শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

‘বেওয়ারিশ’ ঢাকায় তারার মেলা!

মাহমুদউল্লাহর সঙ্গী তামিম, মাশরাফি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

সাকিবের বরিশালে গেইল-মুজিব


ড্রাফটের আগে যে দলের মালিকানা নিয়ে ছিল টানাপোড়েন, প্লেয়ার্স ড্রাফটে সেই ‘বেওয়ারিশ’ ঢাকা ফ্র্যাঞ্চাইজিই উপহার দিল বড় চমক। ড্রাফটের আগেই তারা নিশ্চিত করেছিল বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে। ড্রাফট থেকে তারা দলে নেয় দেশের ক্রিকেটের আরও দুই বড় তারকা তামিম ইকবাল ও মাশরাফি বিন মুর্তজাকে। বাংলাদেশ ক্রিকেটের এই বড় তিন পান্ডব একসঙ্গে বিপিএলের এক দলে খেলবেন এবারই প্রথম। গত বছর বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি লিগে একসঙ্গে জেমকন খুলনায় খেলেছিলেন মাহমুদউল্লাহ, সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি।
মাশরাফি, তামিম, মাহমুদউল্লাহ, তিনজনই এবারের প্লেয়ার্স ড্রাফটে ছিলেন ‘এ’ ক্যাটেগরিতে। এই ক্যাটেগরির পারিশ্রমিক ৭০ লাখ টাকা। তবে নিজেদের প্রথম ডাকে ঢাকা দলে নেয় তামিমকে, দ্বিতীয় যাকে নেয় পেসার রুবেল হোসেনকে। তৃতীয় ডাকে তারা দলে টানে মাশরাফিকে। পরে দলে যোগ করে তারা অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার শুভাগত হোমকে। মাশরাফি কোনো দলনের ক্রিকেটে সবশেষ খেলেছেন গত ডিসেম্বরে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি লিগে। ওই টুর্নামেন্টে খুলনার হয়ে চার ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি। কোয়ালিফায়ার ম্যাচে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। দীর্ঘদিন ধরে খেলার মধ্যে না থাকলেও বিপিএল খেলার ভাবনায়ই নিজের ফিটনেস নিয়ে কাজ করছিলেন মাশরাফি। ওজন কমিয়েছেন অনেক।
এদিকে, টি-টোয়েন্টি মহাতারকা ক্রিস গেইল এবারের বিপিএলে খেলবেন ফরচুন বরিশালের হয়ে। প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগেই তারা নিশ্চিত করেছিল সাকিব আল হাসান, দানুশকা গুনাথিলাকা ও মুজিব উর রহমানকে। ড্রাফট শুরুর আগে দলটি জানায়, তৃতীয় বিদেশি হিসেবে দলে তারা দলে নিয়েছে গেইলকে। এবারের বিপিএলে ড্রাফটের আগে একজন দেশি ও তিনজন বিদেশিকে সরাসরি দলে নেওয়ার সুযোগ আছে। বরিশাল সেই সুযোগের সদ্ব্যবহার করল দারুণভাবেই। সাকিব ও মুজিবের কার্যকারিতা নিয়ে তো প্রশ্নই নেই। টি-টোয়েন্টিতে গুনাথিলাকাও দারুণ কার্যকর। গেইল সেই আগের মতো বিস্ফোরক ও ধারাবাহিক না হলেও এখনও তার আবেদন তুমুল।
ড্রাফটের মাঝামাঝি পর্যায়ে জানানো হয়, কুমিল্লা ড্রাফটের আগেই নিশ্চিত করেছে ফাফ দু প্লেসি, সুনিল নারাইন ও মইন আলির মতো তিন তারকার নাম। দু প্লেসি বিপিএলে খেলবেন প্রথমবার। নারাইন সবশেষ ২০১৯ আসরে খেলেছেন ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে। মইন বিপিএল খেলেছেন একবারই। ২০১৩ আসরে দুরস্ত রাজশাহীর হয়ে ৫টি ম্যাচ খেলেছিলেন এই ইংলিশ অলরাউন্ডার। বিপিএলের নিয়মিত মুখ থিসারা পেরেরাকে ড্রাফটের আগেই নিয়েছে খুলনা। ড্রাফটের আগে দল পাওয়াদের মধ্যে উল্লেখযোগ বিদেশি আর আছেন সিলেট দিনেশ চান্দিমাল ও কেসরিক উইলিয়ামস, ঢাকায় নাজিবউল্লাহ জাদরান ও ইসুরু উদানা, খুলনায় আফগান পেসার নাভিন উল হক।
ড্রাফটেই অবশ্য দল গোছানো শেষ নয়। ড্রাফটে দল না পাওয়া ক্রিকেটাদের নেওয়ার সুযোগ আছে সব দলেরই। প্রতি দলের স্কোয়াডে সর্বোচ্চ ১৪ জন দেশি ও ৮ জন বিদেশি নিতে পারবে প্রতি দল। মোট ২২ জনের স্কোয়াড পূরণ হয়নি এখনও কোনো দলেরই।

ড্রাফট শেষে কে কোন দলে
ঢাকা
ড্রাফটের আগে সরাসরি : মাহমুদউল্লাহ, নাজিবউল্লাহ জাদরান (আফগানিস্তান), ইসুরু উদানা (শ্রীলঙ্কা), কাইস আহমেদ (আফগানিস্তান)।
ড্রাফট থেকে দেশি : তামিম ইকবাল, রুবেল হোসেন, মাশরাফি বিন মর্তুজা, শুভাগত হোম চৌধুরী, নাঈম শেখ, আরাফাত সানি, ইমরানুজ্জামান, শফিউল ইসলাম, জহুরুল ইসলাম অমি, শামসুর রহমান শুভ ও ইবাদত হোসেন।
ড্রাফট থেকে বিদেশি : মোহাম্মদ শাহজাদ (আফগানিস্তান), ফজল হক ফারুকি (আফগানিস্তান)।
ড্রাফট শেষ হওয়ার পর : রিশাদ হোসেন।

কুমিল্লা
ড্রাফটের আগে সরাসরি : মুস্তাফিজুর রহমান, সুনীল নারাইন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), ফাফ ডু প্লেসি (দক্ষিণ আফ্রিকা), মঈন আলী (ইংল্যান্ড)।
ড্রাফট থেকে দেশি : লিটন দাস, শহিদুল ইসলাম, ইমরুল কায়েস, তানভীর ইসলাম, আরিফুল হক, নাহিদুল ইসলাম, মাহমুদুল হাসান জয়, সুমন খান, মুমিনুল হক, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, পারভেজ হোসেন ইমন, আবু হায়দার রনি ও মেহেদী হাসান।
ড্রাফট থেকে বিদেশি : কুশল মেন্ডিস (শ্রীলঙ্কা), ওশানে টমাস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

সিলেট
ড্রাফটের আগে সরাসরি : তাসকিন আহমেদ, দিনেশ চান্দিমাল (শ্রীলঙ্কা), কেসরিক উইলিয়ামস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), কলিন আলেক্সজান্ডার ইনগ্রাম (দক্ষিণ আফ্রিকা)।
ড্রাফট থেকে দেশি : মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ মিঠুন, আল-আমিন হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু, এনামুল হক বিজয়, সোহাগ গাজী, অলক কাপালি, মুক্তার আলী, মিজানুর রহমান, নাদিফ চৌধুরী, জুবায়ের হোসেন লিখন, শফিউল হায়াত।
ড্রাফট থেকে বিদেশি : রবি বোপারা (ইংল্যান্ড), অ্যাঞ্জেলো পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), সিরাজ আহমেদ (সংযুক্ত আরব আমিরাত)।

খুলনা
ড্রাফটের আগে সরাসরি: মুশফিকুর রহিম, থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), নাভিন উল হক (আফগানিস্তান), ভানুকা রাজাপাকসা (আফগানিস্তান)।
ড্রাফট থেকে দেশি : শেখ মেহেদী হাসান, সৌম্য সরকার, কামরুল ইসলাম রাব্বি, ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি, ফরহাদ রেজা, রনি তালুকদার, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, জাকের আলী অনিক ও নাবিল সামাদ।
ড্রাফট থেকে বিদেশি : সেকুগে প্রসন্ন (শ্রীলঙ্কা), সিকান্দার রাজা (জিম্বাবুয়ে)।

চট্টগ্রাম
ড্রাফটের আগে সরাসরি : নাসুম আহমেদ, কেনার লুইস (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), বেনি হাওয়েল (ইংল্যান্ড), উইল জ্যাকস (ইংল্যান্ড)।
ড্রাফট থেকে দেশি : শরিফুল ইসলাম, আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম হোসেন পাটোয়ারী, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, রেজাউর রহমান রাজা, সাব্বির রহমান, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী, মেহেদী হাসান মিরাজ, আকবর আলী ও নাঈম ইসলাম।
ড্রাফট থেকে বিদেশি : চ্যাডউইক ওয়ালটন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), রায়াড এমরিট (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

বরিশাল
ড্রাফটের আগে সরাসরি: সাকিব আল হাসান, ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মুজিব উর রহমান (আফগানিস্তান), দানুশকা গুনাথিলাকা (শ্রীলঙ্কা)।
ড্রাফট থেকে দেশি : নুরুল হাসান সোহান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান রানা, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, তৌহিদ হৃদয়, জিয়াউর রহমান, শফিকুল ইসলাম, সৈকত আলী, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম, সালমান হোসেন ইমন ও ইরফান শুক্কুর।
ড্রাফট থেকে বিদেশি : ওবেড ম্যাককয় (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), আলজারি জোসেফ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), নিরোশান ডিকভেলা (শ্রীলঙ্কা)।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন