রোববার, ২২ মে ২০২২, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

বিপিএলে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড চায় মোহামেডান

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:০৯ পিএম

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদাপূর্ণ আসর আসন্ন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে চায় ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। তথ্যটি জানাতে বুধবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনের সঙ্গে এক সৌজন্যে সাক্ষাতে মিলিত হন মোহামেডান কর্তারা। এসময় উপস্থিত ছিলেন মোহামেডানের ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী গোলাম মোহাম্মদ আলমগীর, পরিচালক শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন এমপি, পরিচালক এ জি এম সাব্বির, স্থায়ী সদস্য মোজাম্মেল হক বাবু ও ফাহাদ করিম। সাদাকালোদের দাবি সাম্প্রতিক সময়ে মোহামেডান কিছু ম্যাচে বাজে রেফারিংয়ের শিকার হয়েছে। সর্বশেষ ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালে বাজে রেফারিংয়ের কারণেই মোহামেডানকে হারতে হয়েছিল। তাই এই বিষয়ে জানাতে বাফুফের সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন মোহামেডান কর্তারা। এ সাক্ষাতে বাফুফে সভাপতির কাছে আসন্ন বিপিএলে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড চেয়েছেন তারা। আলাপচারিতায় বাফুফের সভাপতি নিশ্চিত করেছেন যে, বিপিএলে এবার সুষ্ঠু রেফারিং এবং লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করবেন তিনি।

এদিকে ফেডারেশন কাপে গত ৬ জানুয়ারি মোহামেডান ও রহমতগঞ্জের মধ্যকার ম্যাচের পর মোহামেডানের ডাইরেক্টর ইনচার্জকে চিঠি পাঠান বাফুফের লিগ্যাল অফিসার। যে প্রেক্ষিত্রে চিঠির ৬ টি বিষয়ের সুস্পষ্টতা চেয়ে বুধবার বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগের কাছে চিঠি দিয়েছেন মোহামেডানের ডাইরেক্টর ইনচার্জ এফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি। চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘বাফুফের লিগ্যাল অফিসারের নামে ক্লাব প্রেসিডেন্ট বা ডাইরেক্টর ইনচার্জকে (বাফুফের সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদকের পরিবর্তে) পত্র প্রেরণ বিধি সম্মত কিনা তার ব্যাখ্যা আমাদের জানা নেই। মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের আলোচ্য বিষয়ে ক্লাবের ডাইরেক্টর ইনচার্জ এফ অ্যাডমিনিষ্ট্রেশন বাফুফের সভাপতির কাছে ৯ জানুয়ারি একটি পত্র দিয়েছেন। লিগ্যাল অফিসারের পত্র তাই এখতিয়ার বহির্ভূত। মোহামেডান যাতে ফাইনালে উঠে ফুটবলের বর্তমান ক্রান্তিলগ্নে অবদান না রাখতে পারে তার জন্যই রেফারি ওই ম্যাচে ভূমিকা রেখেছেন। রেফারি হ্যান্ডবলের কারণে স্পষ্ট পেনাল্টি ও লালকার্ড দেওয়ার অপরাধ ঢাকতে গিয়ে মোহামেডানের বিরুদ্ধে মনগড়া রিপোর্ট দিয়েছেন। ক্লাবের কর্মকর্তা ও খেলোয়াড় খেলা শেষে নিজ অবস্থান থেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। রেফারিকে দৈহিক আক্রমণও করেননি। ভিডিও ফুটেজে স্পষ্ট যে, মোহামেডান শুধু দুঃখ প্রকাশ ও মৃদু প্রতিবাদ করেছে। আমাদের কাছে মনে হয়েছে, রেফারিবৃন্দ, লিগ্যাল অফিসার ও ফুটবলের একটি মহল মোহামেডানকে হেনস্তা করার চেষ্টা করছে।’

তিনি চিঠিতে আরও উল্লেখ করেন, ‘আমরা এই মর্মে আরও নিশ্চিত হয়েছি যে, মোহামেডান তথা ফুটবলকে ক্ষতিগ্রস্থ করার জন্য একজন লিগ্যাল অফিসারকে দিয়ে অসম্মানজনকভাবে একদিন সময়ে চিঠির উত্তর দেওয়ার আদেশ জারি করেছে বাফুফে। যা মোহামেডানকে ক্ষতিগ্রস্থ করার চেষ্টা করা হয়েছে। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, বাফুফের সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক মোহামেডানকে লিগে অংশ নিতে এবং ফুটবলে অবদান রাখতে অনুপ্রাণিত করবেন। ক্ষতিগ্রস্থ দল হিসেবে মোহামেডানকে বিবেচনায় আনবেন।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন