মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগ ও শেখ রেহানাকে দায়িত্ব দেওয়ার আহ্বান ডা. জাফরুল্লাহর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:৪৯ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করার পরামর্শ দিয়ে শেখ রেহানাকে দায়িত্ব দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে সব থেকে বড় ব্যর্থতা, গণতন্ত্র কবরে গেছে। ভোট হয় না, লোকে ভোট দিতে পারে না। আজ সোমবার (১০ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় মানবাধিকার সমিতি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

জাফরুল্লাহ বলেন, এখন আপনার অবস্থা এতো খারাপ যে, পশ্চিম দিগন্তে আপনার বিরুদ্ধে ডঙ্কা বাজানো শুরু হয়েছে। এটা ঢাকতে আপনি দালাল নিয়োগ করেছেন। দালালরা কখনও সত্যকে চাপা দিতে পারে না। আর আপনি উন্নয়নের কথা বলছেন। অথচ যে কাজ করা যেত ১০-১৫ হাজার কোটি টাকায়, সেটায় ৫০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে করছেন। সর্বত্র অনাচার, দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। এখন সম্ভবত আপনার বোঝার সময় হয়েছে যে, আপনার পদত্যাগ করা উচিত। আপনার বোন শেখ রেহানাকে এসবের সঙ্গে যুক্ত করুন। আপনি শেখ রেহানাকে কোনো কাজই দিচ্ছেন না। অন্তত তাকে মানবাধিকার ও ন্যায়পালের দায়িত্ব দিন, তাকে শিখতে দিন।

টিকা কেনায় অতিরিক্ত ব্যয় হচ্ছে উল্লেখ করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের এ প্রতিষ্ঠাতা বলেন, রাশিয়া টিকার জন্য অফার করেছিল মাত্র সাত ডলার। সেই টিকা আপনারা কিনেছেন ১৪ ডলার দিয়ে। সঙ্গে যুক্ত হয়েছে প্লেনের ভাড়া। আবার কত দিয়ে টিকা কিনেছেন সেটা সংসদেও জানান না। আপনারা সংসদকে অপমান করেছেন। আমার মনে হয় আপনি (শেখ হাসিনা) শারীরিকভাবে অসুস্থ, আপনার বিশ্রাম প্রয়োজন। আপনি বিশ্রাম নেন, শেখ রেহানাকে দায়িত্ব দেন। আপনি যদি বঙ্গবন্ধুকে সত্যিকার অর্থেই ধারণ করেন কিংবা সম্মানিত করতে চান তাহলে উচিত হবে যত দ্রুত সম্ভব একটি জাতীয় সরকার গঠন করা। জাতীয় সরকার প্রতিষ্ঠা করে যে অনাচারগুলো হচ্ছে সেগুলো পরিবর্তন করা। জাতীয় সরকার ছাড়া এখানে কোনোভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে না।

বিএনপির সমালোচনায় প্রবীণ এই রাজনৈতিক বলেন, গত দুই দিন ধরে বিএনপি নেতাকর্মীদের বলতে শুনেছি ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টের মাধ্যমে বিরোধী দল দমন করছে সরকার। কিন্তু তাদের একটা নেতাকেও বলতে শুনলাম না তারা ক্ষমতায় গেলে এই আইন বাতিল করবে। কেবল হাসিনা খারাপ, শুধু তার বিরোধিতা করে লাভ নেই। আপনারা ক্ষমতায় গেলে কী কী পরিবর্তন করবেন সেটার ঘোষণা দিন। আপনারা একাই কিছু করতে পারবেন না। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে রাস্তায় নামুন। আপনাদের চরম ব্যর্থতা খালেদা জিয়ার প্রতি অন্যায় হচ্ছে সেটার জন্য এখন পর্যন্ত কিছুই করতে পারলেন না।

তিনি বলেন, অনাচার, অন্যায় ও দুর্নীতির দায়ভার রাষ্ট্রপতিকেও নিতে হবে। কারণ প্রেসিডেন্টের ঘাড়ে বন্দুক রেখে ফায়ার করছেন শেখ হাসিনা। বিচার শুধু শেখ হাসিনার হবে না, প্রেসিডেন্টেরও হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন