শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৮ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

‘ভালো’ ব্যাটিংয়ের পুরস্কার পেলেন লিটন-মুশফিক

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০৯ এএম

চট্টগ্রাম টেস্টে দুই ইনিংসেই দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন লিটন কুমার দাস। সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ফিফটি। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ছাপ পড়ল তার র‌্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের তালিকায় বড় লাফ দিলেন বাংলাদেশের কিপার-ব্যাটসম্যান। বাংলাদেশ-পাকিস্তান, ভারত-নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্টের পারফরম্যান্স বিবেচনায় গতকাল র‌্যাঙ্কিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রকাশ করেছে আইসিসি। ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ২৪ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ৩১তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন লিটন। প্রথম ইনিংসে ফিফটির সুবাদে ৩ ধাপ এগিয়ে সেরা বিশে ঢুকেছেন মুশফিকুর রহিম।
পাকিস্তানের বিপক্ষে ৮ উইকেটে হেরে যাওয়া ম্যাচের প্রথম ইনিংসে যখন ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে বাংলাদেশ, তখন দলের হাল ধরেন লিটন। পঞ্চম উইকেটে মুশফিকের সঙ্গে গড়েন ২০৬ রানের জুটি। টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিতে খেলেন ১১৪ রানের ইনিংস। প্রথম ইনিংসে মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ৯১ রান। দ্বিতীয়ভাগে তিনি ছিলেন ব্যর্থ, করেন কেবল ১৬। এবার লিটন খেলেন ৫৯ রানের ইনিংস। দুই ইনিংসেই ব্যাট হাতে ব্যর্থ ছিলেন মমিনুল হক। রান করেছেন যথাক্রমে ৬ ও ০। নিষ্প্রভ পারফরম্যান্স বাংলাদেশ অধিনায়ককে ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫ ধাপ নিচে নামিয়ে দিয়েছে, আছেন ৩৫তম স্থানে। এই টেস্টে না খেলা সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের অবনতি হয়েছে ৩ ধাপ করে।
তাইজুল ইসলামের দুর্দান্ত বোলিংয়ে প্রথম ইনিংসে লিড নিয়েছিল বাংলাদেশ। বাঁহাতি এই স্পিনার ৭ উইকেট নেন ১১৬ রান দিয়ে। পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের হয়ে যা সেরা বোলিং। লক্ষ্য তাড়ার ইনিংসে পাকিস্তানের দুটি উইকেট নিতে পেরেছিল বাংলাদেশ। যেখানে ৯১ রান করা আবিদ আলি শিকার তাইজুলের। বল হাতে আলো ছড়িয়ে এই স্পিনার র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন ৩ ধাপ। এখন আছেন ২৩ নম্বরে। বল হাতে চট্টগ্রামে তেমন কোনো অবদানই রাখতে পারেননি মেহেদী হাসান মিরাজ ও আবু জায়েদ রাহি। এতে অফ স্পিনার মিরাজ দুই ধাপ পিছিয়ে এখন ২৬ নম্বরে। ৬ ধাপ নেমে আবু জায়েদের অবস্থানে ৬৭তম।
এই টেস্টে প্রথম ইনিংসে হাসান আলি ও দ্বিতীয় ইনিংসে শাহিন শাহ আফ্রিদির তোপে এলোমেলো হয়ে যায় বাংলাদেশের ব্যাটিং। পাকিস্তানের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন এই দুই পেসারও। দুইজনেই আইসিসি টেস্ট বোলারদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন ক্যারিয়ার সেরা স্থানে। প্রথম ইনিংসে লিড পাওয়া বাংলাদেশকে দ্বিতীয় ইনিংসে অল্পতে গুটিয়ে দেওয়ার নায়ক আফ্রিদি। ৩২ রানে ৫ উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের থামিয়ে দেন ¯্রফে ১৫৭ রানে। ২০২ রানের লক্ষ্যে পরে ৮ উইকেটে জিতে যায় পাকিস্তান।
প্রথম ইনিংসে আফ্রিদির প্রাপ্তি ছিল দুই উইকেট। বল হাতে দারুণ এই পারফরম্যান্সে ৩ ধাপ ওপরে ওঠেন তিনি। নিল ওয়্যাগনার, কাগিসো রাবাদা ও জেমস অ্যান্ডারসনকে ছাড়িয়ে জায়গা করে নেন পঞ্চম স্থানে। আফ্রিদির সতীর্থ হাসান বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে নেন পাঁচ উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে তার শিকার দুটি। ৫ ধাপ এগিয়ে তিনি এখন ক্যারিয়ার সেরা ১১তম স্থানে। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম চার স্থানে আগের মতোই আছেন প্যাট কামিন্স, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, টিম সাউদি ও জশ হেইজেলউড।
ভারতের বিপক্ষে কানপুর টেস্টে তিনটি করে মোট ছয় উইকেট নেওয়া নিউজিল্যান্ড পেসার কাইল জেমিসন প্রথমবারের মতো ঢুকেছেন সেরা দশে। ছয় ধাপ ওপরে উঠে তিনি এখন ৯ নম্বরে। উন্নতি হয়েছে ভারতের আকসার প্যাটেল, শ্রীলঙ্কার রমেশ মেন্ডিস আর পাকিস্তানের সাজিদ খানেরও।
ব্যাটসম্যানদের তালিকায় সেরা দশে ফিরেছেন নিউজিল্যান্ডের টম ল্যাথাম ও শ্রীলঙ্কার দিমুথ করুনারতেœ। গলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ১৪৭ ও ৮৩ রানের ইনিংস খেলে লঙ্কান অধিনায়ক এগিয়েছেন ৪ ধাপ, আছেন সপ্তম স্থানে। ভারতের বিপক্ষে ড্র টেস্টে ব্যাট হাতে বড় অবদান রাখেন ল্যাথাম। দুই ইনিংসে ৯৫ ও ৫২ রান করে ৮ ধাপ এগিয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। এখন তার অবস্থান ৯ নম্বরে। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ৮৯ রান করা তার সতীর্থ উইল ইয়াংয়ের উন্নতি হয়েছে ২৬ ধাপ।
অভিষেকেই অনন্য কীর্তি গড়ে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৭৪ নম্বরে জায়গা করে করে নিয়েছেন শ্রেয়াস আইয়ার। প্রথম ইনিংসে ১০৫ রানের পর দ্বিতীয় ভাগে তার ব্যাট থেকে আসে ৬৫। ভারতের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে টেস্ট অভিষেকে করেন সেঞ্চুরি ও ফিফটি। চট্টগ্রাম টেস্টেই দুই ইংনিংসে ১৩৩ ও ৯১ করে আবিদ আলি ২৮ ধাপ উন্নতি করেছেন। পাকিস্তান ওপেনার এখন ২০তম স্থানে। এই তালিকায় আরও উন্নতি হয়েছে ভারতের শুবমান গিল ও ঋদ্ধিমান সাহা, শ্রীলঙ্কার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস ও দিনেশ চান্দিমালের।
ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা পাঁচ স্থানে আসেনি কোনো পরিবর্তন। যথারীতি আছেন জো রুট, স্টিভেন স্মিথ, কেন উইলিয়ামসন, মার্নাস লাবুশেন ও রোহিত শর্মা। অলরাউন্ডারদের তালিকায় প্রথম পাঁচজন হলেন জেসন হোল্ডার, রবীন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, বেন স্টোকস ও সাকিব আল হাসান।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন