বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মানুষ ১৮০ বছর পর্যন্ত বাঁচবে!

চাঞ্চল্যকর দাবি কানাডা-জাপান গবেষকদের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

সবাই এই পৃথিবীতে দীর্ঘজীবী হতে চান। বন্ধু-পরিবার বা প্রিয় মানুষের সঙ্গে কাটাতে চান জীবনের সেরা মুহূর্তগুলি। কালের নিয়মেই বার্ধক্য কাবু করে মানুষকে। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে হয়। কিন্তু সম্প্রতি গবেষকদের একাংশ মানুষের বেঁচে থাকা নিয়ে শোনাচ্ছেন অন্য এক কথা।
গবেষকরা বলছেন, সাধারণ মানুষ ১৮০ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারবেন। নাহ্, ভুল শোননি। সম্প্রতি কানাডার এইচইসি মন্ট্রিয়ালের বিজ্ঞানীরা এমন দাবি করেছেন। অধ্যাপক লিও বেলজিলি দাবি করে বলেন, চলতি শতাব্দীর মধ্যেই মানুষের পক্ষে ১৮০ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকা সম্ভব হবে।

এখনও পর্যন্ত বিশ্বে দীর্ঘজীবী হয়েছিলেন ফ্রান্সের প্রবীণা জান ক্যামটঁ। ১৯৯৭ মালে ১২২ বছর বয়সে তার মৃত্যু হয়। মানুষের বয়স নিয়ে গবেষণা চালান কানাডার বিজ্ঞানীরা। তারা জানান, বর্তমানে ‘ফার্স্ট লাইফ’-এর সঙ্গে খাপ খাওয়াতে গিয়ে মানুষের জীবনযাত্রার ধরন অনেকটাই বদলে গেছে। অতীতে দেখা যেত একজন ব্যক্তি গড়ে ৬০ থেকে ৮০ বছর বেঁচে থাকতেন। কিন্তু, এই সময় চক্র ঘুরছে।

এই চিত্রও বদলে যেতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। মানুষ ১৮০ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারবেন। গবেষকরা বলছেন, এক্ষেত্রে একগুচ্ছ সমস্যায় পড়তে পারেন প্রবীণরা। অধ্যাপক লিও জানাচ্ছেন, মানুষ যত দীর্ঘজীবী হবেন তাদের শারীরিক সমস্যা ততই বেড়ে যাবে। সে সঙ্গে বাড়বে হাসপাতালের খরচ, বার্ধক্যজনিত সমস্যাও বৃদ্ধি পাবে।
তিনি আরও বলছেন, প্রবীণদের হার্টের সমস্যা, হাঁটুর সমস্যা, বাতের ব্যাথ্যায় ভোগার আশঙ্কা থাকবে। এছাড়াও সামাজিক সমস্যা, পেনশন, সামাজিক সুরক্ষার ক্ষেত্রেও সমস্যা হতে পারে। অর্থাৎ ১৮০ বছর পর্যন্ত বেঁচে থাকায় মানুষের ক্ষতিই হবে।

উল্লেখ্য, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব এজিংয়ের একটি গবেষণা গত বছরের ডিসেম্বরে প্রকাশ্যে আসে। একটি টিকা নিলেই সাধারণ মানুষ যৌবন ধরে রাখতে পারবেন বলে জানা যাচ্ছিল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পল রবিন্স বলেন, ‘আমাদের কাছে টিকার কার্যকরিতার জন্য যথেষ্ট সংযত প্রমাণ রয়েছে।’

জাপানের মিনামিনো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক অধ্যাপক তারু মিনামিনো দাবি করেন, বার্ধক্যজনিত রোগ ধ্বংস করে বয়স ধরে রাখতে সাহায্য করে এমন একটি ভ্যাকসিন তারা আবিষ্কার করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা আশা করতে পারি এই ভ্যাকসিন কাজ করবে এবং বার্ধক্যজনিত সমস্যা থেকে সাধারণ মানুষকে মুক্তি দেবে।’ সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া, নিউজ ১৮।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Muhammad Ali ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৩৪ এএম says : 0
180 বছর পর কি হবে সেটা নিয়ে চিন্তা করেনি!!!
Total Reply(0)
হাসান আল মেহেদী ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৩৫ এএম says : 0
মানুষের হায়াতা দিন দিন কমছে এটা আরও কমবে।
Total Reply(0)
Nazmul Hasan ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:৩৬ এএম says : 0
এইসব আজগুবি গবেষণা করে কি গবেষক হওয়া যায়?
Total Reply(0)
Md Ataur Rahman ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ৮:৫০ এএম says : 0
Thank,s
Total Reply(0)
মনিরুজ্জামান ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১১:২৩ এএম says : 0
আল্লাহ যদি হায়ত দেয় তাহলে আরও বেশিও বাঁচতে পারে
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন