ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

ঈশ্বরদীতে সিএনজি ও অটোটেম্পো মালিক সমিতির মানববন্ধন

প্রকাশের সময় : ৩১ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ঈশ্বরদী (পাবনা) উপজেলা সংবাদদাতা

ঈশ্বরদী শহরের নারিচা এলাকার লুলু মোল্লার ছেলে ব্যাটারিচালিত অটোবাইকের মালিক ও চালক শান্ত (১৯) দশদিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। পরিবারের লোকজন এবং পুলিশ এখনো শান্তর কোনো সন্ধান করতে পারেনি। তাকে সুস্থ ফিরে পাওয়ার আশায় স্বজনদের বাড়ছে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা। ১০ দিনেও শান্তর সন্ধান না হওয়াতে তার পরিবারের লোকজন ও উপজেলা অটোবাইক মালিক-চালক, সিএনজি মালিক ও অটোটেম্পো মালিক সমিতির সদস্যরা ঈশ্বরদী শহরের প্রধান রাস্তার স্টেশন রোডে মানববন্ধন ও পথসভা করেন। গত ১০ দিন আগে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অপহরণকারীরা উপজেলার জয়নগরের একটি ফোন-ফ্যাক্সের দোকান থেকে শান্তর মুঠো ফোনে এক ব্যক্তি অটোবাইক ভাড়া নেয়ার কথা বলে শান্তকে দাশুড়িয়া মোড়ে আসতে বলেন। দাশুড়িয়ার উদ্দেশে রওনা দেয়ার পর থেকে তারা শান্তর সন্ধান পাচ্ছিলেন না। সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। কিন্তু নিখোঁজের ১০ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ এখনো শান্তকে উদ্ধার করতে পারেনি। উপজেলা অটোবাইক মালিক সমিতির সভাপতি আশরাফ আবেদিনের সভাপতিত্বে মানববন্ধন শেষে আহূত পথসভায় বক্তব্য রাখেন শান্তর বাবা লুলু মোল্লা, অটোবাইক মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, উপজেলা সিএনজি মালিক সমিতির সভাপতি ফিরোজ বিশ্বাস ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন বিপ্লব। বক্তারা বলেন, শান্ত বছর খানেক আগে অটোবাইকটি ক্রয় করে নিজে চালক হয়ে ভাড়ায় চালাত। ভাড়া শেষে প্রতিদিন রাতে সে বাড়ি ফিরত। কিন্তু ওই দিন বৃহস্পতিবার রাতে শান্ত আর বাড়ি ফিরে আসেনি। শান্ত তার বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান ও পরিবারের চালিকাশক্তি ছিল। শান্তকে না পেয়ে তার বাবা-মা দিশেহারা, পাগলপ্রায়। আমরা আর কাউকে শান্তর মতো নিখোঁজ দেখতে চাই না। নিখোঁজের দীর্ঘ ১০ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও পুলিশ তার সন্ধান দিতে পারেনি। বক্তারা আরো বলেন, পুলিশ অতিদ্রুত শান্তর কোনো সন্ধান করতে না পারলে অটোবাইকের মালিক-চালক একত্রিত হয়ে ঈশ্বরদীবাসীকে সাথে নিয়ে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন