শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভোটে হেরে গরু জবাই করে খাওয়াতে চাইলেও নিমন্ত্রনে যায় নি কেউ

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০২১, ৯:৫১ পিএম

কথা রাখতে ভোটে হেরেও মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে শেরপুরের নালিতাবাড়ীর নন্নী ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী আবদুল হামিদের বাড়িতে ভোটারদের নিমন্ত্রণ জানানো হয়। নির্বাচনের আগে ভোটাদের খাওয়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তিনি। ভোটের পর মাইকে প্রচার দিয়ে ভোটারদের এ নিমন্ত্রন জানানো হয়।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, তৃতীয়ধাপের নন্নী ইউপির ১নং ওয়ার্ডের ফুটবল প্রতিক নিয়ে আবদুল হামিদ নির্বাচন করেন। তার প্রতিদ্বন্দি ছিলেন আরো দুই প্রার্থী। গত রোববার ভোটের দিনে ফলাফল অনুযায়ী ওই ওয়ার্ডে ৭৩০ ভোট পেয়ে (মোরগ) প্রতিকে বেসরকারী ভাবে এমদাদুল হক ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আর মাত্র ৬৪ ভোট পেয়ে আবদুল হামিদ তৃতীয় স্থানে রয়েছেন।

পরাজিত প্রার্থী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, নন্নী ইউপির ১নং ওয়ার্ডে সদস্যপদে আবদুল হামিদসহ আরো তিনজন নির্বাচনে অংশ নেন। নির্বাচনে আবদুল হামিদ গ্রামে গ্রামে ঘুরে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রতিশ্রুতি দেন তাকে ভোটে নির্বাচিত করা হলে দুটি গরু জবাই করা হবে। এছাড়া ১০ মণ আতপ চাল দিয়ে ভোটারদের পেটপুড়ে খাওয়ানো হবে। তিনি নির্বাচনের সময় সব ভোটারদের জিলাপি ও গুলগুলির প‍্যাকেট বিতরণ করেছিল।

কিন্ত ভোটে ওই ১নং ওয়ার্ডে বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হন এমদাদুল হক। আর আব্দুল হামিদ পান ৬৪ ভোট। ভোটাররা প্রতিশ্রুতি না রাখলেও আবদুল হামিদ কথা মতো গতকাল সোমবার এলাকায় মাইক যোগে ভোটাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এ নিয়ে ভোটার ও এলাকাবাসী মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ ও হাসিঠাট্টার সৃষ্টি হয়েছে। কথামতো আবদুল হামিদ তার বাড়িতে ১০ মণ চাল ও দুটি গরু প্রস্তত করে রেখেছেন। কিন্ত এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পরাজিত প্রার্থীর বাড়ীতে কয়েকজন সাংবাদিক ছাড়া কোন ভোটার বা গ্রামবাসী কাউকে দেখা যায়নি।

এ ব্যাপারে আবদুল হামিদ বলেন, আমি ভোটারদের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চেয়েছি। এবং ভোটের পর দুটি গরু ও ১০ মণ চাল দিয়ে গ্রামবাসিদের খাওয়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। ভোটারাও আমাকে ভোট দিবেন বলে ওয়াদা করেছিলেন। কিন্ত ভোট পেয়েছি মাত্র ৬৪। আসলে কেও কথা রাখেনি। তাই গতকাল মাইক মেরে গ্রামবাসিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। চাল ও গরু প্রস্তত রাখা আছে। গ্রামবাসী এলেই সবাই মিলে গরু জবাই করা হবে কিন্ত এখনও পর্যন্ত কেউ আসেনি। আমি আমার কথা রেখেছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
M A Islam ৩০ নভেম্বর, ২০২১, ১০:৫৭ পিএম says : 0
"আমি আমার কথা রেখেছি" Thanks for Wada
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন