বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

ভারতের বাণিজ্যিক সিনেমা চালানোর অনুরোধ দোরাইস্বামীর

বিনোদন রিপোর্ট: | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০২ এএম

গত ১৫ জানুয়ারি জাতীয় জাদুঘরে ২০তম ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারতের রাষ্ট্রদূত বিক্রম কুমার দোরাই স্বামী। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উৎসবের পরিচালক আহমেদ মুজতবা জামাল। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে দোরাইস্বামী ভারতের বাণিজ্যিক সিনেমা বাংলাদেশের সিনেমা হলে দেখানোর অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের চলচ্চিত্র পরিচালক, শিল্পী ও সঙ্গীতে সহযোগিতার ইতিহাস রয়েছে। একে অন্যের সিনেমা বাণিজ্যিকভাবে মুক্তি দিলে দুই দেশের চলচ্চিত্র শিল্পই লাভবান হবে। এতে সিনেমা হল ও এ সংক্রান্ত অবকাঠামো উন্নয়ন হবে এবং বিনিয়োগ আসবে। তিনি বলেন, সিনেমা এমনই শিল্প, যা সীমানা মানে না। ভারত-বাংলাদেশে যৌথ প্রযোজনায় প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগালের বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক নির্মাণ প্রায় শেষের দিকে। এ ধরনের চলচ্চিত্র শুধু দুই দেশের জন্য নয়, বিশ্ব বাজারের একটি দরজা খুলে দেবে। সামনের দিনে আমরা একে অন্যের দেশে লাখে লাখে ঘুরতে যাবো এবং আমাদের সিনেমাও একে অন্যের দেশে দেখানো হবে। দোরাইস্বামী বলেন, চলচ্চিত্র শিল্পের যেকোনো ক্ষেত্রে ভারত সহযোগিতা করতে প্রস্তুত। বিশেষ করে দক্ষতা অর্জন, স্ক্রিপ্ট লেখা, এডিটিং, স্পেশাল এফেক্টে সহযোগিতা। কেননা ভালো সিনেমা ও সংলাপ শুধু এ অঞ্চলের জন্য নয়, সারাবিশ্বের সংস্কৃতি উন্নয়নের ধারক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
ash ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ২:৩৭ এএম says : 0
AGE TOMRA RAW KE GHORE FIRYE NAO !! VAROTE MUSLILM DER WPOR OTHACHAR , IMPORT-EXPORT BOISHOMMO BONDHO KORO
Total Reply(0)
Nayeemul ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৪০ এএম says : 0
তার প্রস্তাব কিছুতেই গ্রহণ করা উচিত নয়। তার প্রস্তাব প্রতিষ্ঠিত হলে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র শিল্প পুরোপুরি বিলুপ্ত হয়ে যাবে। এছাড়াও অনেক তরুণ-তরুণী তাদের অন্যান্য কাজের পরিবর্তে সিনেমা দেখার জন্য সময় এবং অর্থ অপচয় করবে যা অবশেষে আমাদের ভাষা এবং ধর্মকে একটি বিশাল সমস্যায় ফেলবে। অনেক লোক ইতিমধ্যে হিন্দি বলতে জানে এবং মানুষ বাংলা পুরোপুরি ভুলে যাবে এবং হিন্দি বেছে নেবে। এটি ধীরে ধীরে আমাদের জাতীয় সার্বভৌমত্ব, সংস্কৃতিকে হুমকির মুখে ফেলবে। এটি কোনো পছন্দ ছাড়াই সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করা উচিত।
Total Reply(0)
Saifullah ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৫২ এএম says : 0
Not at all. This will slowly inject Indian wrong side of the culture into our society creating many unethical activities among the youth and adults both. It's Indians long term plan to destroy our Islamic culture and eventually occupy the country
Total Reply(0)
True Mia ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৭:০২ এএম says : 0
India is the only Enemy of Bangladesh in this planet, Indian cinema is Path of hell Govt must not allow Indian cinema in Bangladesh
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps