বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বিশ্ববাজারে কমায় তেলের দাম কমাতে হবে

বিবৃতিতে জিএম কাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ নভেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, বিশ^বাজারে তেলের দাম কমতে শুরু করেছে। তাই তেলের দাম কমাতে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে সরকারকে। পাশাপাশি গণপরিবহণের ভাড়া নিয়ে সড়কের নৈরাজ্য কমাতে হবে। এছাড়া ছাত্রদের জন্য হাফ ভাড়া নিশ্চিত করতে হবে। গতকাল এক বিবৃতিতে তিনি এ দাবি জানান।

জিএম কাদের এমপি বলেছেন, সড়কের নৈরাজ্য বন্ধ করতে হবে। সড়কে পরিবহণ শ্রমিকরা যাত্রীদের সাথে যে আচরণ করছে তা মেনে নেয়া যায় না। ডিজেল ও কেরোসিনের দাম বাড়ার অযুহাতে সড়ক পরিবহণ কর্র্তৃপক্ষ বাস ভাড়া যতটুকু বাড়িয়েছে শ্রমিকরা যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করছে তারচেয়েও বেশি। এতে প্রতিদিন বাসে চড়ে গন্তব্যে যেতে হেনস্তা হচ্ছেন সাধারণ যাত্রীরা, প্রতিবাদ করলে সইতে হয় অবর্ননীয় নির্যাতন। আবার ছাত্রদের কাছ থেকে হাফ ভাড়ার পরিবর্তে আদায় করা হচ্ছে পুরো ভাড়াই, ছাত্রী ও নারীদের সাথে অশালীন আচরণ করছে শ্রমিকরা।

জিএম কাদের বলেন, গেলো ৩ নভেম্বর রাত থেকে ডিজেলে ও কোরোসিনের দাম লিটার প্রতি ১৫ টাকা বাড়িয়ে ৮০ টাকা নির্ধারণ করে সরকার। সাথে সাথে বিনা নোটিশে পরিবহণ ধর্মঘটের মাধ্যমে কোটি কোটি যাত্রীকে হয়রানি করছে সড়ক পরিবহণ মালিক ও শ্রমিকরা। অথচ, বিনা নোটিশে ধর্মঘট ডাকার অধিকার কারো নেই। এরপর সরকারের সাথে আলোচনার মাধ্যমে বাড়িয়ে দেয়া হয় পরিবহণের ভাড়া।
তিনি বলেন, বিষয়টিকে সাধারণ মানুষের অনেকে সাজানো নাটক বলে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। তারপরও মরার উপর খাঁড়ার ঘাঁ হিসেবে সরকারিভাবে যেটুকু ভাড়া বাড়ানো হয়েছে, শ্রমিকরা যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করছে তার কয়েকগুন বেশি।


আবার ছাত্রদের কাছ থেকে অর্ধেকের স্থলে জোর করে আদায় করা হচ্ছে পুরো ভাড়াই। অন্যদিকে, বিশ^বাজারে তেলের দাম কমতে শুরু করেছে, কিন্তু সরকারের তেলের দাম কমানোর কোন চিন্তা আছে বলে মনে হয় না। আবার তেলের দাম বাড়ার সাথে সাথে পরিবহণ ব্যয় বাড়ার অযুহাতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়ে আকাশচুম্বী হয়ে যাচ্ছে। একারণে সাধারণ মানুষ সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন