শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

এবার কোটি টাকার বিপিএল

ছয় দল নিয়ে তিন ভেন্যুতেই বিপিএল

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

বিশ্বজুড়ে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রভাবে গত বছর মাঠে গড়ায়নি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে এবার মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় দেশের ক্রিকেটের সবচাইতে জমজমাট এই ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। আসছে ২১ জানুয়ারি মাঠে গড়াবে বিপিএলের ৮ম আসর। তবে দল ও ভেন্যু সংখ্যা কমে যাওয়ার শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। সেই শঙ্কা কেটে গেছে। নির্ধারিত সময়ে, ছয়টি দলকে নিয়ে তিন ভেন্যুতেই বিপিএল আয়োজনের জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গতকাল বোর্ড পরিচালকদের নিয়ে সভা শেষে তেমনটাই জানালেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক।
অর্থের ঝনঝনানিতো আছেই, অনেক দিক থেকেই বিপিএল বাংলাদেশের ক্রিকেটে উত্তেজনার অনেকটা জায়গা দখল করে আছে। বর্তমান তো বটেই, সাবেক অনেক তারকা ক্রিকেটারের অভিজ্ঞতার মিশেলে অনন্য মেলবন্ধন এই টুর্নামেন্ট। অবধারিতভাবে এই তালিকার সবচাইতে বড় নাম মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেই রোমাঞ্চ ছড়িয়ে দিতে আর যেন তর সইছে না মল্লিকের। বিপিএল সদস্য সচিব জানান, ছয় দল ছাড়াও আছে ব্যাকআপ পরিকল্পনা, ‘বিপিএল নিয়ে এবার একটু অনিশ্চয়তা ছিল। করোনা পরিস্থিতির কারণে নিউজিল্যান্ডে দল খেলতে পারবে কি না, করোনা ফলাফল কী হবে এসব বিবেচনা করতে হয়েছে। আমাদের সব প্রস্তুতিই ছিল। এখন পর্যন্ত ৬টি দল প্রায় চ‚ড়ান্ত।’
সব কিছু ঠিক থাকলে বিপিএলের এবারের আসরে অংশ নিবে ঢাকা, সিলেট, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও কুমিল্লার ফ্র্যাঞ্চাইজি। দু’এক দিনের মধ্যে যারা পার্টিসিপেশন মানি দিয়ে দিবে তাদের নিশ্চিত করবে বিসিবি। যদি তা-না হয়, তবে বিকল্পও ভেবে রেখেছেন মল্লিক, ‘না হলে আমাদের আরও ২-৩টি আগ্রহী ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে কথা বলা আছে, মানে ব্যাকআপ আছে আমাদের।’ দলগুলোর আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়ে গেলেই প্লেয়ার্স ড্রাফট হবে। সেজন্য দুটো তারিখ মাথায় আছে তাদের, ‘এরপর থাকবে প্লেয়ার্স ড্রাফট। দুইটা তারিখের কথা বলে রেখেছি। একটি ২৭ ডিসেম্বর, নাহলে ৩-৫ জানুয়ারি।’
বোর্ড প্রধান জানিয়েছিলেন একটি ভেন্যু কমিয়ে সময় বাঁচানো যায় কিনা এই নিয়েও তারা ভাবছেন। তবে আপাতত ভেন্যু কমানোরও দরকার পড়ছে না। মল্লিক জানালেন খেলা হবে তিন ভেন্যুতেই, ‘আমরা তিনটা ভেন্যুই রাখছি- ঢাকা, সিলেট চট্টগ্রাম। তিনটি ভেন্যুতেই খেলা হবে। নিউজিল্যান্ড থেকে ১৪ বা ১৫ তারিখ দল আসার কথা। ৪-৫ দিন খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়ে ২০ জানুয়ারি থেকে শুরু করার ইচ্ছা, ২০ ফেব্রæয়ারির মধ্যে শেষ করে ফেলব।’ ম্যাচের সময়সূচিতে কোনো পরিবর্তন নেই বলেই জানালেন সদস্য সচিব, ‘প্রতিদিন দুইটি করে ম্যাচ খেলতে হবে। একটা ম্যাচ হয়ত দুপুর একটা থেকে দুইটার মধ্যে শুরু করব, পরেরটি দুই থেকে আড়াই ঘণ্টার বিরতি দিয়ে।’
প্রথমবারের মত আইকন ক্রিকেটার না রেখে গ্রেডিং পদ্ধতিতে ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নির্ধারণ করেছে বিসিবি। তবে বিপিএলে ড্রাফটের বাইরে থেকে একজন স্থানীয় খেলোয়াড় ও তিনজন বিদেশী খেলোয়াড় আলোচনার ভিত্তিতে নিজেদের দলে নিতে পারবে দলগুলো। ড্রাফটের দেশি খেলোয়াড়দের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক ধরা হয়েছে ৭৫ লাখ, বিদেশিদের ৭৫ হাজার ডলার। ড্রাফটের বাইরে থেকে পারিশ্রমিক ঠিক হবে খেলোয়াড় ও ফ্র্যাঞ্চাইজির আলোচনার ভিত্তিতে। মল্লিক বললেন, ‘জাতীয় দলের যে ক্রিকেটাররা টানা খেলার মধ্যে রয়েছেন তারা চাইলে শুরুর দিকে বিশ্রাম নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে তাদের প‚র্ণ পারিশ্রমিক দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের।’
এবারের বিপিএলে থাকছে মোটা অঙ্কের প্রাইজমানি। অষ্টম আসরের শিরোপাজয়ী দল পাবে ১ কোটি টাকা আর রানার্সআপ দলের জন্য থাকছে ৫০ লাখ টাকা। তবে এবারের বিপিএলে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলেই জানালেন মল্লিক, ‘আজ (গতকাল) অনেক বোর্ড পরিচালক ছিলেন, সভাপতি ছিলেন। সবার সাথে এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এখন যে পরিস্থিতি, তাতে একটু কঠিন। এখনই একদম না বলে দিচ্ছি না। তবে না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।’
আগামী ২১ জানুয়ারি থেকে বিপিএল শুরুর কথা রয়েছে, যার পর্দা নামবে ১৮ ফেব্রæয়ারি ফাইনালের মধ্য দিয়ে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন