সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঈশ্বরগঞ্জে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:৩৬ পিএম

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ব্যাডমিন্টন খেলার বিদ্যুতের তার সংযোগ দিতে গিয়ে সেই তারে স্পৃষ্ট হয়ে ৭ম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে ওই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার রাজিবপুর ইউনিয়নের ভাটিচরনওপাড়া গ্রামের মোঃ আলাল মিয়ার ছেলে রাজিবপুর আপ্তাব উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ে ৭ম শ্রেণীর ছাত্র মোঃ মামুন মিয়া (১৩) বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ির পাশেই ব্যাডমিন্টন খেলার জন্য বিদ্যুতের তার সংযোগ দিতে যায়। পরে সেই তারেই স্পৃষ্ট হয়ে মামুন মারা যায়। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঈশ্বরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল কাদের মিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
md.Zahangir Alam ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১, ৮:২৯ এএম says : 0
পএিকা প্রকাশ করার জন্য আবেদন. ????ঢাকা থেকে গাজীপুর???? । প্রতিবার যখন ময়মনসিংহ যাই মনে মনে কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাতে জানাতে যাই। ঢাকা জিরো পয়েন্ট থেকে গাজীপুরের দূরত্ব ৩০ কিমি। এই ৩০ কিমি রাস্তা পারি দিতে মাত্র ৩ থেকে ৪ঘন্টা লাগে। আরও একটু সহজ করে বলি টঙ্গী সেতু থেকে গাজীপুর চৌরাস্তার দূরত্ব ১২ কিলোমিটার আর এই ১২ কিলোমিটার রাস্তা পারি দিতে সময় লাগে ২.৫ থেকে ৩ ঘন্টা। ৪০০০ বছর পূর্বে মানুষ যখন ঘোড়ায় চলাফেরা করতো তখন ৩০ কিমি পাড়ি তাদের ৩০ মিনিটেরও কম লাগতো। একটা ঘোড়ার গড় গতি ৮০+ কিমি/ঘন্টা। এতো কম সময় ট্রাভেল করলে কি ট্রাভেলের মজা পাওয়া যায়, আপনারাই বলুন...? তাই কর্তৃপক্ষ আমাদেরকে এই রাস্তায় ৩/৪ ঘন্টার ট্রাভেলের ব্যবস্থা করে দিয়েছে। এর সাথে আরও থাকছে আব্দুল্লাহপুরের রাস্তায় সাজেক ভ্রমণের অনুভুতি????। এই রাস্তায় উঠলে দেখবেন চারিদিকে মেঘ আর মেঘ ????। হাত না বাড়ালেও দেখবেন এই মেঘ আপনার হাতে আসবে, গায়ে লাগবে, মুখে লাগবে, জামার ভিতরে ঢুকবে। শরীরে ঢুকে মেঘেরা কুট কুট করে খেলা করবে। সেই সাথে আছে ন্যাচারাল হোয়াইটেনিং ক্রীম। এই রাস্তায় ভ্রমণ করবেন আর বাসায় এসে দেখবেন আপনি অটো হোয়াইট হয়ে গেছেন। কিউট না ব্যপারটা? এই রাস্তা কিন্তু বিশ্বের অষ্টমাশ্চার্য হওয়ারও দাবি রাখে। ১২ কিলোমিটার রাস্তায় ৮বছর ধরে কাজ চলচ্ছে, এটা জানলে বিশ্বের সবাই টিকেট কেটে গাজীপুরের রাস্তা দেখতে আসবে। এখানকার অথরিটি একটা প্রজেক্ট হাতে নেয়। ইনফিনিট টাইম ধরে ওই কাজ চলতেই থাকে চলতেই থাকে। এরপর ভুলক্রমে কাজ শেষ হয়ে গেলে আবার নতুন প্রজেক্ট হাতে নেয়। আগের প্রজেক্ট ভেঙে নতুন প্রজেক্টের কাজ এগিয়ে চলে। এখন গাজীপুরে এক্সপ্রেসওয়ের কাজ চলছে। এই কাজ কবে শেষ হবে তার ঠিক নাই। তবে কোনভাবে শেষ হয়ে গেলে আপনারা কি ভাবছেন এই রাস্তার নেয়ামত থেকে বঞ্চিত হবেন? একদমই না। এরপর সিরিয়ালে আছে পাতাল রেল। এটা শেষ হওয়ার আগে পাইপলাইনে আরও আসবে ইনশাআল্লাহ। সুতরাং লা তাহযান। অনেক দুষ্ট লোক বলে, গাজীপুরের রাস্তা তো কোন রাস্তা না যেন সাক্ষাৎ টাকার খনি। মেয়র, এমপি আর অন্যান্য নেতারা নাকি বছরে হাজার কোটি টাকা রোজগার করে এখান থেকে। এই সব ষড়যন্ত্র, আমাদের নেতাদের আয়ের পথ বন্ধ করার ষড়যন্ত্র। আমরা চাই কেয়ামত অব্দি এই রাস্তার কাজ চলুক। দেশের কিছু মানুষের রুটি রুজির পথ খোলা থাকুক। সবশেষে গাজীপুরবাসীকে এমন বেহেশতি পথ আর জান্নাতি অথরিটি উপহার দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ ❤️ মো:জাহাঙ্গীর আলম জীবন গ্রাম+পো:কুর্শিপাড়া, উপজেলা:ঈশ্বরগঞ্জ , জেলা: ময়মনসিংহ
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন