সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

উত্তরাঞ্চলে বাঘ পালানো শীত

তেঁতুলিয়ায় টানা তিন দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০৪ এএম

মাঘের শীতে কাঁপছে পঞ্চগড়সহ উত্তারাঞ্চল। ফলে ‘মাঘের শীতে বাঘ পালায়’ বাক্যের অনেকটা বাস্তব প্রতিফলন দেখা যাচ্ছে এসব এলাকায়। মাঘ মাসের দ্বিতীয় দিনে ঘন কুয়াশা ও উত্তরে হিমেল হাওয়ায় বেড়েছে শীতের তীব্রতা।

গতকাল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সকাল ৯টায় ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। যা সকাল ১১টায় সারাদেশের সঙ্গে নির্ণয় শেষে দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন বলে জানায় আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ অফিস। এনিয়ে টানা তিন দিন দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় তেঁতুলিয়া।
এদিকে একই দিন দুপুর ১২টার সময় এক লাফে ১২ ডিগ্রি বেড়ে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ২১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে মাঘের ১ম দিনে শনিবারও দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় তেঁতুলিয়ায় ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মাঘের শীতে বাঘ না পালালেও উত্তরের এই জনপদের মানুষ তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশার কারণে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। এতে জনজীবনে স্থবিরতা নেমে এসেছে।

দুপুর পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় ঢেকে থাকে পথঘাট। দুপুরে কিছু সময়ের জন্য সূর্যের দেখা মিললেও ঘন কুয়াশার কারণে উত্তাপ ছড়াতে পারে না তেমন। কিছু সময়ের জন্য সূর্য উঁকি দিলেও বিকেল গড়াতেই তা আর থাকে না। সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে উত্তরে হিমেল হাওয়ার সঙ্গে ঘন কুয়াশা পড়তে থাকে। কমে আসে তাপমাত্রাও। মাঝরাতে অনুভ‚ত হয় হাড় কাঁপানো শীত। শীতের প্রকোপ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে জেলার নিম্ন আয়ের মানুষের ভোগান্তিও বেড়েছে। সময়মতো কাজে যেতে পারছেন না তারা। অনেকেই খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন।
এদিকে কুয়াশার কারণে দিনের বেলায়ও হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে যানবাহনগুলো। অন্যদিকে শীতের দাপটের কারণে হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে শীত জনিত রোগীর সংখ্যা। তবে সব থেকে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বয়স্করা। জ্বর, সর্দি, কাশি, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া এবং শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে ভর্তি হচ্ছে রোগীরা। তবে সবেচেয়ে বেশি রোগী পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ বলেন, গতকাল সকাল ৯টায় তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা আজকে সারাদেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এদিকে গত তিনদিন ধরে উত্তরের এই জনপদে দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বিরাজ করছে ও রেকর্ড করা হচ্ছে বলে এই কর্মকর্তা আরও জানান।
দিনাজপুর : এদিকে দিনাজপুরেও চলছে শীতের দাপট। বেড়েছে ঘন কুয়াশার আস্তর। হঠাৎ ঠাÐার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। অনেকেই আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন। সকালে তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল দিনাজপুর আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তা তোফাজ্জাল হোসেন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, দিনাজপুরে সকাল ৯টায় বাতাসের আদ্রতা ছিলো ৮৮ শতাংশ, বাতাসের গতিবেগ ঘণ্টায় ৩-৪ কিলোমিটার। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এটি উত্তর বা উত্তর পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬-৮ কিলোমিটার গতিতে ধাবিত হতে পারে।
এছাড়া রংপুরে ১২.২, সৈয়দপুরে ১১.০, রাজারহাটে ৯.৫, ডিমলায় ১১.৮, বদলগাছিতে ১০.৬, যশোরে ১২.৮, চুয়াডাঙ্গায় ১২.০, রাজশাহীতে ১১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও : উত্তরাঞ্চলের অন্যতম জেলা ঠাকুরগাঁওয়েও জেঁকে বসেছে শীত। প্রায় সারাদিনই থাকে কুয়াশার দাপট। দুপুরে কিছু সময়ের জন্য সূর্যের দেখা মিললেও ঘন কুয়াশার কারণে উত্তাপ ছড়াতে পারে না তেমন। এনিয়ে গত তিন দিন ধরে প্রায় একই রকম অবস্থা বিরাজ করছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন