শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ধর্ষণে ব্যর্থ হয়েই তানিয়াকে গলাকেটে হত্যা করে রুবেল, গ্রেপ্তার

নারায়ণগঞ্জ থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ৫:২১ পিএম

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে তানিয়া আক্তার (২৩) নামে এক নারীকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত শাহপরান রুবেলকে (৪০) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গ্রেপ্তারকৃত শাহপরান রুবেল নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের আইলপাড়া এলাকার মো. আবুল খায়েরের ছেলে।
নিহত তানিয়া বরগুনা জেলার আমতলী এলাকার সেলিম খানের মেয়ে। সে তার দুই বোনকে নিয়ে একাই থাকতো। শুক্রবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে র‌্যাব-১১’র প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক তানভীর মাহমুদ পাশা এই তথ্য জানান।
সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক তানভীর মাহমুদ পাশা বলেন, বৃহস্পতিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জ শহরের খানপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তাার হয়। গ্রেপ্তারের পর সে প্রাথমিকভাবে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।
যেভাবে তানিয়াকে হত্যা করে রুবেল
গ্রেপ্তারকৃত রুবেলের একাধিক স্ত্রী ছিল এবং পর নারীতে আসক্ত ছিলেন। সে আগে তানিয়ার বাবার নিকট তানিয়াকে বিবাহের প্রস্তাব দেয় যা ভিকটিম তানিয়ার বাবা প্রত্যাখ্যান করে। এরপরও সে মাঝে মধ্যেই ভিকটিম তানিয়াকে উত্যক্ত করে আসছিল।
এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৪ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের ৮নং ওয়ার্ডের নতুন আইলপাড়ার মো. শফিকুল ইসলামের বাড়ির ভাড়াটিয়া তানিয়াকে তার বাসায় ধর্ষণের চেষ্টা করে রুবেল।
এ সময় তানিয়া একটি ছুরি নিয়ে নিজেকে আত্মরক্ষা করতে বাসা থেকে দৌড়ে বাঁচার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে পেছন দিকে থেকে জাপটে ধরে ওই ছুরি দিয়ে প্রথমে তানিয়ার পেটে উপর্যুপরি আঘাত করার পর তাকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায় শাহ পরান রুবেল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন