শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

রোমাঞ্চকর ড্র’য়ে ইংল্যান্ডের স্বস্তি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০১ এএম

প্যাট কামিন্সের বলটি ফ্লিক করে মিডউইকেটে ঠেলেছিলেন জ্যাক লিচ। তাতে পেয়ে গেলেন ৩টি রান। কারণ সীমানায় কোনো ফিল্ডারই ছিলেন না। অজিদের সব ফিল্ডারই যে বৃত্তের মধ্যেই। উদ্দেশ্য পরিষ্কার। যে করেই হোক ইংলিশদের অলআউট করা। অন্যদিকে দাঁতে দাঁত কামড়ে টিকে থাকার লড়াই ইংল্যান্ডের। শেষ পর্যন্ত তাতে জয় হয়েছে সফরকারীদের। গতকাল সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অ্যাশেজের চতুর্থ টেস্টের পঞ্চম দিনের লড়াই শেষে ড্র হয় ম্যাচটি। এদিন ৯ উইকেটে ২৭০ রান করে দিন শেষ করে ইংলিশরা। তাতে অন্তত হোয়াইটওয়াশ এড়াতে পেরেছে অজিরা।

এবারের অ্যাশেজের প্রথম তিন টেস্টেই ইংল্যান্ড হেরেছে বেশ বড় ব্যবধানেই। চতুর্থ টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ছিল দলটির। সম্ভাবনা জাগিয়েছিল জয়েরও। ৪ উইকেটে ১৯৩ রান করেছিল দলটি। অন্যদিকে জয়ের ধারা ধরে রাখতে মরিয়া ছিল অস্ট্রেলিয়া। ফলে সিডনিতে লড়াইটা বেশ জমে ওঠে। কিন্তু কাজটা প্রায় করেও করতে পারলো না স্বাগতিকরা। আগের দিনের বিনা উইকেটে ৩০ রান করা ইংলিশদের জিততে হলে শেষ দিনে করতে হতো ৩৫৮ রান। চতুর্থ ইনিংসে পঞ্চম দিনের উইকেট বিচারে কাজটা বেশ কঠিনই। তাই জয়ের চেয়ে ম্যাচ বাঁচানোই সহজ ছিল ইংলিশদের। সে কাজটাই করেছে দলটি। এক পর্যায়ে জয়ের খুব কাছেই চলে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া। আর একটি উইকেট পেলেই জয় পেত দলটি। তখনও ইংলিশদের খেলতে হতো আরও ১২টি বল। উইকেটে তখন দুই অভিজ্ঞ খেলোয়াড় স্টুয়ার্ট ব্রড ও জেমস অ্যান্ডারসন। অভিজ্ঞতা থাকলেও দুইজনই যে মূলত বোলার। তবে জয় হয়েছে অভিজ্ঞতারই। শেষ দুই ওভার অনায়াসেই উইকেটে কাটিয়ে দিয়েছেন তারা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৭ রানের ইনিংস খেলেন ক্রাউলি। ৬০ রানের ইনিংস খেলেন স্টোকস। বেয়ারস্টোর ব্যাট থেকে আসে ৪১ রান। শেষদিকে ২৬ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলেন লিচ। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ৩টি উইকেট নিয়েছেন বোল্যান্ড। ২টি করে শিকার কামিন্স ও লায়নের।

অস্ট্রেলিয়া : ৪১৬/৮ ডিক্লে. ও ২য় ইনিংস : ২৬৫/৬ ডিক্লে.। ইংল্যান্ড : ২৯৪ ও ২য় ইনিংস : (লক্ষ্য ৩৮৮) (আগের দিন ৩০/০) ১০২ ওভারে ২৭০/৯ (ক্রলি ৭৭, হামিদ ৯, মালান ৪, রুট ২৪, স্টোকস ৬০, বেয়ারস্টো ৪১, বাটলার ১১, লিচ ২৬, ব্রড ৮*, অ্যান্ডারসন ০*; স্টার্ক ০/৬৮, কামিন্স ২/৮০, বোল্যান্ড ৩/৩০, লায়ন ২/২৮, গ্রিন ১/৩৮, স্মিথ ১/১০)। ফল : ম্যাচ ড্র। ম্যাচসেরা : উসমান খাজা। সিরিজ : ৫ ম্যাচে ৩-০ তে এগিয়ে অস্ট্রেলিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন