মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৮ টাকা বাড়াতে চান ব্যবসায়ীরা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

আমদানি ব্যয় বৃদ্ধির কারণ দেখিয়ে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ৮ টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন। এ বিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবে বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশন।

জানা গেছে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে সম্প্রতি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনারস অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফেকচারার অ্যাসোসিয়েশন। একই সঙ্গে পাম তেলের দাম বাড়ানোরও দাবি জানিয়েছেন তারা। চিঠিতে ৮ জানুয়ারি থেকে দাম বাড়ানোর বিষয়ে জানানো হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বাণিজ্য মন্ত্রণলায় বিষয়টি যাচাই বাছাইয়ের জন্য ট্যারিফ কমিশনে পাঠায়। তারা এটি নিয়ে রিফাইনারস অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে আজ বৈঠকে বসছে।

বর্তমানে এক লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়। ৮ টাকা দাম বাড়িয়ে ১৬৮ টাকা নির্ধারণের দাবি জানানো হয় চিঠিতে। এ বিষয়ে শীর্ষস্থানীয় ভোজ্যতেল বিপণনকারী সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা বলেন, আমরা আগেই তেলের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়ে রেখেছিলাম বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে। সেটির বিষয়ে আজ বিকেল ৩টায় ট্যারিফ কমিশন বৈঠক ডেকেছে। আমরা মূলত ১২ টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছিলাম, সেটি তারা ৮ টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে। কালকের বৈঠকের পর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আমদানি ও অভ্যন্তরীণ বাণিজ্য (আইআইটি) অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব এ এইচ এম সফিকুজ্জামান বলেন, তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে একটা প্রস্তাব দিয়েছিলেন রিফাইনারিরা। আমরা এটা নিয়ে এনালাইসিস করে ট্যারিফ কমিশনে পাঠিয়েছি। তারা যাচাই-বাছাই করে জাতীয় কমিটিকে জানাবে, সেই কমিটি দাম নির্ধারণ করবে। ব্যবসায়ীরা প্রথমে ১২ টাকা বাড়ানো প্রস্তাব দেন। পরে তা কমিয়ে ৮ টাকা বাড়ানোর প্রস্তাব দেন। আজ এ বিষয়ে ট্যারিফ কমিশন বৈঠকে বসবে, তারপর আমাদের কাছে আসবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Parvez ৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:৩১ এএম says : 0
মাত্র ৮ টাকা কেন ? ব্যবসায়ী ভাইরা, ২০ টাকা করে বাড়িয়ে দিন। আপনাদের লাভ বেশী হবে। আর আমাদের ৩-৪ মাস পরে আবার বাড়ানোর কথা শুনতে হবে না। বছরে ৩ বার বাড়ানোর চেয়ে ১ বারই বেশী করে বাড়ান।
Total Reply(0)
sujon ১৮ এপ্রিল, ২০২২, ৩:৪৪ এএম says : 0
ভাই আমার প্রত্যেকদিনের ইন কাম 500 টাকা আমার পরিবারে পাঁচ জন লোক প্রতিদিন 500 টাকা বাজার করতে চলে যায় চিকিৎসা শিক্ষা খাতে স্বাস্থ্যখাতে সবমিলিয়ে পরিবারের সব ক্ষেত্রেই অর্থ বিনিয়োগ করা যায় সেক্ষেত্রে 5tk থাকে না সমস্যা কি পার লিটার 500 টাকা করেন সমস্যা নেই কেরালা থেকে সমস্যা কি সমস্যা
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন