শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রাজৈর উপজেলার উপ-নির্বাচনে পুরাতনের সাথে নতুন প্রার্থীর লড়াই

মাদারীপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৪৯ পিএম

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দুই জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। সোমবার বিকেলে ৫টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ সময়ে প্রার্থীরা মনোনয়ন জমা দেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে। এবার নির্বাচনে গতবারের স্বতন্ত্র পদে পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সাথে আওয়ামীলীগের নতুন প্রার্থীর লড়াই হবে।

নির্বাচন অফিস থেকে তথ্য মতে, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিম শাহীন চৌধুরী ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদে মোহসীন মিয়া মনোনয়নপত্র জমা দেয়। এসময় প্রার্থীদের সাথে তাদের কর্মী-সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন। মনোনয়নপত্র জমা নেয় জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান।

মাদারীপুর জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ১৩ জুলাই মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব মিয়া মারা যায়। পরে উপজেলাটির উপ-নির্বাচনের তফসীল ঘোষণা করা হয়। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এ উপজেলায় মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ছিল ৩ জানুয়ারি। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের তারিখ ৬ জানুয়ারি, আপিল দাখিলের শেষ সময় ৯ জানুয়ারি, আপিল নিষ্পত্তির শেষ তারিখ ১২ জানুয়ারি সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৩ জানুয়ারি, প্রতীক বরাদ্দ ১৪ জানুয়ারি এবং ভোটগ্রহণ ২৭ জানুয়ারি।

রাজৈর উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মোতালেব মিয়ার সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহসীন মিয়ার। এবারও মোহসিন মিয়া চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। নির্বাচনে অংশ নেয়া মোহসিন মিয়া জানান, ‘আগের বার ভোট কারচুরি কারণে আমার বিজয় নিশ্চিত হয়নি। তাই জনগণের ভালোবাসার কারণে এবারও স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। যদি সুস্থ ও অবাধ নির্বাচন হয়, তাহলে এবার আমার বিজয় নিশ্চিত।’

মাদারীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ‘এ উপ-নির্বাচনে দুই জন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে। আমরা সব ধরণের নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েছি।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন