মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বৃদ্ধাকে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে মাথা ফাটানোর ঘটনায় মামলা, মা-মেয়ে গ্রেফতার

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ জানুয়ারি, ২০২২, ১০:২৫ পিএম

শেরপুরের নালিতাবাড়ী পৌর শহরে জমি সংক্রান্ত চলে আসা বিরোধে পুত্রবধূ ও নাতি মিলে সত্তর বছরের বৃদ্ধাকে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে মাথা ফাটানোর ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত মা-মেয়েকে। রোববার (১৬ জানুয়ারি) ছোট ছেলে অনুজ গাঙ্গুলির দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেফতার করে নালিতাবাড়ী থানা পুলিশ।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, শহরের ৩নং ওয়ার্ডের উত্তর বাজার এলাকায় মেইন সড়কের পাশে ৪ শতক জমির মধ্যে বড় ছেলে অসীম গাঙ্গুলিকে ৩ শতক লিখে দেন অমল কান্তি গাঙ্গুলি। গেল বছরের ১৫ মে তিনি মারা যাওয়ার পর দুই ছেলে অসীম গাঙ্গুলি ও অনুজ গাঙ্গুলির মধ্যে এ নিয়ে বিরোধ বাধে। একপর্যায়ে স্থানীয় শালিশে দুই ভাইয়ের মাঝে সমানভাগে জমি ভাগ করে সীমানা প্রাচীর করা হয়। কিন্তু ছোট ভাইয়ের অংশটুকু লিখে দিতে গড়িমসি করায় তাদের মা সত্তর বছর বয়সী বৃদ্ধা অঞ্জলী গাঙ্গুলি বড় ছেলে অসীমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তালা ঝুলিয়ে দেন। ফলে দুই পরিবারের ঝগড়া-মারামারি নিত্য-নৈমিত্তিকে পরিণত হয়। শুক্রবার পুনরায় দুই পরিবারে ঝগড়া বাঁধলে বৃদ্ধা বড় পুত্রবধূকে মারধর করেন। পরে পুত্রবধূ উমা গাঙ্গুলি ও নাতি অথৈ গাঙ্গুলি বৃদ্ধাকে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে। এসময় রাস্তায় পড়ে বৃদ্ধার মাথা ফেটে গেলে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে বৃদ্ধাকে ছুঁড়ে ফেলার এ দৃশ্য ছোট পুত্রবধূ মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করে দিলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। একপর্যায়ে রোববার ছোট ছেলে অনুজ গাঙ্গুলি বাদী হয়ে বড় ভাই অসীম গাঙ্গুলি, বড় ভাবি উমা গাঙ্গুলি ও ভাতিজি অথৈ গাঙ্গুলিকে আসামী করে অভিযোগ দায়ের করে। পরে পুলিশ মা-মেয়েকে গ্রেফতার করে। অপর অভিযুক্ত অসীম গাঙ্গুলি পলাতক রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন