সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

আমার বউ বিয়ের সময় আমাকে পছন্দ করেই বিয়ে করেছে। বিয়ের পনের দিন পর বলছে আমি আর তোমার ভাত খাবো না। ডিভোর্স দিয়ে দিয়েছে, আমি তা কখনো মেনে নেই নি। খোলা তালাকের একটা বৈশিষ্ট্যও আমার মাঝে নাই। আমার প্রশ্ন হলো, ইসলামের আইন অনুযায়ী মেয়ে কি খেয়াল খুশি মত তালাক দিতে পারবে? স্ত্রী তালাক দিলে কি তালাক ইসলামের আইনে হবে?

সাঈদ রহমান
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:৩২ পিএম

উত্তর : ইসলামে মহিলাদের পক্ষ থেকে তালাক দেওয়ার কোনো নিয়ম নেই। বাংলাদেশের আইনে কোনো কারণ দেখিয়ে তালাক দেওয়ার বিধান রাখা হয়েছে। কাবিন রেজিষ্ট্রির সময় মেয়েকে তালাকের অধিকার দেওয়া হয়। আপনি সেটি বুঝে না বুঝে দিয়ে থাকলে স্ত্রী আপনাকে তালাক দিতে পারবে। শরীয়তে এটি জায়েজ পদ্ধতি নয়। কিন্তু দেশীয় আইনে বৈধ। শরীয়তে মহিলাকে তালাকের অধিকার দিলেও সে স্বামীর পক্ষ থেকে তালাক নিতে পারে। স্ত্রী নিজেই কোনো অবস্থাতে তালাক দিতে পারে না। শরীয়তে কোনো কারণ দেখিয়ে কোটের মাধ্যমে তালাক লাভ করার নিয়মও আছে। তবে, এক্ষেত্রে স্ত্রী মিথ্যার আশ্রয় নিতে পারবে না। যদি নেয়, তাহলে সে কবীরা গুনাহ করবে। খোলা তালাকেও স্বামীর সাথে সমঝোতা করে বিদায় নিতে হয়। এছাড়া অন্যভাবে তালাক দিয়ে যে মহিলা চলে যায়, সে মূলত শরীয়তমতো যায় না। দেশীয় আইনে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তবে, দেশীয় আইনের ভিত্তিতে যদি তালাক পতিত হয় বলে সাব্যস্ত হয়, তাহলে সমঝোতার চেষ্টা করার সুযোগ থাকে। যদি সমঝোতায় পৌঁছানো না যায়, তাহলে তালাক দিয়ে দেওয়া উত্তম। আল্লাহ আপনাকে উত্তম বিকল্প দিবেন, আর মহিলাটিও অবৈধ ভবিষ্যত থেকে রক্ষা পাবে।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Mahdi hasan ২ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:২৩ এএম says : 0
হযরত চমৎকার লিখেছেন
Total Reply(0)
শিহাব কাজী ২ জানুয়ারি, ২০২২, ২:০৮ পিএম says : 0
مشاءالله খুব স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছেন হযরত حزاك الله
Total Reply(0)
MD: ASHRAFUL ALAM BABU ৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:১৫ এএম says : 0
আসসালামু আলাইকুম আশা করি ভালো আছেন। আমি সব সময় ফরজ নামাজ জামাত বা একা পারার শেষে আয়াতুল কুরশি পড়ি এটা অটোমেটিক চলে আসে। আমার জিজ্ঞাসা জামাতের সবাই সালাম ফিরার সঙ্গে সঙ্গে আসতাগফিরুল্লা পরে আমি আয়তুলকুরশি পড়ি মনে মনে ইমাম সাহেব মোনাজাত করে এতে অনেক সময় মোনাজাত পাইনা। এতে আমার নামাজের কোন ক্রুতি থেকে যায়? না আমি সঠিকতা পথেই আছি। জানালে উত্তর হবো। ভালো থাকবেন।
Total Reply(0)
মুহাম্মদ আপ্তাব উদ্দিন ১৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:৪০ এএম says : 0
আমি বিদেশে থাকি,এই অবস্তায় একটা মেয়ের সাথে পরিচয় হয় আমার,তিন দিনের মাথায় আমরা একে অপরে সিদ্ধান্ত নিলাম আমরা বিয়ে করে ফেলি।তারপর আমরা স্বামী স্ত্রীর মতো চলতে থাকি।কিন্তু একজন মাওলানা বলেন যে তুমি তোমার স্ত্রীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক যদি না করো তিন মাসের মধ্যে তাহলে এই বিয়ে ভেঙে যাবে।আমি এই বিষয়ে আপনার মতামত জানতে চাই।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন