সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশের মানুষের বিরুদ্ধে আ.লীগ ষড়যন্ত্র করছে

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবি : ছয় জেলায় বিএনপির সমাবেশ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

বিএনপির চেয়ারপরসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে ছয় জেলায় বিএনপির সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলাগুলো হলো- চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, চাঁদপুর, খুলনা ও রংপুর। আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদন।

চট্টগ্রাম ব্যুরো জানান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, দেশের মানুষের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ ষড়যন্ত্র করছে। তারা আবারও ভোটের অধিকার কেড়ে নেয়ার চক্রান্তে লিপ্ত। তারা গণমাধ্যমের গলা টিপে ধরে সরকারের কর্মকর্তাদের ইচ্ছেমত ব্যবহার করছে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে এ সরকারের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি গতকাল বুধবার চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেয়ার দাবিতে নগরীর কর্ণফুলী আবাসিক এলাকা মাঠে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপি আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তার বক্তব্য চলাকালে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে আনোয়ারা বিএনপির দুই গ্রুপ।

সিলেট ব্যুরো জানায়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ করেছি মরিনি আজ যদি গণতন্ত্র ও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য গুলি খেয়ে মরতে হয় মরবো। বিএনপি নেতাকর্মীদের কাফনের কাপড় পরে তৈরি থাকার নির্দেশ দিয়ে বিএনপির সাবেক প্রতিমন্ত্রী টুকু আরোও বলেন, বেগম খালেদা জিয়া দমন-পীড়ন করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারতেন, তিনি তা করেননি। তিনি অবৈধ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাথে আপোস করেননি। অবৈধ বর্তমান সরকারের প্রতিহিংসার রাজনীতির কারণে আজ কারাগারে বন্দী। এম ইলিয়াস আলীর মুক্তি দাবি করে সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, এম ইলিয়াস আলী আজ গুম করে রাখা হয়েছে, তাকে ফেরত দিন। এছাড়া তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর বাংলাদেশের ইতিহাস পাল্টিয়ে ফেলছে। ওরা ছাড়া স্বাধীনতাযুদ্ধে আর কেউ যায় নাই! তবে এ দেশের খেঁটে খাওয়া মানুষ, লুঙ্গি পরে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছে।

রাজশাহী ব্যুরো জানায়, বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেছেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, চিকিৎসা নিয়ে আর কতৃত্ববাদী গণদুশমন রাতের ভোটে নির্বাচিত আওয়ামী সরকারের কাছে আর দাবী নয়। এবার এদের বিদায় করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি আর সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। জনগণকে ফ্যাসিষ্ট সরকারের হাত থেকে রক্ষো করতে হবে। জেলা বিএনপি আহবায়ক আবু সাঈদ চাঁদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও এমপি মিজানুর রহমান মিনু। প্রধান বক্তা ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ বলেন, আজকের এ সমাবেশ বন্ধ করতে পথে পথে নেতাকর্মী সমর্থকদের বাঁধা দিয়েছে পুলিশ। কিন্তু জনতার কাছে সে বাঁধা আর টেকেনি। মানুষ দেশের স্বার্থে স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষার স্বার্থে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চায়। তিনি বলেন, জনগণ জেগে উঠেছে। আর কোনো বাঁধা তাদের রুখতে পারবেনা।

খুলনা ব্যুরো জানায়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, স্লোগান নয়, এখন একশনের সময়। শেখ হাসিনার পতন ছাড়া বাংলাদেশের মুক্তি হবে না। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আন্দোলনের বিকল্প নেই। রাতের অন্ধকারে বিনা ভোটের এই সরকারের পতন ঘনিয়ে এসেছে। গতকাল বিকালে খুলনার ডুমুরিয়ার গুটুদিয়ায় বিএনপির গণসমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতায় এসব বলেন। তিনি বলেন, রামপালের পাশেই সুন্দরবন। যুগযুগ ধরে সুন্দরবন আমাদের রক্ষা করে আসছে। আর এই সুন্দরবন ধ্বংস করার জন্য কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র করবে বলে পণ করেছে। এই প্রযুক্তি ভারতের। কিন্তু ভারত সরকারের প্রযুক্তি ভারতবর্ষে স্থাপনের অনুমতি দেয় না। সেইটা আমাদের দেশে করছে।

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে জানায়, বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতায় এসে এই সরকার জনগণের ভোটের অধিকার লুট করে নিয়েছে। দিনের ভোট রাতে করছে। জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে। এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়। জনগণের প্রতি তাদের কোনো দায় নেই। সরকার এবং তাদের পেটোয়া বাহিনী জনগণকে নির্যাতন-নিপীড়ন করছে। তাদের নির্যাতনে দেশের মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। আইনের দোহাই দিয়ে তারা জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। নির্লজ্ব-বেহায়ার মত মন্ত্রীরা কথা-বার্তা বলছে। এখন রাষ্ট্রপতিও লোক দেখানো সংলাপ করছেন।

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁদপুর থেকে জানায়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে না পাঠিয়ে সরকার আইনের দোহাই দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। সরকার যে নির্বাহী আদেশ প্রনয়ণ করা হয়েছে, তা সংশোধন করে নিশর্তভাবে মুক্তির দাবি জানাই। তিনি গতকাল বুধবার বিকেলে চাঁদপুর জেলা বিএনপির আয়োজনে শহরের নতুনবাজারস্থ মুনিরা ভবনের মাঠে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন