শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

নেদারল্যান্ডসে ওমিক্রন শনাক্ত দক্ষিণ আফ্রিকার আগেই

জাপানসহ ১৮ দেশে ছড়াল নয়া ধরন লকডাউন এখনই প্রয়োজন নেই : জো বাইডেন বুস্টার ডোজ আনা সম্ভব : সেরাম ইনস্টিটিউট

মুহাম্মদ সানাউল্লাহ | প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

ইসরাইলের মতো পৃথিবী থেকে নিজেদের বিচ্ছিন্নের দিনই একজনের দেহে ওমিক্রন শনাক্তের ঘোষণা দিয়েছে জাপান। এর ফলে ওমিক্রন শনাক্ত দেশের সংখ্যা ১৮-এ গিয়ে দাঁড়াল। নেদারল্যান্ডের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ বা আরআইভিএম বলেছে, তারা দক্ষিণ আফ্রিকায় গত বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) শনাক্তের আরো আগে গত ১৯ এবং ২৩ নভেম্বর সংগ্রহ করা দু’টি নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট পেয়েছেন। তবে এ দুই ব্যক্তি দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করেছিলেন কি-না তা এখনও পরিষ্কার নয়। উত্তর আমেরিকায় শনাক্ত হওয়া উদ্বেগের, তবে ভীতির কারণ নয় বলে মনে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি এখনই লকডাইনের মতো সিদ্ধান্তের বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছেন না বলে জানান। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরিবহন নিরাপত্তা প্রশাসন (টিএসএ) গত রোববার একদিনে ২৪ লাখ ৫০ হাজার বিমানযাত্রীর করোনা পরীক্ষা করেছে, যা কোভিড-১৯ মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে দৈনিক যাত্রী পরীক্ষার সর্বোচ্চ সংখ্যা। এদিকে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী আদর পুনাওয়ালা ভারতীয় একটি বার্তা সংস্থাকে বলেছেন যে, ওমিক্রনের উপযোগী বুস্টার ডোজ তৈরি করা সম্ভব।

এবার জাপানে ওমিক্রন; সীমান্ত বন্ধ, বিদেশিরা নিষিদ্ধ
জাপানে, নামিবিয়াফেরত এক বিমানযাত্রীর দেহে করোনাভাইরাসের নতুন ভেরিয়েন্ট ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এটিই জাপানে শনাক্ত হওয়া ওমিক্রনের প্রথম কেস বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। জাপানের প্রধান মন্ত্রিপরিষদসচিব হিরোকাজু মাতসুনো সাংবাদিকদের বলেন, ৩০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে বিমানবন্দরে পরীক্ষা করা হলে তার শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। তিনি আরো বলেন, তাকে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রাখা হয়েছে। সরকার তার ঘনিষ্ঠদের বিষয়ে সতর্ক এবং নিয়মিত খোঁজ রাখছে।

এদিকে গতকাল থেকে জাপান তার সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে এবং বিদেশিদের সে দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এই নিষেধাজ্ঞা আগামী এক মাস বলবৎ থাকবে বলে জানা গেছে। ওমিক্রনের প্রবেশ বন্ধ করার জন্য এটি বিশ্বে কঠোরতম ব্যবস্থাগুলোর মধ্যে একটি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তসহ অন্যান্য যাত্রীদের নিয়ে গত সপ্তাহে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দু’টি ফ্লাইট আসার আগেই নেদারল্যান্ডসে এ ভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে বলে ডাচ স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। মঙ্গলবার দেশটির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ (আরআইভিএম) বলেছে, গত ২৬ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গ এবং কেপটাউন থেকে আমস্টারডামের শিফল বিমানবন্দরে আসা দু’টি ফ্লাইটের অন্তত ১৪ জন আরোহী করোনাভাইরাসের নতুন ধরনটি বহন করে নিয়ে এসেছেন।

আরআইভিএম বলেছে, ‘কিন্তু আমরা তারও আগে গত ১৯ এবং ২৩ নভেম্বর সংগ্রহ করা দু’টি নমুনা পরীক্ষায় করোনাভাইরাসের ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট পেয়েছি। তবে এই দুই ব্যক্তি দক্ষিণ আফ্রিকা সফর করেছিলেন কি-না তা এখনও পরিষ্কার নয়।’

গত ২৪ নভেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন প্রথম সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডবিøউএইচও)। একই সঙ্গে ওমিক্রনকে ‘উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট’ হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে সংস্থাটি। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত হওয়ার ৬ দিন আগের নমুনায় নেদারল্যান্ডস ‘ওমিক্রন’ সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছে বলে মঙ্গলবার আরআইভিএম জানিয়েছে। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ বলছে, ওই দুই ব্যক্তির নমুনায় ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ার পর লোকজনকে এ ব্যাপারে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে এবং পৌর স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ এখন কন্টাক্ট ট্রেসিং শুরু করেছে।

আরআইভিএম বলেছে, আগামী দিনে নেদারল্যান্ডসে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের ওপর বিভিন্ন ধরনের গবেষণা পরিচালিত হবে। আগের নমুনাগুলোও পুনরায় পরীক্ষা করা হবে। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে এখন পর্যন্ত নেদারল্যান্ডসেই সর্বোচ্চ ১৬ জনের ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে নেদারল্যান্ডসে আসা দু’টি ফ্লাইটের ৬১ জন যাত্রীর করোনা শনাক্ত হয়েছিল; তাদের মধ্যে কয়েকজন ওমিক্রন আক্রান্ত। বর্তমানে তারা আমস্টারডামে কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

ওমিক্রনের বুস্টার ডোজ আনা সম্ভব: আদর পুনাওয়ালা
বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়ানো করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের উপযোগী বুস্টার ডোজ তৈরি করা সম্ভব বলে জানিয়েছেন ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার (এসআইআই) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আদর পুনাওয়ালা। বিশ্বের বৃহত্তম ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের এই প্রধান নির্বাহী মঙ্গলবার দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, গবেষণায় যদি এ ধরনের শটের প্রয়োজনীয়তার ইঙ্গিত পাওয়া যায়, তাহলে কোভিড-১৯ ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের জন্য কোভিশিল্ড টিকার একটি সংস্করণ তৈরির বিষয়টি বিবেচনা করা যেতে পারে। ওমিক্রনের টিকার পরীক্ষা চলছে এবং আরও দুই সপ্তাহ পরে নতুন ভাইরাস সম্পর্কে জানা যাবে।

সেরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার এই প্রধান নির্বাহী বলেছে, অক্সফোর্ডের বিজ্ঞানীরাও তাদের গবেষণা অব্যাহত রেখেছেন এবং তাদের গবেষণার ফলের ওপর ভিত্তি করে আমরা নতুন একটি ভ্যাকসিন আনতে পারি; যা ছয় মাসের জন্য বুস্টার হিসেবে কাজ করতে পারে। ‘গবেষণার ওপর ভিত্তি করে আমরা সবার জন্য তৃতীয় এবং চতুর্থ ডোজ সম্পর্কে জানতে পারব,’ বলে এনডিটিভিকে জানিয়েছেন আদর পুনাওয়ালা। তবে ওমিক্রনের জন্য ভ্যাকসিনের একটি নির্দিষ্ট সংস্করণের প্রয়োজন হবে না বলে মনে করেন তিনি।

নতুন একটি গবেষণার বরাত দিয়ে তিনি বলেছেন, ল্যানসেট সাময়িকীতে বলা হয়েছে, কোভিশিল্ডের কার্যকারিতা অনেক বেশি এবং এটি হাসপাতালে ভর্তি এবং মৃত্যুর সম্ভাবনা তাৎপর্যপূর্ণভাবে হ্রাস করে। কোভিশিল্ডের কার্যকারিতা সময়ের সাথে সাথে কমে যাবে এমন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। কোম্পানির কাছে পর্যাপ্ত ডোজ মজুদ আছে এবং যদি বুস্টারের প্রয়োজনও হয়, তাহলে এটি একই দামে পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

লকডাউন এখনই প্রয়োজন নেই : বাইডেন
সিএনএন জানিয়েছে, ওমিক্রন কোভিড ভ্যারিয়েন্টকে উদ্বেগের কারণ, কিন্তু ভীতির কারণ নয় বলে অভিহিত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। উত্তর আমেরিকায় ভ্যারিয়েন্টটি শনাক্তের একদিন পর এ মন্তব্য করেন তিনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানান, তিনি এখনই লকডাউন আরোপের প্রয়োজন দেখছেন না যদি মানুষ টিকা নেয় এবং মাস্ক পরে। কানাডায় ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্র আটটি আফ্রিকান দেশের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। টিকাদান এবং বাইডেন ভাইরাসটি বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি সত্তে¡ও গত বছরের তুলনায় এই বছর বেশি আমেরিকানের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট এড়ানো প্রায় অসম্ভব। দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়া ভ্যারিয়েন্টটি যুক্তরাষ্ট্রেও পাওয়া যাবে বলেও জানান তিনি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানান, ভ্যাকসিন কোম্পানিগুলো প্রয়োজন পড়লে নতুন ভ্যাকসিনের জন্য আকস্মিক পরিকল্পনা তৈরি করবে। আফ্রিকান দেশগুলোর ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপের যৌক্তিকতা তুলে ধরতে গিয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, নিষেধাজ্ঞার কারণে ভ্যারিয়েন্টটি নিয়ে গবেষণার জন্য যুক্তরাষ্ট্র আরো কিছু সময় পেয়েছে।

একদিনে সাড়ে ২৪ লাখ বিমানযাত্রীর করোনা স্ক্রিনিং
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরিবহন নিরাপত্তা প্রশাসন (টিএসএ) রোববার ২৪ লাখ ৫০ হাজার বিমানযাত্রীর করোনা পরীক্ষা করেছে, যা কোভিড-১৯ মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে দৈনিক যাত্রী পরীক্ষার সর্বোচ্চ সংখ্যা। সংস্থাটি আজ সোমবার এ তথ্য জানায়। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর থেকে রোববারের মোট একদিনের সংখ্যা ছিল সর্বোচ্চ। ১০ দিনের থ্যাঙ্কসগিভিং ভ্রমণের সময়কালে পরীক্ষার পরিমাণ ছিল ২০.৯ মিলিয়ন। প্রাক-মহামারি ভ্রমণের প্রায় ৮৯ শতাংশ। ৮ নভেম্বর বাইডেন প্রশাসন চীন, ব্রাজিল এবং ইউরোপের বেশির ভাগ দেশসহ ৩৩টি দেশ থেকে সম্প‚র্ণ টিকাপ্রাপ্ত বিমান ভ্রমণকারীদের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে।

‘ওমিক্রন’ টোকেনের দাম এক লাফে বাড়ল ১০ গুণ
কয়েন টপ সিক্রেট এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে যে, ওমিক্রন (ওএমআইসি) ক্রিপটো টোকেনের দাম গত চার দিনে প্রায় ১০ গুণ বেড়েছে। ২৯ নভেম্বর সোমবার বিকল্প মুদ্রার মূল্য সর্বকালের একটি নতুন সর্বোচ্চ ছুঁয়ে ৬৮৯ ডলারের ওপরে বেড়েছে। ৩০ নভেম্বর ওএমআইসির ‘কয়েনগেকো’র মূল্য ২১০ ডলারে নেমে এসেছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডবিøউএইচও) দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে করোনাভাইরাসের একটি নতুন স্ট্রেইন ঘোষণা করার পর এবং এটিকে ‘ওমিক্রন’ নাম দেওয়ার পরে ক্রিপ্টোকারেন্সি দ্রæত বৃদ্ধি পেতে শুরু করে।

‘ওমিক্রনের উপসর্গ অত্যন্ত মৃদু’
ওমিক্রন ভাইরাস প্রথম চিহ্নিত হয় গত বৃহস্পতিবার দক্ষিণ আফ্রিকায়। মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই এতে আক্রান্ত ব্যক্তি চিহ্নিত হয়েছে পৃথিবীর অন্তত ১৮টি দেশে। দক্ষিণ আফ্রিকার ডাক্তাররা বলছেন, এখন পর্যন্ত ওমিক্রন নামের কোভিডের এই নতুন ধরনটির সংক্রমণে রোগীদের মধ্যে খুবই মৃদু লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। দক্ষিণ আফ্রিকার মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান অ্যানজেলিক কোয়েৎজি বলেছেন, এখন পর্যন্ত সেদেশে কেসের সংখ্যায় সামান্য বৃদ্ধি ঘটেছে - কিন্তু ওমিক্রনে আক্রান্তদের অধিকাংশেরই হাসপাতালে চিকিৎসা নেবার দরকার হয়নি। তিনি আরো বলেন, হয়তো এর লক্ষণ অত্যন্ত মৃদু বলেই এই নতুন ধরনটি এতদিন শনাক্ত হয়নি।

রোববার বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মিজ কোয়েৎজে বলেন, প্রথম যে আক্রান্ত ব্যক্তিকে পাই সে একজন পুরুষ, বয়স ছিল ৩০এর কোঠায়। এবং সে দু’দিন ধরে প্রচন্ড ক্লান্তি অনুভব করার কথা বলছিল। ‘তার সাথে গায়ে ব্যথা, মাথাব্যথা। তবে কোন কাশি ছিল না, বা স্বাদ-গন্ধও হারিয়ে ফেলেননি। এরকম লক্ষণ আমার কাছে অস্বাভাবিক মনে হওয়াতে আমি তার টেস্ট করাই। তাতে সে এবং তার পরিবারের সবাই পজিটিভ ধরা পড়লেও পরিবারের অন্যরা ভালো ছিল। সেজন্যই আমি বলছি মৃদু উপসর্গ। এর পর একদিনে আমি আরো কয়েকজন রোগী দেখি। তারাও সবাই পজিটিভ ছিল। এর পরই আমি টিকা সংক্রান্ত সরকারি কমিটিকে সতর্ক করি, যার সদস্য আমি নিজেও’।

তিনি বলেন, ‘আমরা দক্ষিণ আফ্রিকায় যা দেখছি তা হলো সংক্রমিত সবারই লক্ষণ আমাদের বিবেচনায় অত্যন্ত মৃদু। আমরা কাউকেই হাসপাতালে ভর্তি করাইনি। আমি অন্য একজন সহযোগী ডাক্তারের সাথে কথা বলেছি। তিনিও একই চিত্র তুলে ধরেছেন’। মিজ কোয়েৎজে অবশ্য বলছেন, যদিও এখন পর্যন্ত ওমিক্রন আক্রান্তদের উপসর্গ খুবই মৃদু বলে দেখা যাচ্ছে, কিন্তু দু’সপ্তাহ পর হয়তো এ চিত্রটা বদলে যেতে পারে।

দক্ষিণ আফ্রিকার আরো কয়েকজন চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলে মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট জানাচ্ছে, ওমিক্রনে ঠিক কতটা গুরুতর অসুস্থতা দেখা দিতে পারে সে চিত্রটা এখনো পরিষ্কার নয়। একজন ডাক্তার জানাচ্ছেন, প্রথমদিকে আক্রান্তদের লক্ষণ ছিল মৃদু। আরেকজন ডাক্তার বলেছেন, তিনি তরুণ-বয়স্ক কিছু রোগী দেখেছেন যাদের মাঝারি থেকে গুরুতর অসুস্থতা দেখা দিয়েছিল।

আফ্রিকা হেলথ রিসার্চ ইনস্টিটিউটির ফ্যাকাল্টি সদস্য অ্যালেক্স সিগাল ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, ‘এখনই কোন সিদ্ধান্তে পৌঁছানোটা ভুল হবে, তবে বলা যায় যে, আমরা আগে যা দেখেছি, এটা তার চেয়ে খুব বেশি ভিন্ন বলে মনে হচ্ছে না’। তিনি বলেন, এটা সম্পূর্ণ ভিন্ন কিছু করবে এমন কোন ইঙ্গিত এখনো নেই। সূত্র : রয়টার্স, এএফপি, বিবিসি, আল-জাজিরা, ওয়াশিংটন পোস্ট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Annjum ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ২:৪২ এএম says : 0
আল্লাহ তুমি আমাদের সাহায্য করো
Total Reply(0)
মিন্টু বিকাশ বড়ুয়া ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ২:৫২ এএম says : 0
করোনা মহামারী যেন জীবন-মৃত্যুর বিকিকিনি! করোনাকে কেন্দ্র করে সারাবিশ্বের অর্থনীতিতে একদিকে ধ্বস নেমেছে। অন্যদিকে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের প্যারালাল একটি অর্থনীতি দাঁড়িয়ে গেছে যা খুব অল্প সময়ে অস্বাভাবিক গতিতে ফুলেফেঁপে উঠেছে। চিকিৎসা ব্যবস্থার গোটা প্রক্রিয়াকে মনে হয়েছে যেন মাফিয়া সিন্ডিকেট!
Total Reply(0)
মাওলানা ইবাদুল ইসলাম তালা ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ২:৫৯ এএম says : 0
আল্লাহ তা'য়ালাই ভালো জানেন।আর কি কি বিপদ আছে।
Total Reply(0)
Murtuza Chowdhury ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:০৭ এএম says : 0
আক্রান্ত দেশের যাত্রীদেরকে বাংলাদেশে প্রবেশ জরুরী ভিত্তিতে বন্ধ না করলে আবারও দেশের জনগনকে স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে পড়তে হবে।
Total Reply(0)
কাওসার ১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:০৭ এএম says : 0
ওমিক্রন যদি আটকানো না যায় তাহলে বাংলাদেশ বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে।।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন