: তালেবান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ নভেম্বর, ২০২১, ৬:২৫ পিএম

আফগানিস্তানে তালেবান সরকার টেলিভিশনের সম্প্রচারের জন্য ধর্মীয় নির্দেশিকা জারি করেছে। নির্দেশিকায় নাটকে নারীদের উপস্থিতি বন্ধ করতে বলা হয়েছে। এছাড়া টেলিভিশনের পর্দায় হাজির হবার সময় নারী সাংবাদিক এবং উপস্থাপিকাদেরও হিজাব পরার কথা বলা হয়েছে। তবে এটা বাধ্যতামূলক নয় তালেবান জানিয়েছে।

রোববার তালেবান এই ধর্মীয় নির্দেশিকা জারি করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, টিভি সিরিয়াল বা নাটকে কোনো অভিনেত্রী থাকতে পারবেন না। অভিনেতার উন্মুক্ত কাঁধের ছবিও দেখানো যাবে না। তবে উপস্থাপণার সময় কোন ধরনের হিজাব ব্যবহার করতে হবে সে বিষয়ে ওই নির্দেশিকায় সুনির্দিষ্ট করে কিছু বলা নেই। সাংবাদিকরা বলছেন কিছু নিয়ম অস্পষ্ট এবং ব্যাখ্যার প্রয়োজন রয়েছে। এই নীতিনির্দেশিকা জারি করেছে প্রমোশন অফ ভার্চুয়াল প্রিভেনশন অফ ভাইস মন্ত্রণালয়। নির্দেশিকাতে এটাও বলা হয়েছে, মহানবী(সাঃ)-কে কোনোভাবে চিত্রিত করা যাবে না। মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসলাম বা আফগান মূল্যবোধের বিরোধী কিছু দেখানো যাবে না। মুসলিম নারী সাংবাদিকরা টিভি-র সামনে এলে তাদের অবশ্যই হিজাব পরতে হবে। পুরুষদের শরীরের বিবরণ দেয়া যাবে না, অনাবৃত কাঁধ দেখানো যাবে না। নারীদের কোনো সিরিয়াল বা নাটকে রাখা যাবে না।

যে ধর্মের অবমাননা করা হয়েছে বা আফগানদের জন্য আপত্তিকর বলে বিবেচিত হতে পারে এমন কমেডি এবং বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তালেবানের বক্তব্য, বিদেশি সাংস্কৃতিক মূল্যবোধ প্রচার করে এমন বিদেশি চলচ্চিত্র সম্প্রচার করা উচিৎ নয়। আফগানিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোয় বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বিদেশি নাটক দেখানো হয়। যেগুলোর প্রধান চরিত্রে থাকেন নারী। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সংবাদসংস্থা এএফপি-কে বলেছেন, এটা নিয়ম নয়, ধর্মীয় নির্দেশিকা মাত্র। তালেবানের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এই নির্দেশিকা মানা বাধ্যতামূলক নয়। এগুলো হলো প্রস্তাব। প্রচারের সময় এগুলো মাথায় রাখা উচিত।

গত আগস্টে আফগানিস্তানে তালেবান ক্ষমতায় আসে। কুড়ি বছর আগে আমেরিকার নেতৃত্বাধীন বাহিনী তাদের ক্ষমতাচ্যুত করেছিল। সেসময় তালেবান টিভি, সিনেমা ও অন্য প্রায় সব ধরনের মিডিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। সেসময় শুধু চালু ছিল ‘ভয়েস অফ শরিয়া’ নামে একটি রেডিও চ্যানেল। দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর তালেবান অবশ্য বলেছে যে, তারা এবার মধ্যপন্থা অনুসরণ করবে। আগেরবারের থেকে অনেক বেশি নমনীয় থাকবে। সূত্র: এএফপি, বিবিসি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন