বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

নতুন চ্যাম্পিয়ন দক্ষিণ কোরিয়া

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

হিরো এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি হকির শিরোপা জিতল দক্ষিণ কোরিয়া। টুর্নামেন্টের নতুন চ্যাম্পিয়ন তারা। গতকাল রাতে মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে কোরিয়া টাইব্রেকার শুটআউটে ৪-২ গোলে জাপানকে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয়। নির্ধারিত সময়ের খেলা ৩-৩ গোলে ড্র ছিল। শুট-আউটে কোরিয়ার হয়ে গোল করেছেন লী জুং জুন, জি ও চিওন, ওয়াং তায়েল ও লী হায়ে সিউং। জাপানের হয়ে গোল করেন ওকা রায়োমা ও সারেন তানাকা। রাইকি ফুজিশিমা ও কোসেই কাওয়াবেরকে রুখে দিয়ে ম্যাচের নায়ক বনেছেন কোরিয়া গোলরক্ষক কিম জা ইয়োন। টুর্নামেন্টে ১০ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার পেয়েছেন কোরিয়ার ৩৭ বছর বয়সি ডিফেন্ডার জ্যাং জং ইয়োন। ২০১১ সালের এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেও সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন বর্ষীয়ান এ ডিফেন্ডার।
সেমিফাইনালের মতো কাল ফাইনালেও জাপানের শুরুটা ছিল গতিময়। বল দখলের লড়াইয়ে তারা এগিয়ে ছিল। এশিয়ান গেমস হকির চ্যাম্পিয়নরা দ্রæত গতির পাল্টা আক্রমণে ম্যাচের ৮ মিনিটে প্রথম গোল পায়। এসময় বাঁ দিক থেকে জ্যাং জি হুনের হিট স্টিকে দিক পরিবর্তন করে জালে জড়ান কোরিয়ার জিয়ং জুন উ (১-০)। ২৪ মিনিটে কেন নাগায়োশির পেনাল্টি কর্নার (পিসি) গোলে সমতা আনে জাপান (১-১)। ৪৪ মিনিটে দ্রæত গতির পাল্টা আক্রমণে ওচাই হিরোমাশার রিভার্স হিটে জাপানকে এগিয়ে নেন (২-১)। কিছুক্ষণ পরেই ইয়োশিকি কিরিশিতার পিসি গোলে স্কোরলাইন ৩-১ করে জাপান। ম্যাচের চমক যেন লুকিয়ে ছিল শেষ কোয়ার্টারে। জ্যাং জং ইয়োনের পিসি থেকে পাওয়া গোলে স্কোরলাইন ৩-২ করে কোরিয়া। এ নিয়ে টুর্নামেন্টের সবগুলো ম্যাচেই গোল করেছেন দলটির অন্যতম সেরা এ খেলোয়াড়। পাকিস্তানের বিপক্ষে সেমিফাইনালে হ্যাটট্রিকসহ ৪ গোল করেছিলে তিনি। শেষ মুহূর্তে জ্যাং জং ইয়োনের পিসি গোলে ম্যাচে ফিরে আসে কোরিয়া (৩-৩)। ফলে খেলা গড়ায় পেনাল্টি শুটআউটে। যেখানে জয় পেয়ে শিরোপা নিজেদের করে নেয় দক্ষিণ কোরিয়া।
এর আগে বিকালে একই ভেন্যুতে স্থান নির্ধারণী ম্যাচে টোকিও অলিম্পিকে ব্রোঞ্জজয়ী ভারত ৪-৩ গোলে চিরপ্রতিদ্ব›িদ্ব পাকিস্তানকে হারিয়ে আসরে তৃতীয়স্থান পায়।
ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণাত্মক হকি উপহার দিয়ে ২ মিনিটে টানা চারটা পেনাল্টি কর্ণার (পিসি) পেয়ে চারবারের চেষ্টায় গোল আদায় করে নেয় ভারত। তাদের গোলদাতা হারমানপ্রীত (১-০)। মিনিট আটেক পর দারুণ নৈপূণ্যে করা আফরাজের গোলে সমতায় ফেরে পাকিস্তান (১-১)। ৩৩ মিনিটে পেনাল্টি কর্ণারে (পিসি) আবদুল রানার গোলে এবার এগিয়ে যায় পাকিস্তান (১-২)। ৪৫ মিনিটে সুমিতের দুর্দান্ত এক ফ্লিকে সমতায় ফেরে ভারত (২-২)। ৫৩ মিনিটে ফের এগিয়ে যায় ভারত। পিসি থেকে গোল করেন বরুণ কুমার (৩-২)। মিনিট চারেক পর ব্যবধান বাড়ান আকাশদ্বীপ সিং (৪-২)। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ব্যবধান কমান পাকিস্তানের নাদিম আহমেদ (৪-৩)। শেষে এই ব্যবধানে হার নিয়ে পাকিস্তান হতাশ হলেও মর্যাদার লড়াই জিতে উৎফুল্ল চিত্তে মাঠ ছাড়ে ভারতীয়রা।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন