সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

যশোরে বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা

যশোর ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:৫৪ পিএম

যশোরের খড়কিতে বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট ঘটনায় এবার সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। থানায় অভিযোগ ও পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় এবার সন্ত্রাসীরা প্রাণ নাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। সোমবার (৩ জানুয়ারি) প্রেসক্লাব যশোরে মুক্তিযোদ্ধা মতিয়ার রহমানের মেয়ে রুনা আফরোজ এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, তার ছোট ছোট ভাই জিসান ৩১ ডিসেম্বর মসজিদ থেকে জুম্মার নামাজ পড়ে বের হবার পর পূর্বকল্পিতভাবে স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসীরা হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা ও মারধর করে তার কাছে থাকা একটি এনড্রোয়েড ফোন নিয়ে নেয়। এসময় তার চেঁচামেচি ও চিৎকারে মসজিদের মুলল্লিগণসহ আশপাশের প্রতিবেশেরা এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এসময় অন্যদের সহযোগিতায় জিসানকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এরপর পারিবারিকভাবে হামলার বিষয়টি জানতে চাইলে সন্ত্রাসীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে আমারদের বাড়ি ঘরে হামলা করে ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এসময় আমার বড় ভাইয়ের বউ লিজার গলায় থাকা প্রায় এক ভরি ওজনের একটি সোনার চেইন ছিনতাই করে নেয় তারা। এছাড়া বাড়ির গেট, দরজা, জানলা ও টিন ভেঙ্গে প্রায় অর্ধ লক্ষ টাকার ক্ষতি করেছে। আমার বৃদ্ধ পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিয়ার রহমানকে লাঞ্চিত করে। এ ঘটনায় তার বাবা যশোর কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

তিনি দাবি করেন খড়কির দক্ষিণ পাড়ার জিহাদ গাজীর ছেলে রিন্টু (৩৮), মানু (৩২), আজিজুর (৪২), একই মহল্লার লুৎফারের ছেলে লিপ্টন (২৫) ও সবুজ, ছাদেকের ছেলে রায়হান (২৩), শাহানাজ ও তার ছেলে সজিব (১৯), ছাত্তারের ছেলে শুকুর (২৮), আবুলের ছেলে শফিকুল (৩২), খলিরের ছেলে রিফাত (২০), গণির ছেলের কাদের (৩০), মোস্ত (২০), ছাদেকের ভাই তৌহিদসহ (৩২) আরো বেশ কিছু সন্ত্রাসী এ কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ ও যশোরের কয়েকটি দৈনিকে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় জড়িতরা আরো বেশি ক্ষিপ্ত হযে উঠেছে। তারা এখন প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। এমতাবস্তায় তারা পরিবার নিয়ে আততি রয়েছে। তারা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আফরোজের ভাই জিসান সহ পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন