বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বিআরআই-তে সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রতি সম্মান দেখানোর দাবি জয়শঙ্করের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৫৯ পিএম

সংযোগ উদ্যোগে অবশ্যই সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতাকে সম্মান করতে হবে বলে দাবি করেছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তিনি আট দেশের সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা (এসসিও)’র কাউন্সিল অফ হেডস অফ গভর্নমেন্টের একটি বৈঠকে ভার্চুয়াল বক্তৃতার সময় এই মন্তব্য করেন। চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের (বিআরআই) উল্লেখ করে মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, যেকোনো বড় সংযোগ উদ্যোগকে অবশ্যই স্বচ্ছ হতে হবে এবং সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতার প্রতি শ্রদ্ধার মৌলিক নীতির সাথে সঙ্গতিপূর্ণ হতে হবে।–ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

আট দেশের সাংহাই সহযোগিতা সংস্থা (এসসিও) বৃহত্তম আন্তঃআঞ্চলিক আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলির মধ্যে একটি হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে। ভারত ও পাকিস্তান ২০১৭ সালে এর স্থায়ী সদস্য হয়। ভারত বিআরআই-এর এমন সমালোচনা করার কারণ ৫০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের করিডোর পাকিস্তান-অধিকৃত কাশ্মীরের মধ্য দিয়ে যায়। তিনি আরও বলেন, ইচ্ছাকৃতভাবে দ্বিপাক্ষিক সমস্যাগুলিকে এসসিও-তে আনার বারবার প্রচেষ্টা গ্রুপিংয়ের নির্ধারিত নীতিগুলি লঙ্ঘন করে এবং এই জাতীয় পাল্টা-পাল্টি বিরোধপূর্ণ কাজগুলোকে "নিন্দা" করা উচিত।

এসসিও কাউন্সিল অফ হেডস অফ গভর্নমেন্টের ২০তম বৈঠকে, এস জয়শঙ্কর এসসিও-এর ম্যান্ডেট বাস্তবায়নে গঠনমূলকভাবে অবদান রাখার জন্য ভারতের প্রতিশ্রুতি তুলে ধরেন। জয়শঙ্কর বলেন, ভারত মধ্য এশিয়ার দেশগুলোর জন্য সমুদ্রে নিরাপদ এবং বাণিজ্যিকভাবে কার্যকর প্রবেশাধিকার প্রদানের জন্য ইরানের চাবাহার বন্দরটি চালু করার জন্য পদক্ষেপ নিচ্ছে। তিনি বলেন, ভারত চাবাহার বন্দরকে আন্তর্জাতিক উত্তর-দক্ষিণ পরিবহন করিডোর (আইএনএসটিসি) এর কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব করেছে যখন এসসিও অঞ্চলে সহযোগিতা, পরিকল্পনা, বিনিয়োগ, ভৌত এবং ডিজিটাল সংযোগ গড়ে তোলার জন্য নয়াদিল্লির প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন