বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

গাজীপুরে আওয়ামী লীগের দুই নেতা হামলার শিকার

জাহাঙ্গীর সমর্থকদের আতংকে সভা ত্যাগ

গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:৩০ এএম

গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এসএম মোকছেদ আলম এবং টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রজব আলী হামলার শিকার হয়েছেন।মঙ্গলবার রাতে শহরের বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামে মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনিবাহী কমিটির সভা চলাকালে মো. রজব আলীকে এবং সভা শেষে গাড়িতে উঠার সময় এসএম মোকছেদ আলমকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। হামলায় আহত রজব আলী জানান, মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনিবাহী কমিটির সভা শুরু হয়।

মহানগর আ.লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমতউল্লাহ খানের সভাপতিত্বে সভায় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, সংরক্ষিত মহিলা এমপি সামসুন্নাহার ভূঁইয়া, ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ, মহানগর আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ মণ্ডলসহ কমিটির অন্যন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
তিনি বলেন, সভা চলাকালে সন্ধ্যা ৬টার দিকে অডিটরিয়ামের ওয়াশরুমে যাওয়ার পর ৭-৮ যুবক আমার উপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকে। এতে মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পেয়েছি। ওয়াশরুম থেকে ফিরে ঘটনাটি উপস্থিত প্রতিমন্ত্রী ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দকে অবহিত করি। পরে হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসা নিই।

তিনি আরো জানান, মহানগর আ.লীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারী অভিযোগ তুলে তার উপর হামলা চালানো হয়। তিনি হার্টের রোগী। ৫ বছর আগে তার ওপেন হার্ট সার্জারী হয়েছিল।

অপর দিকে হামলার শিকার এসএম মোকছেদ আলম জানান, সভা শেষে তিনি গাড়িতে উঠার সময় একদল যুবক তার উপর অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। হামলাকারিরা তার পরনের পাঞ্জাবি ছিড়ে ফেলে এবং শরীরের বিভিন্ন অংশে কিলঘুষি মারতে থাকে। পরে তিনি দ্রুত গাড়িতে উঠে স্থান ত্যাগ করেন এদিকে সভা চলাকালে সভা স্থলের বাইরে গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলমের সমর্থক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নানা স্লোগান দিতে থাকে।

এতে সভায় উপস্থিত থাকা জাহাঙ্গীর আলম সমর্থক নেতাদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। সভা শেষে অনেক নেতাকর্মী পুলিশের প্রহরায় এবং সিনিয়র নেতাদের পিছনে দ্রুত এলাকা ত্যাগ করেন।মহানগর আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান জানান, তিনিসহ কয়েকজন নেতা প্রতিমন্ত্রীর সাথে প্রহরায় আতংকের মধ্যে সভাস্থল ত্যাগ করেছেন।

এ ব্যাপারে মহানগর আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আতাউল্লাহ মন্ডল জানান, আওয়ামী লীগ নেতা রজব আলীকে মারধরের কথা তিনি সভাস্থলে এসে সভাকে অবহিত করেন। এ ঘটনায় দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন