রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী বিনিয়োগকারীদের পাশে আছেন

-বিএসইসি চেয়ারম্যান

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, শেয়ারবাজারে বিনিয়োগকারীদের পাশে সব সময় তিনি আছেন। একইসঙ্গে শেয়ারবাজারের উন্নয়নে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি। গতকাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম সাক্ষাৎ করেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী এ আশ্বাস দেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান, গতকাল বেলা ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বিএসইসি চেয়ারম্যান। সাক্ষাতে বিএসইসি’র চেয়ারম্যান বিনিয়োগ সীমার মধ্যে বন্ড অন্তর্ভুক্ত থাকা ও বাজার দরের পরিবর্তে কস্ট প্রাইসে বিনিয়োগ সীমা গণনার বিষয়টি শেয়ারবাজারের উন্নয়নে সবচেয়ে বড় বাধা বলে উল্লেখ করেন। ব্যাংক আইনে বন্ড নিয়ে জটিলতার বিষয়টিও প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন তিনি। একইসঙ্গে বাজারের গতি বাড়াতে স্ট্যাবিলাইজেশন ফান্ডের ব্যবহার এবং ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানির নগদ লভ্যাংশ প্রদানের ক্ষেত্রে বিভিন্ন জটিলতাসহ অন্যান্য বিষয়গুলো তুলে ধরেন।

সরকারপ্রধানের সঙ্গে আলোচনার ফলাফল কী- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমার একান্তে বৈঠক হয়েছে। সিদ্ধান্ত কী হয়েছে, সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশের আগে আমার বলা উচিত হবে না। কিন্তু বৈঠকের বিষয়ে বিনিয়োগকারীদের জন্য কী বার্তা থাকবে- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, সুপার হয়েছে। এক্সিলেন্টও। যে আলোচনা হয়েছে, তা পুঁজিবাজারে কেমন প্রভাব ফেলবে- এই প্রশ্নে তিনি বলেন, অনেক ভালো হবে। সব আলোচনা হয়েছে পুঁজিবাজার নিয়ে। বিস্তারিত না জানালেও বিএসইসি চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম জানিয়ছেন, পুঁজিবাজারের সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন। কোন কোন বাধার কারণে পুঁজিবাজার তার নিজস্ব গতিতে যেতে পারছে না, সে বিষয়গুলোও তুলে ধরেছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানির বন্ডে বিনিয়োগকে বিনিয়োগ সীমার অন্তর্ভুক্ত করবে না বাংলাদেশ ব্যাংক। একইসঙ্গে বাজার দরের পরিবর্তে কস্ট প্রাইস (ক্রয় মূল্য) বিবেচনায় নিয়ে বিনিয়োগ সীমা গণনা করা হবে। গত ৩০ নভেম্বর বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাংককে বিএসইসি’র সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ব্যাংক ও লিজিং কোম্পানির বন্ডে বিনিয়োগকে বিনিয়োগ সীমার অন্তর্ভুক্ত করা হবে না বলে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। একইসঙ্গে বাজার দরের পরিবর্তে কস্ট প্রাইস (ক্রয় মূল্য) বিবেচনায় নিয়ে বিনিয়োগ সীমা গণনা করা হবে জানানো হয়।##

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন