শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ০৪ ভাদ্র ১৪২৯, ২০ মুহাররম ১৪৪৪

জাতীয় সংবাদ

বিমানের টিকিট সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিন সংবাদ সম্মেলনে-আটাবের সাবেক নেতৃবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২২, ৫:৪২ পিএম | আপডেট : ৬:৫৬ পিএম, ১৩ জানুয়ারি, ২০২২

বিমানের টিকিট সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে অনতিবিলম্বে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছে অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্ট অব বাংলাদেশ (আটাব) এর সাবেক নেতৃবৃন্দ। সিন্ডিকেট চক্র মধ্যপ্রাচ্যগামী টিকিটের মূল্য দ্বিগুন থেকে তিনগুন বাড়িয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলোর সিন্ডিকেটের কারণে এই মুহূর্তে বিমানে টিকিটের অস্বাভাবিক মূল্য বিরাজ করছে। চড়া মূল্যের টিকিটের টাকা জোগাতে বিদেশগামী কর্মীদের নাভিশ্বাস উঠছে। আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আটাব এর সাবেক নেতৃবৃন্দ এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান। এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আটাবের সাবেক মহাসচিব আবদুস সালাম আরেফ, টোয়াবের সভাপতি রাফেউজ্জামান, মো. আব্দুল হামিদ, নূরুল আলম শাহীন, মনসুর আলম পারভেজ, মনিরুজ্জামান, খোরশেদ আলম, ফজলুল হক, আনোয়ার হোসেন, সবুজ আহমেদ, তোহা ইবরাহিম ও মেজবাহ উদ্দিন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আটাবের সাবেক সভাপতি এস. এন. মঞ্জুর মোর্শেদ মাহবুব বলেন, ২০২১ সালের অক্টোবর থেকে এই সঙ্কটময় অবস্থা শুরু হয়ে জানুয়ারি ২০২২ এ টিকিটের দাম সর্বকালের সেরা রেকর্ড অতিবাহিত করছে। তিনি বলেন, রিয়াদ জেদ্দা মাস্কাট দুবাই রুটে ইকোনমি ক্লাসের স্বাভাবিক একমুখী ভাড়া ত্রিশ থেকে পয়ত্রিশ হাজার টাকা হলেও এখন এক লাখ টাকা থেকে এক লাখ ত্রিশ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এত বেশি টাকা দিয়েও এখন টিকিট পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে বিদেশগামী কর্মীরা চাহিদানুযায়ী ওয়ানওয়ে টিকিট পাচ্ছে না। তিনি আরও বলেন, টিকিটের মূল্য বৃদ্ধির ফলে প্রবাসী শ্রমজীবী বিদেশগামী যাত্রী, ওমরাযাত্রী, রিক্রটিং এজেন্সি, ট্রাভেল এজেন্সি, ট্যুর অপারেটরসহ সবাই ব্যাপকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে উল্লেখিত রুটগুলোতে এয়ার টিকিট চল্লিশ হাজার টাকারও কম দামে পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া একই গন্তব্যের ফিরতি পথের দূরত্ব একই হলেও টিকিটের ভাড়া বিশ থেকে পঁচিশ হাজার টাকা মাত্র।
এ সময় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে ভাড়া কমানোর জন্য ওপেন স্কাই ঘোষণাসহ এয়ারলাইন্সের টিকিট বিপণন ব্যবস্থা তদারকি এবং এয়ার টিকিট সিন্ডিকেট চক্রের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন