সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩ মাঘ ১৪২৮, ১৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জুবফ সদস্যদের প্রাণের মেলা বসেছিল কৃৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২১, ৫:৫০ পিএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বিসিএস অফিসার্স ফোরাম (জুবফ) গত ২৬ নভেম্বর বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষ্যে একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে বিকেল শুরু হওয়া এ আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম। গতকাল এ সব তথ্য জানান জুবফ সাধারণ সম্পাদক ডিএমপির ডিসি মতিঝিল মো. আ. আহাদ।

এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি উল্লেখ করেন, অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বেই ভেন্যু প্রাঙ্গণ জুবফ সদস্যদের প্রাণের মেলায় পরিণত হয়। বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বিসিএস)পরীক্ষার মাধ্যমে বিভিন্ন ক্যাডার সার্ভিসে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি)- এর যে গ্র্যাজুয়েটগণ যোগ দিয়েছেন তাদের পেশাজীবী সংগঠন জুবফ। ভেন্যু প্রাঙ্গণে স্থাপিত বিভিন্ন স্টলে জুবফ সদস্যরা ছোট ছোট গ্রুপে আড্ডার মাধ্যমে পিঠা, ফুচকা ও অন্যান্য মজাদার খাবার খেতে খেতে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের স্মৃতিচারণ করেন। ক্যাম্পাসের স্থাপনার আদলে নিমির্ত দুটি ফটো বুথে ছবি তুলতে গিয়ে অনেকেই যেন ছাত্রজীবনে হারিয়ে যান। বাংলাদেশ পুলিশ নাট্যদল মঞ্চস্থ করে তাদের প্রযোজিত নাটক “অভিশপ্ত আগস্ট”। নাটকটি কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটের মূল মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হলে উপস্থিত হাজার খানেক জুবফ সদস্য ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট কাক ডাকা ভোরে ৩২ নম্বরে বিশ্ব ইতিহাসের ঘৃণ্যতম হত্যাকা-ের ঘটনাবলী ও তার পটভূমি অবলোকন করেন।
পবিত্র ধর্মগ্রন্থ থেকে পাঠের মাধ্যমে সভা শুরুর পর স্বাগত বক্তব্য রাখেন জুবফ সাধারণ সম্পাদক মো. আ. আহাদ, ডিসি মতিঝিল, ডিএমপি। তিনি তার বক্তব্যে জুবফ গঠনের ইতিহাস, তাৎপর্য ও লক্ষ্য তুলে ধরেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের দাবি জানান। এবং বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে সঠিকভাবে দেশকে পরিচালনার জন্য, ফোরামের প্রতিটি সদস্য প্রধানমন্ত্রীর পাশে থাকবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম, এমপি, আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান বঙ্গবন্ধু স্মরণে এই মহতী অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য। জাবির সাবেক শিক্ষার্থী হিসেবে তিনি তার ক্যাম্পাস জীবনের স্মৃতিচারণ করেন ও বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুবফের সফলতা কামনা করেন। তিনি জুবফ সদস্যদের নিঃস্বার্থভাবে দেশমাতৃকার সেবা অব্যাহত রাখার আহবান জানান ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও চেতনা ধারণ করে শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দেশ সেবায় নিয়োজিত থাকার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জুবফ সভাপতি মনোয়ার আহমেদ, সাবেক সচিব, বাংলাদেশ সরকার, জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন প্রস্তুতি উপ-কমিটির আহবায়ক মো. তাহিয়াত হোসেন, সহ-সভাপতি, জুবফ, ড. খন্দকার মাহিদ উদ্দিন, ডিআইজি, খুলনা রেঞ্জ ও সহ-সভাপতি, জুবফ, এবং মোঃ বজলুল কবির ভুঁইয়া, কর কমিশনার ও কোষাধ্যক্ষ, জুবফ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন