সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশের মানুষ আ.লীগ থেকে মুক্তি চায়

বনানী কার্যালয়ে জিএম কাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপি বলেছেন, দেশে সুশাসন ও নিরাপত্তা নেই। অনেক ক্ষেত্রে ন্যায় বিচারের ঘাটতি লক্ষ্য করা যায়।
দুর্ঘটনা যেন নিত্যদিনের স্বাভাবিক ঘটনা। সড়কে দুর্ঘটনা ঘটবে, মানুষ মারা যাবে আবার প্রতিদিন রাস্তা বন্ধ হয়ে হাজার হাজার মানুষ সড়কে আটকে সীমাহীন ভোগান্তি পোহাবে এটাই যেন স্বাভাবিক ঘটনা। রেলের সাথে বাসের ধাক্কা লেগে মানুষ মারা যাবে, এটা যেন খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। মেগা প্রকল্প মানেই মেগা ব্যয়। এক বছরের কাজ তিন বছর ধরে চলবে, ১০০কোটি টাকার স্থলে ৩০০কোটি টাকা ব্যয় হবে। এক বছরের স্থলে তিন বছর ধরে কষ্ট করবে সাধারণ মানুষ।

গতকাল চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কারবারি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, মেজর (অব:) মো. মাহফুজুর রহমান জাতীয় পার্টিতে যোগদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, কাজ নেই, বেকারত্ব বাড়ছে। ট্যাক্স বেড়েছে সকল ক্ষেত্রে, কিন্তু মানুষের আয় বাড়েনি। তাই নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে মানুষের জীবন যাপন দুঃসহ হয়ে উঠেছে। সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী দেশের জিডিপি বেড়েছে, জিডিপি কত বেড়েছে তা দেশের মানুষ জানতে চায় না। জিডিপি বাড়লে মানুষের পেট ভরে না, তাই চাওয়া পাওয়ার হিসাব মেলাতে গেলে ফলাফল বিরাট একটা শূন্য।

জিএম কাদের আরো বলেন, ১৯৯১ সালের পর থেকে আওয়ামী লীগ দেশের যে অবস্থা করেছে বিএনপি এলে সেই ধারাবাহিকতা রক্ষা করবে। দেশ ও মানুষের কোনো উপকার হবেনা। দেশের মানুষ আওয়ামী লীগের হাত থেকে মুক্তি চায়। বিএনপির হাত থেকে মুক্তি চায়। দেশের মানুষ জানে, দুর্নীতি, দুঃশাসন, স্বজনপ্রীতি, লুটপাট আর বৈষম্য দূর করতে জাতীয় পার্টির বিকল্প নেই। যে স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা স্বাধীনতা সংগ্রামে জীবন দিয়েছেন, যে স্বপ্ন পূরণ করতে লাখো মা-বোন সম্ভ্রম দিয়েছেন আমরা সেই স্বপ্ন পূরণ করতেই রাজনীতি করছি।

যোগদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির নেতা মো. এমরান হোসেন মিয়া, মনিরুল ইসলাম মিলন, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হুমায়ুন খান, আনোয়ার হোসেন তোতা, মো. জয়নাল আবেদীন, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য মাসুদ রহমান মাছুম, এমএ রাজ্জাক খান, জহিরুল ইসলাম মিন্টু প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন